সম্পর্ক

বসের খারাপ আচরণ সহকর্মীকে প্রভাবিত করে যেভাবে

প্রকাশ : ০৪ মে ২০১৯ | আপডেট : ০৪ মে ২০১৯

বসের খারাপ আচরণ সহকর্মীকে প্রভাবিত করে যেভাবে

  অনলাইন ডেস্ক

উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বেশিরভাগ সময়ই কর্মীদের একটা ভালোবাসা-তিক্ততা ধরনের সম্পর্ক থাকে। বস যদি বদরাগী হন কিংবা তার ব্যবহার যদি খারাপ হয় তাহলে অফিসের প্রতিটি দিনই সহকর্মীর জন্য বিষাক্ত হয়ে ওঠে। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় অফিসের সহকর্মীদের সঙ্গে বসের আচরণ প্রসঙ্গে চমকপ্রদ এক তথ্য পাওয়া গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পোর্টল্যাণ্ড স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা বলছেন, বসের নেতিবাচক আচরণ কর্মীর দক্ষতার উপর দারুণভাবে প্রভাব ফেলে। এতে একজন কর্মী তার কাজটা সঠিকভাবে করতে পারেন না। 

গবেষকরা এরই মধ্যে এই বিষয়টি নিয়ে ৪২৭ টি সমীক্ষা চালিয়েছেন। সম্প্রতি ওই গবেষণাপত্রটি ‘জার্নাল অব ম্যানেজম্যান্টে’ এ প্রকাশিত হয়েছে। কাজের পরিবেশ কিভাবে উন্নত করা যায় সে বিষয়েও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে ওই গবেষণাপত্রে।  

গবেষকরা বলছেন, সহকর্মীদের সঙ্গে বসের খারাপ আচরণ সহকর্মীর কর্মদক্ষতা ক্ষতিগ্রস্ত করে। এতে সে তার সর্বোচ্চ কাজটা দিতে পারে না। একজন অসুখী ও অসন্তুষ্ট কর্মী কখনই উৎপাদনশীল হয় না। তার মধ্যে ‘কাউন্টারপ্রডাকটিভ ওয়ার্ক বিহেভিয়ার’ প্রবণতা বৃদ্ধি হয়। এর অর্থ হলো অফিসে দেরী করে আসা, কাজের মধ্যে ঘন ঘন বিরতি নেয়া , কাজগুলো ভুলভাবে করা ,দায়সারাভাবে কাজ করা ইত্যাদি প্রবণতা দেখা দেয়। 

গবেষকরা বলছেন, যেসব কর্মী বসের খারাপ আচরণের কারণে মানসিক চাপের মধ্যে থাকেন তারা অন্য সহকর্মীদের সাহায্য করতে চান না, মিটিং থাকলেও তাতে উপস্থিত থাকার প্রতি তাদের অনীহ দেখা দেয়। 

গবেষকদের মতে, কাজের পরিবেশ উন্নত করতে বসদের আলাদা প্রশিক্ষণ বিশেষ করে সহকর্মীদের সঙ্গে আচরণের জন্য ম্যানেজমেন্ট স্কিলের উপর জোর দেওয়া উচিত। এছাড়া কর্মীদেরও মানসিক চাপ ম্যানেজেন্টর উপর আলাদা প্রশিক্ষণ দেওয়া প্রয়োজন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

 

মন্তব্য


অন্যান্য