খেলা

জিম্বাবুয়ের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০১৮

জিম্বাবুয়ের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

বাংলাদেশকে প্রথম টেস্টে হারানোর পর জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটারদের উচ্ছ্বাস; ছবি: ইউসুফ আলী

  অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির এলাকা সিলেটে বৃষ্টির দিন শেষ। চায়ের শহরে চা পাতার রঙ মরেছে। সবুজে ঘেরা সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সবুজও কমেছে কিছুটা। কিন্তু সিলেটের দর্শকদের প্রাণে ছিল সবুজের ঢেউ। অভিষেক টেস্ট হচ্ছে সিলেটে সেই উন্মাদনা ছিল তাদের মধ্যে। কিন্তু অভিষেক টেস্টে হার দেখলো সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে হেরেছে ১৫১ রানের বড় ব্যবধানে।

বাংলাদেশ তাদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৪৩ রানে অলআউট হয়ে যায়। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে তারা করতে পারে ১৬৯ রান। এ নিয়ে টেস্টের সর্বশেষ আট ইনিংসে ২০০ রান করতে পারেনি বাংলাদেশ। টেস্টের চিরচেনা সেই ব্যাটিং ব্যর্থতার কারণে ঘরের মাঠে নিজেদের তৈরি করা স্পিন ফাঁদে পা দিয়ে আটকে গেলো বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজে সাকিব-তামিমের অভাব দেখা না দিলেও টেস্ট এসে অভিজ্ঞতায় টান পড়লো। দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান এবং সাকিবের বাঁ-হাতের ঘূর্ণি মিস করলো বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়ে তাদের প্রথম ইনিংসে ২৮২ রানের ভালো সংগ্রহ পায়। ওই ইনিংসে শেন উইলিয়ামস করেন ৮৮ রান। পিটার মুরের ৬৩ এবং অধিনায়ক মাসাকাদজার ৫২ রানে ভালো সংগ্রহ পায় সফরকারীরা। বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস ১৪৩ রানে থাকলে ১৩৯ রানের লিড পায় তারা। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে জিম্বাবুয়ে করে ১৮১ রান। দুই ইনিংস মিলিয়ে লিড পায় ৩২১ রানের। ওই রান তুলতে বাংলাদেশের হাতে ছিল দুই দিন। কিন্তু বাংলাদেশ চতুর্থ দিনের দুটি সেশনই পার করতে পারলো না। মাঠ ছাড়লো ১৫১ রানে হেরে।

বাংলাদেশ দলের হয়ে দুই ইনিংসে মিলিয়ে সর্বোচ্চ রান অভিষেক হওয়া আরিফুল হকের। প্রথম ইনিংসে ৪১ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি করেন ৩৮ রান। বাংলাদেশের ইনিংসে নেই কোন অর্ধশতক। এই টেস্টে বাংলাদেশের একমাত্র পাওয়া সম্ভবত টেস্টে তাইজুলের প্রথম ১০ উইকেট পাওয়া। দুই ইনিংসে তিনি নিয়েছেন ১১ উইকেট। জিম্বাবুয়ের হয়ে দুই ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়েছেন সিকান্দার রাজা। আগামী ১১ নভেম্বর ঢাকায় সিরেজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে। 

মন্তব্য


অন্যান্য