টেলিভিশন

‘ভুল সিদ্ধান্ত নেইনি’

প্রকাশ : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯ | আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯

‘ভুল সিদ্ধান্ত নেইনি’

উর্মিলা শ্রাবন্তী কর

  অনিন্দ্য মামুন

‘ভালো চলচ্চিত্র করতে চাই আমিও। তবে সেটা গতানুগতিক নয়। নতুন বছরে যদি সে ধরনের চলচ্চিত্রের প্রস্তাব পাই। যে চলচ্চিত্রের স্ক্রিপ্ট আমার ভালো লাগে। মন মতো হয় তাহলে চলচ্চিত্রে অভিনয় করবো। তবে আমাকে যে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতেই হবে এমন কিন্তু নয়। আমি জীবনে প্রত্যাশার চেয়ে বেশিই পেয়েছি। আর নতুন বছরে অবশ্যই পূর্বের চেয়ে ভালো ভালো কাজের প্রতি মনোযোগ থাকবে।’  সমকাল অনলাইনকে কথাগুলো বলছিলেন টিভি নাটকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী উর্মিলা শ্রাবন্তী কর।

ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে ‘শেষ নায়ক’ নামে একটি ছবিতে অভিনয় শুরু করেছিলেন। প্রপার আয়োজনেই শুরু হয়েছিল ছবিটির শুটিং। কিন্তু ছবিটি আর শেষ হয়নি। ডিরেক্টর প্রডিউসারের ঝামেলার কারণে ৭০ ভাগ শুটিং শেষ হওয়ার পর বন্ধ হয়ে যায়। ছবিটি মুক্তি পেলে হয়তো ক্যারিয়ার নাটকে নয় চলচ্চিত্রেই গড়া হতো উর্মিলার।

উর্মিলা শ্রাবন্তী কর

অভিনয়ের বাইরে রাজনীতির মাঠেও সক্রিয় তিনি। আগামীতে নির্বাচনেও অংশ নেয়ার ইচ্ছে রয়েছে তার। নতুন বছরে দর্শকদের জন্য কোন সুখবর আছে কীনা জানতে চাইলে এ লাক্স তারকা জানান, অবশ্যই  নতুন সুখবর থাকবে।তবে কী সুখবর সেটা এখনও জানাতে পারছিনা।

একজন রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী তিনি। ছায়ানট থেকে সঙ্গীতের উপর নিয়েছেন গ্রাজুয়েশন। অভিনয় নিয়মিত হলেও গানের প্রতি ভালোবাসা কমেনি এ তারকার। তাই হুট করেই কোন এক সময়ে গান প্রকাশ করে ফেলবেন বলে জানালেন উর্মিলা। 

চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেছিলেন। এখন নাটকে নিয়মিত। সঙ্গীত শিল্পী হয়েও গান প্রকাশ করছেন না। কখনও কী মনে হয় ক্যারিয়ারে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আপনি? প্রশ্ন ছুড়তেই উর্মিলা বলেন, আমার মনে হয় না ক্যারিয়ারে আমি কখনও ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারণ ক্যারিয়ারের শুরুতে আমার সব সিদ্ধান্ত বাবা মতেই নিতাম। তার সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্তগুলো নেয়া। তাই যখন ভূল হওয়ার ভয় ছিলো তখনই হয়নি। বাবা সঙ্গে ছিলেন। পরে তো সব চেনা জানা আর নিজের ভালোটা বুঝতে পেরেছি। তাই কখনও ভুল সিদ্ধান্ত নেই নি।

ধারাবাহিক নাটক নিয়েই ব্যস্ততা উর্মিলার। শিগগিরই বেশ ক’টি ধারাবাহিক নাটকের শুটিং শুরু করবেন বলে জানালেন তিনি। সেই সঙ্গে দর্শকদেরও দিলেন নতুন বছরে ভালো কিছু দেয়ার প্রতিশ্রুতি। 

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

‘অহেতুক কাজের সংখ্যা বাড়ানোর কোন মানে নেই’


আরও খবর

টেলিভিশন
‘অহেতুক কাজের সংখ্যা বাড়ানোর কোন মানে নেই’

প্রকাশ : ২১ জানুয়ারি ২০১৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

মৌসুমী নাগ

  অনলাইন ডেস্ক

 মৌসুমী নাগ। মডেল ও অভিনেত্রী। এনটিভিতে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক 'মায়া মসনদ'। এ নাটক ও অন্যান্য বিষয়ে কথা হলো তার সঙ্গে- 

'মায়া মসনদ' নাটকে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?

