টেলিভিশন

উর্মিলাকে নিয়ে ‘সম্রাট দ্যা গ্রেট’

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ০৬ নভেম্বর ২০১৮

উর্মিলাকে নিয়ে ‘সম্রাট দ্যা গ্রেট’

খন্দকার ইসমাইল ও উর্মিলা

  অনলাইন ডেস্ক

খন্দকার ইসমাইলকে সবাই উপস্থাপক হিসেবেই চিনেন। কিন্তু তিনি যে অভিনেতাও সেটা জানতেন না অনেকেই! এবার সেটাও জানলেন দর্শক।  কয়েক মাস আগে ‘হৃদয়ের টান’ নামের একটি নাটকে অভিনয় করেন তিনি। এ নাটকের মাধ্যমেই ২০ বছর অভিনয়ে ফিরেছেন বলে জানান এ উপস্থাপক।

সম্প্রতি কাজ করলেন ‘সম্রাট দ্যা গ্রেট’ নামের একটি টেলিছবিতে। জাকির হোসেন উজ্জলের রচনায় অভিনয়ের পাশাপাশি এটির নির্মাতাও খন্দকার ইসমাইল। এতে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেছেন উর্মিলা শ্রাবন্তী কর।

টেলিছবিটিতে অভিনয়  প্রসঙ্গে খন্দকার ইসমাইল বলেন,  ‘টেলিছবিতে আমাকে সম্রাট চরিত্রে দেখা যাবে। আমি সমাজের একজন প্রতিবাদী মানুষের চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমাদের সমাজে নানা রকম অনিয়ম-অপরাধ হচ্ছে। আমি এসবের প্রতিবাদ করি। একটা সময় অপরাধ জগতের মানুষ আমাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। তারপর গল্প অন্য দিকে মোড় নেয়।’

১৯৯৮ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ‘সময় বহিয়া যায়’ শিরোনামের একটি নাটকে তিনি প্রথম অভিনয় করেন। পরবর্তিতে উপস্থাপনায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন তিনি। এখন থেকে নিয়মিত অভিনয় করবেন বলে জানান তিনি।  

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

ভালো নেই অহনা, অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর


আরও খবর

টেলিভিশন

অ্যাপোলো হাসপাতালে শিফট করা হয়েছে অহনাকে

  অনলাইন ডেস্ক

ভালো নেই অভিনেত্রী অহনা। ক্রমেই অবস্থা অবনতির দিকে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হওয়ার পর রাজধানীর উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন এই অভিনেত্রী। কিন্তু অবস্থা ক্রমেই খারাপের দিকে যাওযায় বদল করা হয়েছে হাসপাতাল। সোমবার তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খালাতো বোন লিজা ইয়াসমীন মিতু অহনার শারীরিক অবস্থার অবনতির বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে লিজা ইয়াসমীন মিতু বলেন, 'ভালো নেই অহনা। তার শারীরিক অবস্থা ভালোর দিকে নয়। শরীরে রক্তে জীবাণু ছড়িয়ে পড়েছে। চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।সবাই অহনার জন্য দোয়া করবেন।’

গত ৮ জানুয়ারি অহনা শুটিং শেষ করে তার খালাতো বোনকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরায় বাসার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। উত্তরার কাবাব ফ্যাক্টরি থেকে কিছুটা সামনে সাত নম্বর সেক্টরের পূর্ব মাথায় দ্রুত গতির একটি ট্রাক সজোরে ধাক্কা দিয়ে অহনার প্রাইভেটকারের ক্ষতি করে। অহনা তার গাড়ির ক্ষতি হয়েছে দাবি করে ট্রাকচালককে নামতে বললে চালক আবারো অহনার গাড়িকে ধাক্কা দেন বলে জানিয়েছেন অহনা। 

পরে গাড়ি থেকে নেমে অহনা প্রতিবাদ করে ট্রাকচালককে নামতে বললে তিনি অহনার সঙ্গে তর্কাতর্কি করেন। এ সময় অহনা নিজেই ট্রাকের দরজা দিয়ে উঠে চালককে নামাতে যান।

কিন্তু চালক কথা না শুনে অহনাকে দরজায় ঝুলন্ত অবস্থায় ট্রাক ছেড়ে দেন। ট্রাকটি অহনাকে ঝুলন্ত অবস্থায় নিয়ে উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরে পৌঁছলে স্থানীয়দের বাধায় ট্রাকচালক সজোরে ব্রেক করলে ছিটকে পড়ে আহত হন অভিনেত্রী অহনা।

এ ঘটনায় ৯ জানুয়ারি উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন অহনার খালাতো বোন লিজা ইয়াসমীন মিতু। মামলায় গ্রেফতার ট্রাকচালক সুমন মিয়া আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

