সিলেট

সুনামগঞ্জে চামড়া কেউ পুঁতে ফেললেন, কেউবা দিলেন পানিতে ভাসিয়ে

প্রকাশ : ১৪ আগষ্ট ২০১৯ | আপডেট : ১৪ আগষ্ট ২০১৯

সুনামগঞ্জে চামড়া কেউ পুঁতে ফেললেন, কেউবা দিলেন পানিতে ভাসিয়ে

চামড়া পোঁতার জন্য গর্ত খোঁড়া হচ্ছে -সমকাল

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

নায্য মূল্য না পেয়ে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের সৈয়দপুর গ্রামে কোরবানির পশুর ৯০০ চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে মূল্য না পেয়ে অনেকইে পানিতে ভাসিয়ে দিয়েছেন চামড়া।

মঙ্গলবার জগন্নাথপুরের সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর হোসাইনিয়া হাফিজিয়া আরাবিয়া দারুল হাদিস মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে এসব চামড়া পুঁতে রাখে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয়রা জানায়, প্রতি বছরের মতো এবারও সৈয়দপুর হোসাইনিয়া হাফিজিয়া আরাবিয়া দারুল হাদিস মাদরাসার পক্ষে থেকে কোরবানির পশুর চামড়া সংগ্রহ করা হয়। কোরবানিদাতারা মাদ্রসার উন্নয়ন তহবিলে চামড়াগুলো দান করেন। কিন্তু মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষে চামড়া বিক্রয়ের জন্য দিনভর অপেক্ষা করেও বিক্রি করতে পারেনি। পরে ক্ষোভে মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার দিকে এসব চামড়া মাদ্রাসার নিকটস্থ এলাকার মাটিতেই পুঁতে ফেলা হয়।

মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রতি বছরের মতো এবারও মাদ্রাসার পক্ষ থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কোরবানি দাতাদের কাছ থেকে ৯০০ চামড়া সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে গরুর চামড়া রয়েছে ৮০০ ও ছাগলের ১০০টি। কিন্তু এসব চামড়া কিনতে আসেনি কেউ। বাধ্য হয়ে চামড়াগুলো মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়েছে। চামড়াগুলো সংগ্রহে এবং চামড়ায় লবণ ব্যবহারে ৫০ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছে।

এছাড়া সুনামগঞ্জের শহরের হাছনগর মাদ্রাসায় একইভাবে ২০০ কোরবানির পশুর চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়। 

মন্তব্য


অন্যান্য