টেলিভিশন

নাগরিক টিভির অভিযোগ নাকচ করলেন মাহতিম

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৯ | আপডেট : ১০ জুন ২০১৯

নাগরিক টিভির অভিযোগ নাকচ করলেন মাহতিম

মাহতিবম সাকিব

  অনিন্দ্য মামুন

দেশের খ্যাতিমান শিল্পীদের জনপ্রিয় গানগুলোর কাভার করে পরিচিতি পেয়েছেন মাহতিম সাকিব। শুধু পরিচিতই নয় রীতিমত জনপ্রিয়তাও পেয়ে গেছেন। সেই জনপ্রিয়তার রেশ ধরে বেশ কিছু মৌলিক গানও প্রকাশিত হয়েছে এ শিল্পীর। এই মাহতিম সাকিবের বিরুদ্ধে এবার শিডিউল ফাঁসানোর অভিযোগ তুলেছে বেসরকারি টিভি চ্যানেল নাগরিক টিভি। 

রোববার নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান কামরুজ্জামান বাবুর ই-মেইল থেকে পাঠানো এক বার্তায় অভিযোগ সম্পর্কে জানানো হয়। সেখানে উল্লেখ করা হয়, ‘গত এক মাস ধরে নাগরিক টিভির পর্দায় প্রচারণা চলেছে, ঈদের পঞ্চম দিন মাহতিম সাকিব ও ইমরান হোসেন যৌথভাবে ‘গানের মেলা’ নামে একটি লাইভে অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।  কিন্তু শো-এর ঠিক একদিন আগে মাহতিম সাকিব নাগরিক টিভিকে নাকি জানিয়েছেন, 'তিনি শোতে অংশ নিতে পারবেন না। কারণ ওইদিন বগুড়ার একটি শো তিনি হাতে নিয়েছেন এবং সেখানে অনেক টাকাও নিয়েছেন তিনি।  

এমন বার্তা পাঠানোর পরই মাহতিম সাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সমকাল অনলাইন জানান, এটা নাগরিক টিভির সঙ্গে তার ভুল বোঝাবুঝি। এখানে কারও ভুল নেই বলেও মন্তব্য তার। 

মাহতিম সাকিব বলেন, 'ঈদের ষষ্ঠদিন আমার নাগরিক টিভির শো-টি করার কথা ছিল। তাই বগুড়ায় ঈদের পঞ্চম দিনের প্রোগ্রামটি জন্য শিডিউল দেই।  কিন্তু গতকাল রাতে হঠাৎ করে আমাকে জানানো হয় আজ নাকি নাগরিক টিভিতে প্রোগ্রাম। আমি তখন বগুড়ায। সেখান থেকে দ্রুত আসাও সম্ভব নয়।’

শিডিউল ফাঁসানের অভিযোগ নাকচ করে মাহতিম সাকিব বলেন, 'কামরুজ্জামান বাবু ভাই নামে একজনের সঙ্গে আমার মৌখিক কথা হয়েছিল। কয়েকবারই কথা হয়েছে। কিন্তু প্রতিবারই আমার সাথে ঈদের ষষ্ঠদিনের আলাপ হয়েছে। তারপরেও যদি ভুল হয় আমি ক্ষমাপ্রার্থী। ওই ভাইয়ের কাছে ফোন করে আমি ক্ষমা চেয়েছিও। কিন্তু ভুল বোঝাবুঝির কারণে তারা যেভাবে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন তাতে আমি মর্মাহত। এমন তো না যে তাদের সাথে আমার লিগ্যালি কোনো চুক্তি হয়েছে। কিংবা নৈতিকভাবে কথা ভঙ্গ করেছি।'

মাহতিম সাকিব সমকাল অনলাইনকে আরও বলেন, 'নাগরিক টিভিতে আব্দুন নুর তুষার স্যার আছেন। তিনি আমার একটা অনুষ্ঠানের জাজ ছিলেন। সেই থেকে তার সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক। তাই বলেছিলাম যেহেতু তিনি আছেন তাই আমি ওই অনুষ্ঠানে কোনো পারিশ্রমিক নেবো না। তবে আমি বলেছি, শুধু আমার সঙ্গে মিউজিশিয়ান যাবে তাদের বিলটা দিতে। আমার মোবাইল ক্যালেন্ডারেও নাগরিক টিভির ষষ্ঠ দিনের হিসেবে সেট করা আছে। 

টেলিভিশনে প্রোমো দেখেননি? সেখানে তো লেখা বা বলার কথা কোনদিন অনুষ্ঠান প্রচারিত হবে? এ প্রশ্নের জবাবে মাহতিম সাকিব বলেন, 'সত্যি বলতে সেটা আমি দেখিনি। আর যদি আমি জেনেও থাকতাম যে আমাকে নাগরিক টিভিতে ঈদের পঞ্চম দিন প্রোগ্রাম করতে হবে তাহলে নিশ্চয় প্রোগ্রাম করতাম আর বগুড়ার প্রোগ্রাম হাতে নিতাম না।'

অন্যদিকে একজন নতুন শিল্পীর কাছ থেকে এমন অপেশাদারি আচরণ মেনে নেওয়া যায় না বলে জানিয়েছেন নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান কামরুজ্জামান বাবু।

মন্তব্য


অন্যান্য