রংপুর

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে চীনা শ্রমিক নিহত

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০১৮

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে চীনা শ্রমিক নিহত

  পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে কয়লা চাপা পড়ে এক চীনা শ্রমিক নিহত হয়েছেন।  এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন এক বাংলাদেশি শ্রমিক। 

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে খনির উপরিভাগে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত চীনা শ্রমিকের নাম সানজিং সেং।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির জনসংযোগ কর্মকর্তা ও উপ-মহাব্যবস্থাপক একেএম বদরুল আলম বলেন, কয়লা খনির ভূ-গর্ভ থেকে কয়লা বেল্টের মাধ্যমে ভূ-পৃষ্ঠে আসছিল। এ সময় ভূ-পৃষ্ঠের উপরে সার্ফেস হপারে কয়লা পরিবহন বেল্টে পাথর ও কাদামাটি জমাট বেঁধে ছিল। ওই সব পাথর ও কাদামাটি অপসারণ করতে গিয়ে চীনা শ্রমিক সানজিং সেন ও বাংলাদেশি শ্রমিক রেজাউল ইসলাম কয়লায় চাপা পড়েন। 

চীনা শ্রমিককে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সকাল ৭টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। অপর বাংলাদেশি শ্রমিককে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে খনি চিকিৎসা কেন্দ্রে। রেজাউল ইসলামের বাড়ি খনি সংলগ্ন কালু পাড়া গ্রামে। তার পিতার নাম মনছুর রহমান। 

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি সিরাজুল হক দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হবে।

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

বাসচাপায় প্রাণ গেল তিন ভাই-বোনের


আরও খবর

রংপুর

  রংপুর অফিস

রংপুরে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী তিন ভাই-বোনের। 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পীরগঞ্জ উপজেলার বিশ মাইল নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার শানেরহাট ইউনিয়নের হরিরাম সাহাপুর গ্রামের মোজাম্মেল মুন্সীর ছেলে শাহীনুর রহমান (২৫), আজগার আলীর ছেলে মশফিকুর রহমান (১৮) ও আব্দুল কাইয়ুমের মেয়ে রুমী বেগম (২৩)। নিহতরা সম্পর্কে মামাতো-ফুফাতো ভাইবোন।

বড়দরগাহ হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, তারা তিনজন একই মোটরসাইকেলে শঠিবাড়ী হাটে যাচ্ছিল। পথে বিশমাইল এলাকায় এলে রংপুর থেকে ঢাকাগামী হানিফ এন্টারপ্রাইজের একটি বাস মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিন ভাই-বোনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে বড় দরগা হাইওয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

দুর্ঘটনার খবরে উত্তেজিত এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। ওই সময় শত শত যানবাহন মহাসড়কে আটকা পড়ে। প্রায় ১ ঘণ্টা সড়ক অবরোধের পর প্রশাসনের হস্তক্ষেপে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার টিএমএ মমিন বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক বাসটি আটক করেছে। তবে চালক ও তার সহযোগী পালিয়ে গেছে। স্থানীয়রা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়ায় যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

বিতর্ক এড়াতে সতর্ক থাকতে বললেন ইসি সচিব


আরও খবর

রংপুর

গাইবান্ধা-৩ নির্বাচন

বিতর্ক এড়াতে সতর্ক থাকতে বললেন ইসি সচিব

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০১৯

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ- ফাইল ছবি

  গাইবান্ধা প্রতিনিধি

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুন্দর এবং ভালোভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ায় দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। 

তাই স্থগিত গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের ২৭ জানুয়ারির নির্বাচন যাতে কোনোভাবেই বিতর্কিত না হয় সে ব্যাপারে সংশ্নিষ্ট সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। মনে রাখতে হবে, কারও ভুলের কারণে যেন কোনো বিতর্ক সৃষ্টি না হয়।

বৃহস্পতিবার গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে নির্বাচন উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

ইসি সচিব আরও বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানে সবাইকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের আয়োজনে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক আবদুল মতিনের সভাপতিত্বে সভায় রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জয়নুল বারী, রংপুর রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য, জেলা ও সংশ্নিষ্ট দুই উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, নির্বাচন সম্পর্কিত কর্মকর্তা ও বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

৬ মাসের মধ্যে বাণিজ্য খাতের উন্নয়ন দৃশ্যমান হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী


আরও খবর

রংপুর

ফাইল ছবি

  রংপুর অফিস

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আগামী ছয় মাসের মধ্যে দেশে বাণিজ্য খাতের উন্নয়ন দৃশ্যমান হবে। শিল্প-কলকারখানা স্থাপনের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে রংপুর অঞ্চলসহ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন আরও ত্বরান্বিত করা হবে। 

বুধবার রাতে রংপুর প্রেস ক্লাব আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছেন, রংপুর অঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কাজ করতে। প্রধানমন্ত্রী এ অঞ্চলের উৎপাদিত কৃষিপণ্য নিয়ে কৃষিভিত্তিক কলকারখানা স্থাপন করার নির্দেশ দিয়েছেন। আমি সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভের পর মন্ত্রিত্ব পেয়েই নিজ নির্বাচনী এলাকা পীরগাছা-কাউনিয়ায় আসেন বাণিজ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার সারাদিন নিজ এলাকা পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী, ইটাকুমারী, ছাওলা, কৈকুড়ি, কান্দি, পারুল ও তাম্বুলপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। 

এ সময় রংপুর অঞ্চলের উন্নয়নে জনগণের পক্ষে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে টিপু মুনশি বলেন, বাণিজ্যের ক্ষেত্রে শুধু ভারতই নয়, ভুটান ও নেপালেরও স্থলপথ রয়েছে। এ ছাড়া ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল সেভেন সিস্টারস বলে অঞ্চলটি আমাদের জন্য বাণিজ্যের উর্বর জায়গা। এরই মধ্যে আমাদের দেশে উৎপাদিত সিমেন্ট ও গ্লাস সেখানে রফতানি হচ্ছে। উত্তরবঙ্গের স্থলবন্দরগুলো ব্যবহার করে শুধুমাত্র রফতানি নয়, শিল্প উৎপাদনের কাঁচামাল আমদানি করার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এ বিষয়ে ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতীয় ব্যবসায়ীদের নিয়ে একটি দ্বিপক্ষীয় আলোচনা করা হবে। এরই মধ্যে ভারতীয় ব্যবসায়ীরা একটি চিঠিও আমাকে দিয়েছেন।

এর আগে টিপু মুনশি রংপুর নগরীতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। এরপর জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে পৃথক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন। রাতে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।