ভয়ঙ্কর যুদ্ধের ময়দান

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৯

ভয়ঙ্কর যুদ্ধের ময়দান

  তৌহিদুল ইসলাম তুষার

চীন রক্ষার তিনটি রক্তক্ষয়ী ভয়ঙ্কর যুদ্ধের ময়দানকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছে গেম 'টোটাল ওয়ার :তিন যুদ্ধ'। ১৯০ খ্রিষ্টাব্দের আগেই একসময়ের প্রভাবশালী হান বংশ পতন হয়। নতুন সম্রাট জিয়ান। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে নতুন সম্রাটের বয়স মাত্র আট বছর। এই সুযোগে সম্রাটের একমাত্র বুদ্ধিদাতা দোং জুহোর নানা চক্রান্ত করতে থাকেন। এরই ফল হিসেবে জিয়ান হয়ে ওঠে অত্যাচারী শাসক। তিন তরুণ এ অবস্থা থেকে চীনকে রক্ষার শপথ নেয়। তাদের সঙ্গে যুক্ত হয় একটি সৈন্য দল। যারা দোং জহুরের হাত থেকে চীনকে রক্ষা করবে। গেম খেলোয়াড়কে এই অত্যাচারী শাসকের বিরুদ্ধে একটি সৈন্য দল গঠন করতে হবে।

রিয়েল টাইম এই গেমটি পর্যায়ক্রমে খেলতে হবে। একটি পর্ব শেষ হলে পরবর্তী পর্ব হাজির হবে। খেলার শুরুতে একটি যুদ্ধের পরিবেশ হাজির হবে। যেখানে একজন শাসক সৈন্যদের নিয়ে হাজির হয়েছে প্রতিপক্ষকে আক্রমণের উদ্দেশে। এখানে মূল খেলোয়াড়কে অস্ত্র, ঘোড়া বা অন্যান্য সরঞ্জাম দিয়ে সাজাতে হবে তার দলটি। একটি নির্দিষ্ট এলাকা থেকে সৈন্যদের আক্রমণে নির্দেশ দিতে হবে। সৈন্যদের পাশাপাশি আপনাকে জানতে হবে যুদ্ধের নানা কৌশল। কারণ একেকটি দলপ্রধানের সঙ্গে আলাদাভাবে আপনাকে যুদ্ধ করতে হবে। যেখানে রণকৌশল জানা খুব জরুরি। এক্ষেত্রে আপনি সর্বোচ্চ পাঁচটি দল নিতে পারবেন। পুরো খেলায় মোট তিনটি রাজ্য জয় করতে হবে। গেমটি খেলায় বড় সমস্যা হলো- বিভিন্ন সময়ে যুদ্ধের কিছু ক্লু আসবে, যা সম্পূর্ণ চাইনিজ ভাষায় লেখা। তাই এই ভাষায় দক্ষ বা না জানলে কিছুটা বিপাকে পড়তে হবে। কারণ অভিযানে বিভিন্ন সময়ের আসা অক্ষরের ভেতর থাকবে অনেক ক্লু। পুরো গেমটি হবে দুটি ভিন্ন মোডের ওপর একটি রোমান্স অন্যটি রেকর্ডস। ক্রিয়েটিভ অ্যাসেম্বলির তৈরি গেমটি বাজারে নিয়ে এসেছে সিগা। চলতি বছরের ২৩ জুন মুক্তি পাওয়া গেমটি উইন্ডোজ, ম্যাক এবং লিনাক্সে চালানো যাবে। উন্নত গ্রাফিক্সের এই গেমটিতে হেভিওয়েট কোনো গ্রাফিক্স কার্ড প্রয়োজন হবে না। একা বা গ্রুপে গেমটি খেলা যাবে।


মন্তব্য