টালিউড

জয়া ভারতের প্রথম সিরিয়াল কিলার

প্রকাশ : ১৭ মে ২০১৯ | আপডেট : ১৭ মে ২০১৯

জয়া ভারতের প্রথম সিরিয়াল কিলার

জয়া আহসান।

  বিনোদন প্রতিবেদক

জয়া আহসান এবার অভিনয় করছেন ওয়েব সিরিজে। প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের ‘দারোগার দপ্তর’ সিরিজের গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ওয়েব সিরিজ। নির্মাণ করছেন কলকাতার পরিচালনা অরিন্দম শীল। এ ওযেব সিরিজেই একজন সিরিয়াল কিলারের ভূমিকায় অভিনয় করছেন জয়া আহসান। বর্তমানে কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিনি।  সম্প্রতি কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্র ‘কণ্ঠ’। ছবিটিতে দারুন প্রশংসিত হচ্ছেন বাংলাদেশের এ অভিনেত্রী। 

পরিচালনা অরিন্দম শীল জানিয়েছেন, বাংলা এবং হিন্দি দুই ভাষায় তৈরি হচ্ছে ওয়েব সিরিজটি। এর গল্প আবর্তিত হয়েছে একজন সুন্দরী ও বুদ্ধিমতী বাঙালি মহিলাকে কেন্দ্র করে। যার নাম ত্রৈলোক্য। সহজ-সুন্দরের পাশাপাশি একজন মূর্তিমান বিভীষিকও তিনি। ত্রৈলোক্যের প্রেমিক আর সঙ্গী কালী বাবু। সে প্রতারক, সবাইকে ধোঁকা দিয়ে বেড়ায়। ধোঁকা দিয়ে অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার ক্ষমতাও তার মধ্যে আছে। চোখে দেখা যায়না তাকে। অদৃশ্য মানব! 

তাদের পিছনে আছেন প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়। একজন গোয়েন্দা সে। ত্রৈলোক্য ও কালী বাবুকে খুঁজে বের করার জন্য তার আবির্ভাব। বলা হয়ে থাকে ভারতের প্রথম মহিলা সিরিয়াল কিলার ত্রৈলোক্য। তাকে নিয়েই এই সিরিয়ালের গল্প। তাকে নিয়েই প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের ‘দারোগার দপ্তর’ সিরিজের এই গল্প। দারোগা সিরিজের সেই  ত্রৈলোক্য হিসেবেই হাজির হচ্ছেন জয়া। নিশ্চিত করেছেন পরিচালক অরিন্দম শীল নিজেই।   

প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের “দারোগার দপ্তর” বইয়ে প্রথম ত্রৈলোক্য তারিণীর রেফারেন্স পাই। তারপর তাকে নিয়ে জানার চেষ্টা করি। যত জেনেছি, তত বিস্মিত হয়েছি। ১৮০০ শতকের মাঝামাঝি এই মহিলা সিরিয়াল কিলারের বর্ণময় এবং রহস্যময় জীবন আমাকে অবাক করেছে। দীর্ঘদিন ধরে তাঁকে নিয়ে গবেষণা হয়েছে। তার সামাজিক অবস্থান, হত্যালীলা, আত্মগোপন এবং কলকাতা থেকে বেনারস পর্যন্ত যে যাত্রা, সবই থাকবে আমার ছবিতে। বাংলায় এত ডিটেলে পিরিয়ড পিস ছবি হয়নি। আমরা বড় ক্যানভাসে কাজ করব। দেড় শ বছর আগের কলকাতাকে ধরতে হবে। আর এবারই প্রথম হিন্দি ভাষায় কাজ করছি।’ সিরিজটি নিয়ে নির্মাণে আসার কারণ হিসেবে এমনটিই বলেন অরিন্দম শিলী। 

অরিন্দম শীলের প্রথম ছবি আবর্ততে অভিনয় করেছেন জয়া। কলকাতায় জয়ারও প্রথম ছবি আবর্ত। ত্রৈলোক্য”র জন্য ছয় মাসেরও বেশি সময় গবেষণা করেছেন অরিন্দম। এমন শক্তিশালী চরিত্রের জন্য জয়ার নামই মাথায় এসেছে বারবার। জানান অরিন্দম শীল। 

মন্তব্য


অন্যান্য