'মায়া মসনদ' নাটকে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা একেবারেই অন্যরকম। অন্যান্য নাটকে যেমন বিভিন্ন লোকেশনে গিয়ে শুটিং করেছি, এ নাটকের ক্ষেত্রে সেটা করতে হয়নি। আলাদা পোশাক, মেকআপ নিয়ে একটি সেটের মধ্যে একটানা শুটিং করতে হয়েছে। সেট, লাইট, প্রপস- সব কিছু অন্যান্য নাটক থেকে আলাদা। আমার আগের নাটকগুলো থেকে 'মায়া মসনদ'কে তাই কোনোভাবেই মেলানো যাবে না। 

 মৌসুমী নাগ

নাটকটিতে দর্শক সাড়া পাচ্ছেন কেমন?

নাটকের গল্পে আমার চরিত্রটা এখনও সেভাবে প্রকাশ পায়নি। গল্পে দেখানো হবে রাজাধিরাজ আর্সেনালের ছেলে আমাকে একটি জায়গা থেকে উদ্ধার করে। এরপর তার সঙ্গে আমার বিয়ে হয় এবং আমাদের একটি সন্তান হয়। কিন্তু এত কিছুর পরও পুরো ঘটনা রাজপরিবারের অগোচরে থেকে যায়। এখান থেকেই গল্প অন্যদিকে মোড় নেবে। যারা নাটকটি দেখছেন, তাদের কাছে গল্পের এই বাঁকবদল ভালো লাগবে বলেই আমার ধারণা। আগামী পর্বগুলো থেকেই দর্শক প্রতিক্রিয়া জানা যাবে। এই প্রথম ফ্যান্টাসিনির্ভর নাটকে অভিনয় করছি, যেখানে দর্শক আমাকে ভিন্নরূপে দেখতে পাবেন। আমার চরিত্রটি দর্শকের মাঝে সাড়া জাগাবে- এটুকু প্রত্যাশা করতেই পারি। 

আগের তুলনায় আজকাল টিভি নাটকে কম দেখা যাচ্ছে এর কারণ কী?

নাটকের গল্প, চরিত্র যদি মনে ছাপ না ফেলে, তাহলে অহেতুক কাজের সংখ্যা বাড়ানোর অভিনয়ের মানে নেই। সেই কাজটি করতে চাই, যা দর্শকের ভালো লাগবে। সত্যিকার অর্থে এখন ভালো কাজের সংখ্যা খুবই কম। তারপরও গল্প চরিত্র ভালো লাগায় 'মালেক হইতে সাবধান' নাটকে অভিনয় করেছি। এখন 'মায়া মসনদ'-এর পাশাপাশি ফরিদুর হাসানের পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে 'লাকি থার্টিন' ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছি। 

'রান আউট' ছবির পর আর কোনো ছবিতে অভিনয় করেননি। বড়পর্দায় আর কোনো কাজ করার ইচ্ছা নেই?

ইচ্ছা আগেও ছিল, এখনও আছে। কিন্তু আমি চাই 'রান আউট'-এর মতো আরও কিছু ভিন্ন ধরনের ছবিতে অভিনয় করতে। তেমন ভালো কাজের সুযোগ পেলে অবশ্যই অভিনয় করব।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

নাঈম-টয়ার ‘রঙ বদল’ দেখা যাবে আজ


আরও খবর

টেলিভিশন

টয়া ও নাঈম

  অনলাইন ডেস্ক

রাতুল প্রতি বছর একটি নির্দিষ্ট দিনে নেপালে ঘুরতে যায়। তার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর থেকেই এই যাওয়ার কারণ। এখন সঙ্গী তার একমাত্র ছোট বোন। তারা এবছরও ঘুরতে আসায় সেখানে থাকা টুরিস্ট অফিসে কর্মরত হানির সঙ্গে রাতুলের পরিচিত ঘটে। প্রতি বছর একই সময়ে এখানে আসায় কৌতুহলের বশে রাতুলের সঙ্গে নিজ থেকেই পরিচিত হানি। এভাবে কথা শুরু হয়ে কিছুদিনর মধ্যেই তাদের মধ্যে প্রেম হয়ে যায়।

হানি তার ব্যাক্তি জীবনের সব কিছু খোলসা করে রাতুলের কাছে। রাতুলও তার নেপালে আশার বিশেষ কারণ বলে। রাতুলের সঙ্গে হানি কথায় কথায় গাঢ় হতে থাকে তাদের প্রেম।অন্যদিকে,হুট করেই কিডন্যাপ হয় রাতুলের ছোট বোন। বিপাকে পরে যায় সে। সাহায্যের হাত বাড়ায় হানি। একদিকে তাদের প্রেম অন্য দিকে রাতুলের কিডন্যাপড বোন। রাতুলের বোন আদৌ কি উদ্ধার হয় বা তাদের প্রেমের শেষ পরিনতি কি ঘটে? এমনই মানসিক টানাপোড়েনের গল্পে ঘটে যায় আরেক বিপত্তি। কি সেই বিপত্তি?

