প্রথমের খোঁজে খুলনা

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৯

  ক্রীড়া প্রতিবেদক

তিন ম্যাচ খেলে একটিতেও হারেনি ঢাকা ডায়নামাইটস, জিতেছে সবক'টিতে। অথচ সমান ম্যাচ খেলে এখন পর্যন্ত জয়ের মুখই দেখেনি খুলনা টাইটান্স। লীগ পর্বের ১২ ম্যাচের মধ্যে এরই মধ্যে চার ভাগের এক ভাগ শেষ। প্লে-অফে যেতে হলে জয়ের পথে ফিরতে হবে দ্রুতই। সেই মিশনে আজ খুলনার প্রতিপক্ষ চিটাগং ভাইকিংস; আগের দুই ম্যাচে যাদের জয় একটি, হারও একটি। বিপিএল ষষ্ঠ দিনের অন্য ম্যাচে মুখোমুখি সাকিব আল হাসানের ঢাকা ও ডেভিড ওয়ার্নারের সিলেট সিক্সার্স।

খুলনার প্রথম তিন ম্যাচেই হেরে যাওয়ার মূলে ব্যাটিং ব্যর্থতা। এর মধ্যে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ১৬৯ রান তাড়া করতে নেমে ১৬১ রানই সর্বোচ্চ। বাকি দুই ম্যাচের একটিতে অলআউট ৮৭ রানে (ঢাকার বিপক্ষে), অন্যটিতে ২০ ওভার ব্যাট করে রান ১১৭। আগের দু'বারের ধারাবাহিকতায় এবারও নামি বিদেশি নেই খুলনায়। ভরসা করছে স্থানীয়দের ওপর। কিন্তু দেশিদের মধ্যে জুনায়েদ সিদ্দিকী আর বিদেশিদের মধ্যে পল স্টার্লিং ছাড়া আর কেউই তেমন একটা রান পাচ্ছেন না। এরই মধ্যে 'মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা'র মতো করে চোটে পড়েছেন বিদেশি রিক্রুট আলী খান। ২৮ বছর বয়সী এ যুক্তরাষ্ট্রের পেসারের বিপিএলই শেষ হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে তার বদলে ডেকে আনা হয়েছে পাকিস্তানের জুনায়েদ খানকে। খুলনা অবশ্য অপেক্ষায় আছে অন্য দুই বিদেশির। পাকিস্তানের ইয়াসির শাহ আর শ্রীলংকার লাসিথ মালিঙ্গা ক'দিনের মধ্যেই খুলনায় যোগ দেওয়ার কথা আছে। মালিঙ্গা এতদিন নিউজিল্যান্ডে ছিলেন শ্রীলংকা দলের সঙ্গে। গতকাল শেষ হয়েছে তার ব্যস্ততা। অন্যদিকে ইয়াসির পাকিস্তান দলের সঙ্গে ব্যস্ত দক্ষিণ আফ্রিকায়। খুলনার আজকের প্রতিপক্ষ চিটাগংয়ের ভাবনাও অবশ্য কম নয়। প্রথম ম্যাচ জিতলেও পরের ম্যাচে সিলেটের কাছে হেরে গেছে তারা।


মন্তব্য