যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০১৯

  নেত্রকোনা প্রতিনিধি

বারহাট্টা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের চল্লিশকাহনীয় খাসপাড়া গ্রামে পূর্বশত্রুতার জের ধরে বৃহস্পতিবার মাওলানা নূরুল ইসলাম ফকিরের ছেলে মোহাম্মদ উল্লাহ ফকিরকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

বারহাট্টার চল্লিশকাহনীয় খাসপাড়া গ্রামের নূরুল ইসলাম ফকিরের ছেলে মোহাম্মদ উল্লাহ ফকিরের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের আবদুল মোতালিবের ছেলে রেনু মিয়ার গ্রাম্য বিরোধ চলছিল। তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। বুধবার দু'পক্ষের মধ্যে ঝগড়া হয়। বৃহস্পতিবার ভোরে মোহাম্মদ উল্লাহ ফকির গ্রামের মসজিদ থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় রেনু মিয়ার বাড়ির সামনে গেলে ৬-৭ জন মোহাম্মদ উল্লাহ ফকিরের ওপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাকে বেধড়ক মারধর করে। এলাকাবাসী তাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বারহাট্টা থানা পুলিশ লাশের ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত মোহাম্মদ উল্লাহর ভাই শামীম ফকির বলেন, বিনা অপরাধে আমার ভাইকে ওরা প্রায় সময়ই মারধর করত। ক'দিন আগেও তাকে মেরেছে। বৃহস্পতিবার মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে রেনু মিয়া, বিমলসহ ৬-৭ জন তাকে মারধর করে। এ কারণে আমার ভাই মারা গেছে। বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বদরুল আলম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য