নাঈম ও টয়া

তপু খানের গল্প ভাবনায় নাটকটি রচনা করেছেন কুদরত উল্লাহ। পরিচালনায় মাহাদী শাওন। এতে রাতুল চরিত্রে দেখা যাবে রোমান্টিক অভিনেতা এফ এস নাঈম ও হানি চরিত্রে আছেন সাবলীল অভিনেত্রী মুনতাহিনা টয়া। নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছেন আজিজুর রহমান আজাদ, সোহানি, আনিসুর রহমান রাজীব, বিকাশ বঙ প্রমুখ। 

নাটকটি নিয়ে এফ এস নাঈম বলেন, ‘দেশের বাইরে শুটিং তাই খুব যতনে অভিনয় করতে হয়েছে। পুরো টিম অনেক পরিশ্রম করেছি। বিশেষ করে নাটকটির পরিচালক মাহাদী শাওন অনেক চেষ্টা ও পরিশ্রম করেছে। যাতে নাটকটির মান সবদিক দিয়ে ভালো হয়। খুবই ভালো একটি নাটকে কাজ করলাম।’

নাটকটি নিয়ে অভিনেত্রী টয়া বলেন, ‘দেশের বাইরে শুটিং করতে গিয়ে এই নাটকটিতে অভিনয় করতে হয়েছে নেপালে। সেখানকার পরিবেশ এমনিতেই সুন্দর। গল্প ও রচনা সব মিলিয়ে বলতে গেলে অসাধারণ টুইস্ট আছে। যে টুইস্ট গুলো বিদেশে দৃশ্যধারণ করা নাটক গুলোতে অনেক প্রয়োজন। দর্শক “রং বদল” নাটকটি দেখলে বেশ মজা পাবেন’।

আজ রাত ৯টা ৫মিনিটে এনটিভিতে প্রচার হবে নাটকটি। 

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

খুনের রহস্য উদ্ধারে এগিয়ে এলেন তিন তারকা


আরও খবর

টেলিভিশন

কল্যাণ, ইশানা ও আজাদ আবুল কালাম

  অনলাইন ডেস্ক

শহরে একের পর এক খুন হচ্ছে মানুষ।  লাশের পাশে খুনি রেখে যাচ্ছে ক্লু।  তবুও পুলিশ   কুল-কিনারা করতে পারছে না। এই খুনের কিনারা করতে এগিয়ে আসেন ডিটেকটিভ লাভলু মিয়া। এ অবস্থায় খুনি নিজেই ফোন করে গোয়েন্দাকে। 

এমন এক গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে আলোচিত মৌলিক গোয়েন্দা ওয়েব সিরিজ ‘ডিটেকটিভ লাভলু মিয়া’র নতুন গল্প ‘সিরিয়াল কিলার’। মোট তিন পর্বে শেষ হবে গল্পটি।সাকিব রায়হান পরিচালিত ও বাংলাঢোল প্রযোজিত ওয়েব সিরিজটিতে বরাবরের মতোই নাম ভূমিকায় থাকছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আজাদ আবুল কালাম। 

রহস্য উন্মোচনে এবার ডিবি পুলিশের চরিত্রে তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন কল্যাণ কোরাইয়া ও ঈশানা খান। এই গোয়েন্দা সিরিজে অভিনয় প্রসঙ্গে কল্যাণ বলেন, ‘এর আগেও আমি ক্রাইম থ্রিলারে কাজ করেছি। তবে এটি একটু অন্যরকম এই কারণে যে, হত্যার পর খুনি ক্লু দিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয়, উপস্থাপনাতে রয়েছে নতুনত্ব, চিত্রনাট্যও বেশ মজাদার। সহশিল্পী হিসেবে পাভেল ভাই (আজাদ আবুল কালাম) ও ঈশানা অনেক সহযোগিতা করেছেন। আশা করছি দর্শকদেরও ভালো লাগবে।’

নির্মাতা সাকিব রায়হান জানান, রবিস্ক্রিন ও এয়ারটেলস্ক্রিনে ১৭ জানুয়ারি উন্মুক্ত করা হয়েছে ‘সিরিয়াল কিলার’-এর প্রথম পর্ব। এতে আরও অভিনয় করেছেন শাহরিয়ার সজিব, নাজমুল ইসলাম জন, রিফাত জাহান, শামিম আহমেদসহ অনেকে। অচিরেই অন্য দুটি পর্ব উন্মুক্ত করা হবে। 

সংশ্লিষ্ট খবর