টেলিভিশন

শিগগিরই ভালো কিছু নিয়েই কাজে ফিরবো: নওশাবা

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ০৭ নভেম্বর ২০১৮

শিগগিরই ভালো কিছু নিয়েই কাজে ফিরবো: নওশাবা

কাজী নওশাবা

  অনিন্দ্য মামুন

কেমন আছেন নওশাবা? ফিরছেন কী কাজে? নাকী মিডিয়াকে টাটা বাই বাই জানাচ্ছেন? মানসিকভাবে কতটা শক্ত আছেন এখন? এমনসব প্রশ্ন নিয়েই যোগাযোগ করা হয় টিভি নাটকের পরিচিত মুখ কাজী নওশাবার সঙ্গে।  জানা গেলো খারাপ নেই এ অভিনেত্রী। প্রস্তুত হচ্ছেন কাজে ফেরার জন্য। শিগগিরই বড় কিছুর মাধ্যমে আবার কাজে ফিরবেন বলে জানালেন।

সমকাল অনলাইনকে নওশাবা বলেন,‘ কিছুদিন মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলাম। কিন্তু আমাকে ধীরে ধীরে দাঁড়াতে হবে। আমি খুব লাকী একজন মানুষ। মিডিয়াতে খ্যাতিমান কেউ নই আমি। নই বড় কোন অভিনেত্রীও। দর্শকদের কাছে তো আমার তেমন জনপ্রিয়তাও নেই। মিডিয়ায় আমার খুব একটা বন্ধু বান্ধবও নেই। তবে যে কজন আছেন তারা আমার খুব সুখ-দুঃখ দুই সময়েরই বন্ধু। এ ছাড়াও আমার বিপদের সময়টায় সবাই আমার পাশে থেকেছেন।  সবার কাছেই কৃতজ্ঞ আমি।’

আইনসৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর তদন্তে কোন নেতিবাচক কিছু পাওয়া যায়নি বলে জানালেন নওশাবা।  এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তদন্তের জন্য আইনসৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তা যেখানেই যার  কাছেই গেছেন আমার সম্পর্কে  পজেটিভই পেয়েছেন। আমি বাচ্চাদের নিয়ে কাজ করি। সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়াই এসবই তারা বলেছেন। বোঝতে পেরেছি মানুষ আমার পাশে সবসময় ছিল ও আছেন। তবে বিষয়গুলো আমি শিক্ষা আর অভিজ্ঞতা হিসেবেই নিয়েছি। ভবিষ্যতে চলার পথে এটা কাজে লাগবে।’ 

কাজী নওশাবা

 প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির প্রতিক্ষায় আছে নওশাবা অভিনীত ছবি ‘স্বপ্নের ঘর’। তানিম রহমান অংশু পরিচালিত ছবিটিতে ব্যতিক্রমী একটি চরিত্রে কাজ করেছেন নওশাবা। এ প্রসঙ্গে নওশাবা বলেন, ‘স্বপ্নের ঘর পুরো টিমটাই দারুণ। ছবিটিও দারণ হবে। ভৌতিক গল্পের ছবি এটি। প্রতিটি সিক্যুয়েন্সেই অন্য রকম ফিল পাবেন দর্শক। ওই সিনেমার মাধ্যমে প্রথমবার কোন ধুয়াশা টাইপের চরিত্রে অভিনয় করেছি। ঢাকা অ্যাটাক ছবিতে আমাকে যে ধরনের চরিত্রে দেখেছেন এতে একেবারে তার অপজিট চরিত্রে দেখা যাবে। এই সিনেমার সঙ্গে আমি আছি। আমি অনুরোধ করবো আপনারাও থাকেন। চলচ্চিত্রটির প্রচার প্রচারণায় আমি যতটা সম্ভব অংশ নেবো। দর্শকদের প্রতি অনুরোধ থাকবে আপনারা ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখুন।’

এবার কাজের ফিরছেন কবে বলুন? প্রশ্ন রাখতেই নওশাবা বলেন,‘ এখন মানসিক অবস্থা বেশ ভালো। কাজে ফেরার জন্য অপেক্ষা করছি। সব চূড়ান্ত না হলেই এখনই কিছু বলতে পারছি না। তবে এটা ঠিক ভালো এবং বড় কিছু নিয়েই কাজে ফিরবো। সেটাও খুব শিগগিরই।’

অভিনেত্রী হলেও নিজেকে একজন সাধারণ মানুষ মনে করেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’খ্যাত এ অভিনেত্রী। জানালেন, অসাধারণ নয়, নিজের একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সাধারণ মানুষ হিসেবে জীবন যাপন করতেই পছন্দ তার। এই সাধারণ হয়েই আগামীতে ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে চান দর্শকদের।

এদিকে ফেসবুকে  আপাতত তার কোন  আইডি নেই বলে জানালেন নওশাবা। যেটা ছিল সেটা হ্যাক হয়ে গেছে। বাকী যে  আইডি এখন রয়েছে তার সবগুলো ভুয়া আইডি বলে দাবী তার। 


সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

বোকা বাক্সে বন্দি রাজ্য


আরও খবর

টেলিভিশন
বোকা বাক্সে বন্দি রাজ্য

প্রকাশ : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮

ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘রাজার অতিথি’তে হাজির হন ড. মাহফুজুর রহমান

  অনলাইন ডেস্ক

রাজা আছেন, মন্ত্রী আছে,আছেন প্রজাও। কিন্তু রাজ্য কই? হ্যাঁ রাজ্য আছেন, তবে তা বোকা বাক্সে বন্দি। আর এই বন্দি রাজ্যের পুরো ঘটনাটাই ঘটবে একটি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে। নাম ‘রাজার অতিথি’। 

