টালিউড

মত প্রকাশের অধিকার নিয়ে সরব কলকাতার তারকারা

প্রকাশ : ২০ আগষ্ট ২০১৯ | আপডেট : ২০ আগষ্ট ২০১৯

মত প্রকাশের অধিকার নিয়ে সরব কলকাতার তারকারা

মত প্রকাশের অধিকার নিয়ে সভায় বক্তব্য রাখেন অপর্ণা সেন

  বিনোদন ডেস্ক

এবার মত প্রকাশের অধিকার নিয়ে সরব হয়েছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একাধিক তারকা। এদের মধ্যে রয়েছেন অপর্ণা সেন, সোহাগ সেন, কৌশিক সেন, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের মতো শিল্পীরা। 

'কথা বলার স্বাধীনতা আমাদের সবার আছে। মুখ খুললে মতবিরোধ হবেই। কিন্তু তার জন্য কারোর কণ্ঠরোধ করা গণতন্ত্র বিরুদ্ধ'- ভারতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে এভাবেই  আওয়াজ তুললেন কলকাতার তারকাশিল্পী ও ২৮ বিশিষ্ট ব্যক্তি।

সম্প্রতি অনুরাগ কাশ্যপ টুইটে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্পর্কে একটি মন্তব্য করেন। সেই মন্তব্যের পরই অনুরাগ কাশ্যপ ও তার পরিবারকে হুমকি শুনতে হচ্ছে। ফলে টুইটার অ্যাকাউন্ড বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন অনুরাগ। টুইটার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার আগে অনুরাগ লিখে যান, 'দেশ চলছে ঠগদের নেতৃত্বে। তাই ঠগিরাই দেশের কাণ্ডারি। এমন নৈরাজ্যে মুখ খোলা সত্যিই মূর্খমি। আজ থেকে তাই আমি নিরব।'

মঙ্গলবার কলকাতায় প্রতিবাদ সভায় অভিনেত্রী অপর্ণাসহ ২৭ বিশিষ্টজন অনুরাগের ওই উদারণ সামনে আনেন। 'সিটিজেন স্পিক ইন্ডিয়া'র মঞ্চ থেকে একটি চিঠিও পড়া হয়। চিঠির মূল বক্তব্য হচ্ছে, ‘স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে খোলাখুলি মতামত জানানোর অধিকার সবার আছে। কিন্তু ইদানিং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুখ খুললেই বিকৃত মন্তব্যের পাশাপাশি সরাসরি আক্রমণের ভয় দেখানো হচ্ছে মতামত প্রকাশকারীকে। এতে মতপ্রকাশ দূরে থাক, কথা বলতেই ভয় পাচ্ছেন সবাই। শুধু অনুরাগ নন, এমন জঘন্য ঘটনার শিকার আরও অনেকেই।’ 

সমাবেশে অপর্ণা বলেন, দেশে অসহিষ্ণুতা বাড়তে থাকায় এবং 'জয় শ্রীরাম ধ্বনি' বন্ধের অনুরোধ জানিয়ে নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছিলেন কলকাতার ৪৯ বুদ্ধিজীবী। সেই দলে কৌশিক সেনের মতো নাট্যব্যক্তিত্বও ছিলেন। তারপরই অজ্ঞাত ব্যক্তির কাছ থেকে প্রাণনাশের হুমকি পান কৌশিক সেন।

মন্তব্য


অন্যান্য