সড়কে গরুর হাট যানজটে ভোগান্তি

ঈশ্বরগঞ্জ

প্রকাশ : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সড়কে গরুর হাট যানজটে ভোগান্তি

   ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কে চলাচলকারী যানবাহনকে যানজটের কবলে পড়তে হয় শুধু ঈশ্বরগঞ্জে। প্রায় ৬২ কিলোমিটার সড়কের এ স্থানটি থেকে কোনোভাবেই নিরসন করা যাচ্ছে না যানজট। সড়কে বসছে গরুর হাটসহ নিত্যপণ্যের হাট। এতে কমছে না ভোগান্তি। এ অবস্থায় দ্রুত উদ্ভূত অবস্থার পরিত্রাণ চেয়েছেন স্থানীয় লোকজন।

ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা সদরটির অবস্থান সড়কের ওপরেই। উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে ঈশ্বরগঞ্জ কলেজ এলাকা পর্যন্ত আধা কিলোমিটার যায়গাজুড়ে নিয়মিত লেগে থাকে যানজট। সড়ক ও জনপথ বিভাগের জমি দখল করে সড়কের ওপর ছোট ছোট দোকানপাট ও নিত্যপণ্যের হাট বসে। ঈশ্বরগঞ্জ কলেজের সামনের এলাকায় গরুর হাটের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা থাকলেও সড়কের ওপরে বসে গরুর হাট। এতে সোমবার সড়কে বেড়ে যায় যানজটের মাত্রা। সড়কজুড়ে গরু ওঠায় সরু হয়ে যায় সড়ক। এতে ভোগান্তিতে পড়তে হয় চলাচলকারী যানবাহনে থাকা যাত্রীদের। এ ছাড়া যত্রযত্র ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, সিএনজিচালিত অটোরিকশা পার্কিং করা এবং স্মৃতিসৌধ চত্বরে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন চাঁদা আদায় করায় বাড়ে যানজট। যানজট নিরসনে স্থানীয় লোকজন দীর্ঘদিন ধরে দাবি করে এলেও তা কার্যকর হচ্ছে না।

সোমবার ঈশ্বরগঞ্জ থানা চত্বরে ওপেন হাউস ডে সভার আয়োজন করা হলে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে। সড়কে যত্রযত্র গাড়ি দাঁড় করিয়ে চাঁদা তোলা, গাড়ি পার্কিং, সড়কের ওপর থেকে হাট সরানোর দাবি তোলেন উপস্থিত লোকজন। উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান শেফালী হামিদ বলেন, মহাসড়কটির ঈশ্বরগঞ্জ এলাকাটি ভয়াবহ। গত চার বছর ধরে তিনি বিভিন্ন সভায় বিষয়টি নজরে আনার চেষ্টা করছেন। কিন্তু কোনো কাজ হচ্ছে না। মানুষের দুর্ভোগ কমছে না।

কমিউনিটি পুলিশিংয়ের থ্রি-হুইলার শ্রমিক সমিতির উপজেলা শাখার সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, সড়কে যত্রযত্র যানবাহন দাঁড়িয়ে সৃষ্ট যানজটের কারণ কোনো স্টেশন না থাকা। পৃথকভাবে স্টেশন না থাকায় সড়কের ওপর গাড়িগুলো দাঁড়িয়ে যাত্রী ওঠানামা করায় যানজট লেগে যায়। তবুও তারা সারক্ষণ যানজট নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন।

ওসি আহম্মেদ কবীর হোসেন বলেন, আগামী সপ্তাহ থেকে সড়কের ওপর গরুর হাট বসতে দেওয়া হবে না। এ ছাড়া অবৈধ দোকানপাট, যানবাহনকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে সবার সঙ্গে আলোচনা করে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

ইউএনও এলিশ শরমিন বলেন, যানজটে সবাইকে ভোগন্তিতে পড়তে হয়। স্থানীয় লোকজন সবাইকে নিজে থেকে সচেতন হতে হবে। বিষয়টি নিয়ে পৌর মেয়রের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।


মন্তব্য