মূলত রম্য ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান এটি। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে এটিএন বাংলায় প্রচার হবে বিশেষ এই রম্য ম্যাগাজিন ‘রাজার অতিথি’। যাত্রাপালা ধরণের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি সাজানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে রাজার ভুমিকায় রয়েছেন সাইফুল জামিল। আর রানীর ভূমিকায় এ্যানী। এছাড়ায় অন্যান্য ভূমিকায় অংশগ্রহন করেছেন আলী আসগর ইমন, জান্নাত প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে রয়েছে শিল্পী রফিকুল আলমের কন্ঠে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গান ‘যায় যদি যাক প্রাণ’। এছাড়া আলম আরা মিনুর কন্ঠে রয়েছে ‘যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে লক্ষ মুক্তি সেনা’। অনুষ্ঠানে আরো থাকছে কাদামাটি গ্র“পের নৃত্য পরিবেশনা। এ ছাড়াও ছোট ছোট স্কিড এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানে হাস্যরস উপস্থাপন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে অংশগ্রহন করেন ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেয়া স্বর্ণপদক বিজয়ী সাতারু মোশাররফ হোসেন খান। এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান এবং মুক্তিযোদ্ধা ও চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। 

অনুষ্ঠানে আরো থাকছে বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের উপর বিশেষ প্রতিবেদন এবং সৌর বিদ্যুত দিয়ে গাড়ির উদ্ভাবক শাওনের উপর প্রতিবেদন। আলী আসগর ইমনের গ্রন্থনা ও সাইফুল জামিলের পরিচালনায় রম্য ম্যাগাজিন ‘নিটল আতাশী রাজার অতিথি’ এটিএন বাংলায় প্রচার হবে ১৬ই ডিসেম্বর, রাত ৮টায়।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

বিজয় দিবসের ‘অপেক্ষা’


আরও খবর

টেলিভিশন
বিজয় দিবসের ‘অপেক্ষা’

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮

‘অপেক্ষা’ নাটকের দৃশ্য

  অনলাইন ডেস্ক

মুক্তিযুদ্ধে স্বামীহারা এক স্ত্রীর ৪৭ বছরের অপেক্ষার গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘অপেক্ষা’। যাতে গল্পে গল্পে দেখানো হয়েছে স্বাধীনতার এত বছর পরেও স্বাধীনতাকে  সঠিকভাবে উপলব্ধি না করতে পারা,  বাংলা সংস্কৃতিকে সঠিকভাবে মূল্যায়ণ করতে না পারা? চারপাশে ভাষা বিকৃতির প্রতিযোগিতা।  

শফিকুর রহমান শান্তনুর রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন চয়নিকা চৌধুরী। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনয় করেছেন, সুবর্ণা মুস্তাফা, আনিসুর রহমান মিলন, দীপা খন্দকার, কাজল সুবর্ণ ও আযম খান।

বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর রাত ৯ টায় এটিএন বাংলায় প্রচার হবে বিশেষ নাটক ‘অপেক্ষা’।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

‘ডি-টুয়েন্টি’ বাসিন্দাদের সঙ্গে যুদ্ধ!


আরও খবর

টেলিভিশন

 ‘ডি-টুয়েন্টি’ ধারাবাহিক নাটকের একটি দৃশ্য

  অনলাইন ডেস্ক

সরকারি কর্মচারীদের আবাসিক কলোনির ডি ক্যাটাগরির দালানের একটি ফ্ল্যাট নম্বর ‘ডি-টুয়েন্টি’। ফ্ল্যাটটি বর্তমানে মূলত একটি মেস। মাত্র দুটি কামরা একটি বাথরুম-একটি ছোট রান্নাঘর। একচিলতে ব্যালকনির এই সরকারি কোয়ার্টারটি যার নামে বরাদ্দ। তার পরিবারে লোক সংখ্যা বেশি হওয়ার কারণে সাবলেট দিয়ে বাইরে বসবাস করে। ডি-টুয়েন্টির এই ছোট ফ্ল্যাটটিতে বেশকিছু মানুষ গাদাগাদি করে বাস করে। সবাই স্বল্প আয়ের মানুষ। দুই একজন ছাত্রও আছে। এরা সবাই পাবনা জেলার বাসিন্দা। এদের মধ্যে প্রচ- এলাকার টান। অন্যদিকে জেবুন্নেসা পাবনার মানুষকে একদমই সহ্য করতে পারে না। তার কাছে ডি-টুয়েন্টির বাসিন্দারা চক্ষুশূল। 

একদিন অদ্ভুত বেশভূষার যুবক মেগা ও ঘেগা এসে হাজির হয় ডি-টুয়েন্টিতে। দুজনই এদের পূর্ব পরিচিত এবং অবশ্যই পাবনা অঞ্চলের। রহস্যময় চরিত্রের অধিকারী ঘেগা নতুন নতুন কর্মকাণ্ড শুরু করে। এ নিয়ে নতুন করে শুরু হয় জেবুন্নেসার সাথে ডি-টুয়েন্টির বাসিন্দাদের যুদ্ধ। 

এসব নানা ঘটনাকে উপজীব্য করে এগিয়ে চলে ‘ডি-টুয়েন্টি’ ধারাবাহিকের গল্প।  বৃন্দাবন দাসের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন সাগর জাহান। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, আনিকা কবির শখ, ফজলুর রহমান বাবু, শাহনাজ খুশি, আরফান আহমেদ. এ কে আজাদ, জামিল প্রমুখ।

৮ ডিসেম্বর থেকেপ্রতি শুক্র, শনি ও রবিবার রাত ৯টা ২০ মিনিটে আরটিভিতে প্রচার হবে নাটকটি। 

সংশ্লিষ্ট খবর