নওশাবাকে স্থায়ী জামিন দিলেন আদালত


আরও খবর

টেলিভিশন

কাজী নওশাবা

  অনলাইন ডেস্ক

অবশেষে আদালত স্থায়ীভাবে জামিন দিলেন অভিনেত্রী নওশাবা আহমেদকে। নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় অভিযুক্ত আসামী নওশাবা। স্থায়ী এ জামিনের ফলে মামলার কার্যক্রম চলতে থাকলেও জামিনে মুক্ত থাকবেন এ অভিনেত্রী। 

আজ নওশাবার মামলার  তদন্ত প্রতিবেদন ও আসামির হাজিরার দিন ধার্য করে ছিলো আদালত। নওশাবা আহমেদের আইনজীবী হাজিরাসহ জামিন স্থায়ী করার আবেদন দাখিল করলে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ দিদার হোসেন আবেদনটি মঞ্জুর করেন। পাশাপাশি  মামলার তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য আগামী ৩ মার্চ দিন ধার্য করেন। জামিন শুনানি করেন নওশাবার আইনজীবী ইমরুল কাওসার। 

২০১৮ সালের ৪ আগস্ট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে গুজব ছড়ান অভিনেত্রী নওশাবা। ফেসবুক লাইভে গিয়ে নওশাবা বলেন, ‘জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হয়েছে। একজনের চোখ উঠিয়ে ফেলেছে এবং চারজনকে মেরে ফেলেছে।’ এমন উসকানিমূলক বক্তব্যের কারণে র‌্যাব ১-এর ডিএডি মো. আমিনুল ইসলাম উত্তরার পশ্চিম থানায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পরে উত্তরা থেকে গ্রেফতার করা হয় নওশাবাকে। রিমান্ডেও নেয়া হয়। 

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

খলনায়ক হয়েও নায়ক তিনি


আরও খবর

টেলিভিশন
খলনায়ক হয়েও নায়ক তিনি

প্রকাশ : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯

‘খলনায়ক’ ধারাবাহিক নাটকের একটি দৃশ্য

  অনলাইন ডেস্ক

গোলাম কিবরিয়া তানভীর। নিয়মিত অভিনয় করছেন নাটকে। এবার প্রচার শুরু হয়েছে তার অভিনীত 'খলনায়ক' শিরোনামের একটি মেগা সিরিয়ালে। দীপ্ত টিভিতে শনি থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে এটি প্রচার হচ্ছে। জুনায়েদ হোসেন ও ওয়াহিদুজ্জামান সবুজের রচনায় এবং ফিরোজ কবীর ডলারের পরিচালনায় 'খলনায়ক'-এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। 

নাটকটি প্রসঙ্গে তানভীর বলেন, নাটকের নাম খলনায়ক হলেও সেই এখানে নায়ক। একজন স্বপ্নভাঙা প্রেমিকের গল্প, পিতার মতাদর্শের বাইরে গিয়ে বখে যাওয়া ছেলের গল্প নিয়ে খলনায়ক। এখানে আমার চরিত্রের নাম রুমি, যে মধ্যবিত্ত পরিবারে সন্তান হয়েও দ্রুত বড় লোক হওয়ার আশায় অন্ধকার জগতে পা রাখে। পরিবারের চেষ্টায় সে সঠিক পথে ফিরে এলেও একটা মেয়ের কারণে আবার নষ্ট পথে চলে যায়। 

তিনি বলেন, ৮ মাস আগে যখন অডিশন দেই তখনই বুঝতে পারি এ কাজে চ্যালেঞ্জ রয়েছে। গল্প শুনেই আমার ভালো লাগে। বলায় যায় ওয়ান ম্যান শো। স্ক্রিনে আমি না থাকলে আমার সংলাপ রয়েছে। আমার কাছে মনে হয়েছে এই নাটকে আমার অনেক কিছু করার আছে। নাটকের প্রতিটি দিকই আমাকে ঘিরে।  

তিনি আরও বলেন, পুরোপুরি মৌলিক গল্পের নাটক। নাটক হলেও মনে হবে ফিল্ম দেখছি। নির্মাতা সেভাবেই বানিয়েছেন। খলনায়ক নাম নেতিবাচক হলেও এখানে প্রেমকাহিনীর গল্প রয়েছে। আমাদের দেশে যারা নাটকের দর্শক তারা এ ধাঁচের গল্প ও নির্মাণ কখনই দেখেনি। আমাদের চারপাশের প্রতিটি সম্পর্ককে গুরুত্ব দিয়ে খলনায়কে তুলে ধরা হয়েছে। দর্শক গল্পের মধ্যে ঢুকলেই নাটক দেখবে। তাছাড়া দীপ্ত টিভি নাটকটি বারবার প্রচার করছে। সন্ধ্যায় একবার, রাতে একবার। আমার কাছে মনে হয়েছে অবশ্যই দর্শক নাটকটি দেখবে। 

তানভীর ছাড়াও খলনায়ক নাটকের অন্যান্য চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন ঈশানা খান, ফলজুর রহমান বাবু, সানজিদা তন্ময়, শিল্পী সরকার অপু, লায়লা হাসান, আল মামুন, রোদেলা, নিকি প্রমুখ।

সংশ্লিষ্ট খবর