সিলেট

হবিগঞ্জে কিশোরীকে গণধর্ষণের পর হত্যা, ৪ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৯

হবিগঞ্জে কিশোরীকে গণধর্ষণের পর হত্যা, ৪ জনের যাবজ্জীবন

প্রতীকী ছবি

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ফাতেমা বেগম (১৫) নামে এক কিশোরীকে গণধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চার আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার বিকেল পাঁচটায় হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ হালিম উদ্দিন চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- একই গ্রামের নুর মিয়ার ছেলে মন্নাফ মিয়া, রজব আলীর ছেলে বাবুল মিয়া, মখলিছ মিয়ার ছেলে সাইফুল মিয়া ও আনমন গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে রাজু মিয়া। এছাড়াও এ ঘটনায় দুই জনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

আদালতের বরাত দিয়ে কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. আল আমিন হোসেন সমকালকে জানান, ২০০২ সালের ২০ আগস্ট আসামীরা কৌশলে উপজেলার হরিপুর গ্রামের আরব আলীর মেয়ে ফাতেমা বেগমকে রাতের বেলায় নৌকায় করে ঘুরতে নিয়ে যায়। এসময় তারা তাকে গণধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে। ঘটনার পরদিন নিহতের বোন রোখশানা আক্তার বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি মমালা করেন। পরে মামলাটি দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০০৩ সালের ১৯ জুন ৬ জনকেই আসামী করে আদালতে চার্জশীট প্রদান করা হয়। এরই প্রেক্ষিতে আদালতে সকল স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সোমবার রায় ঘোষণা করা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি আবু হাশিম মোল্লা মাসুম জানান, এ রায়ে বাদী ও তার পরিবারের লোকজন সস্তুষ্ট। দীর্ঘদিন পর হলেও রায় হওয়ায় তারা খুশি।

মন্তব্য


অন্যান্য