আউট সোর্সিংয়ের বেতন নির্ধারণ

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৯

  সমকাল প্রতিবেদক

আউট সোর্সিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিয়োগ করা কর্মীদের বেতন নির্ধারণ করে দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এতে সর্বোচ্চ ১৯ হাজার ১১০ টাকা ও সর্বনিম্ন ১৬ হাজার ১৩০ টাকা বেতন ধরা হয়েছে। একই সঙ্গে এ পদ্ধতিতে নিয়োগ পাওয়া কর্মীদের পাঁচটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। গত সোমবার এক প্রজ্ঞাপনে ঢাকা মহানগর, ঢাকার বাইরে অন্যান্য সিটি করপোরেশন ও সাভার পৌর এলাকা এবং অন্যান্য এলাকায় অবস্থান ও নিয়োগ ক্যাটাগরির ভিত্তিতে এ বেতন নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ক্যাটাগরি-১-এ যারা নিয়োগ পাবে তাদের ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার জন্য ১৯ হাজার ১১০ টাকা বেতন দিতে হবে। একই ক্যাটাগরিতে নিয়োগপ্রাপ্তরা অন্যান্য সিটি করপোরেশন এবং সাভার পৌর এলাকার জন্য বেতন পাবেন ১৮ হাজার ১২০ টাকা। এ ছাড়া দেশের অন্যান্য জায়গার জন্য বেতন হবে ১৭ হাজার ৬৩০ টাকা। ক্যাটাগরি-২-এ নিয়োগপ্রাপ্তরা ঢাকায় বেতন পাবেন ১৮ হাজার ৬১০ টাকা। অন্যান্য সিটি করপোরেশনে ১৭ হাজার ৬২০ টাকা এবং অন্যান্য জায়গায় বেতন পাবেন ১৭ হাজার ১৩০ টাকা। ক্যাটাগরি-৩-এ নিয়োগপ্রাপ্তরা ঢাকায় ১৮ হাজার ২১০ টাকা, অন্যান্য সিটি করপোরেশনে ১৭ হাজার ২২০ টাকা এবং অন্যান্য এলাকায় ১৬ হাজার ৭৩০ টাকা বেতন পাবেন। ক্যাটাগরি-৪-এ ঢাকায় ১৭ হাজার ৯১০ টাকা, অন্যান্য সিটি করপোরেশনে ১৬ হাজার ৯২০ টাকা এবং অন্যান্য জায়গায় পাবেন ১৬ হাজার ৪৩০ টাকা। পঞ্চম ক্যাটাগরিতে নিয়োগপ্রাপ্তদের জন্য ঢাকা শহরে ১৭ হাজার ৬১০ টাকা বেতন ধরা হয়েছে। অন্যান্য সিটি করপোরেশনে ১৬ হাজার ৬২০ ও অন্যান্য এলাকায় ১৬ হাজার ১৩০ টাকা বেতন ধরা হয়েছে। এই বেতন নির্ধারণে সমপর্যায়ের কর্মীদের মূল বেতন, বাড়ি ভাড়া, চিকিৎসা ভাতা এবং দুটি উৎসব ভাতা ও নববর্ষ ভাতা বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।

আউট সোর্সিংয়ে নিয়োগপ্রাপ্তরা আলাদাভাবে উৎসব প্রণোদনা ও নববর্ষ প্রণোদনা পাবেন না। এসব বেতন কর্মীদের নিজের নামের ব্যাংক হিসাবে দিতে হবে। শুধু গাড়ি চালকদের অতিরিক্ত সময়ে কাজের জন্য প্রতি ঘণ্টায় ৮০ টাকা দেওয়া যাবে। তবে সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিনসহ মাসে ১০০ ঘণ্টার বেশি অতিরিক্ত কাজ করানো যাবে না।


মন্তব্য