সংবাদ সংক্ষেপ

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৮

'প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতা' সফলে সভা
 সিলেট ব্যুরো

প্রথমবারের মতো সিলেটে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া 'শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতা' সফল করতে গত বুধবার রাতে নগরীর জিন্দাবাজারের গ্রিন ডিজঅ্যাবলড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) কার্যালয়ে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডিজিএফ ও বেঙ্গল অ্যাডভারটাইজিংয়ের সহযোগিতায় ১৩ নভেম্বর ওই প্রতিযোগিতার বাছাই পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। জিডিএফের চেয়ারম্যান কবির আহমদের সভাপতিত্বে ও প্রতিযোগিতার আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য দেন আবৃত্তি শিল্পী মোকাদ্দেস বাবুল, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ মিশু, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নিবাস রঞ্জন দাস, শাহ দিদার আলম নবেল, কবি ও গবেষক সুমন কুমার দাস, রুমু, বায়েজিদ খান, মাছুম আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

দক্ষিণ সুরমায় কুষ্ঠ রোগ বিষয়ে প্রশিক্ষণ
 সিলেট ব্যুরো

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য পরিদর্শক (এইচআই) ও স্বাস্থ্য সহকারীদের (এইচএ) নিয়ে কুষ্ঠ রোগ বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। সিলেটের সিভিল সার্জন অফিসের তত্ত্বাবধানে ও লেপ্রা বাংলাদেশের সহযোগিতায় এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সাঈদ এনামের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে বক্তব্য রাখেন লেপ্রা বাংলাদেশ সিলেট বিভাগের মনিটরিং অফিসার শ্যামল কুমার চৌধুরী, সিভিল সার্জন অফিসের প্রোগ্রাম অর্গানাইজার আবদুল আউয়াল, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাহবুবুল আলম, স্বাস্থ্য পরিদর্শক সায়েকুল ইসলাম, দক্ষিণ সুরমা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম ইমরান, উপজেলা টিএলসিএ মো. শরীফ মিয়া প্রমুখ।

ইজতেমার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি
 মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

আগামী ১৫ থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত মৌলভীবাজারে জেলা পর্যায়ের ইজতেমা অনুষ্ঠানের দাবিতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন তাবলিগ জামাতের সদস্যরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। এর আগে গতকাল থেকে তিন দিনের ইজতেমা হওয়ার কথা থাকলেও প্রশাসনের নির্দেশে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়। জানা যায়, বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত সদর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের উপশহর এলাকায় ইজতেমা আয়োজনের কথা ছিল। তাবলিগ জামাতের একটি পক্ষ এর বিরোধিতা করে। তাই প্রশাসন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে ইজতেমা স্থগিতের নির্দেশ দেয়। এর পর তাবলিগ জামাতের অপর পক্ষ আবার ১৫ নভেম্বর থেকে তিন দিন জেলা পর্যায়ের ইজতেমা আয়োজনের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে গতকাল। এ সময় জেলা প্রশাসক ও পৌর মেয়রের কাছেও একই দাবি জানান।


মন্তব্য যোগ করুণ