রাজশাহী

সেই সাব-রেজিস্ট্রারকে সাময়িক বরখাস্তের সুপারিশ

প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সেই সাব-রেজিস্ট্রারকে সাময়িক বরখাস্তের সুপারিশ

সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস

  সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের আলোচিত সেই উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্তের (সাসপেন্ড) সুপারিশ করা হয়েছে। অন্যরা হলেন- ওই অফিসের মহরার আবদুস সালাম, নকলনবিশ সুমন আহম্মেদ ও দৈনিক মজুরি চুক্তির উমেদার (অফিস সহায়ক) আনিছুর রহমান।

জমিদাতা ও দলিল গ্রহীতাদের সমস্যায় ফেলে অবাধে ঘুষ-বাণিজ্য, দালাল চক্রের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধিতে সহায়তা, জমির প্রকৃত মূল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি, অসাধু দলিল লেখকের সঙ্গে ঘুষের টাকা ভাগবাটোয়ারা, ঊর্ধ্বতনদের অনুমতি ছাড়া দলিল সম্পাদন বন্ধ রেখে সরকারি অফিসে সংবাদ সম্মেলন ও সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। তদন্তে এসব অভিযোগের সত্যতা ও প্রমাণ মেলায় সাময়িক বরখাস্তসহ তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তির সুপারিশ করা হয়েছে। 

ঘুষের টাকা গুনে গুনে নেওয়ার ভিডিওচিত্র ভাইরাল, ভুক্তভোগীর লিখিত অভিযোগ এবং গণমাধ্যমে এসবের সংবাদ দেখে জেলা রেজিস্ট্রার গত ২৮ আগস্ট এর তদন্ত শুরু করেন। গত আট কর্মদিবসের তদন্তে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ কর্মচারীরা অভিযুক্ত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে জেলা রেজিস্ট্রার এ ধরনের সুপারিশ করেন। সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন রোববার ঢাকার রাজধানীতে ইন্সপেক্টর জেনারেল অব রেজিস্ট্রার (আইজিআর) কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম মো. মঞ্জুরুল ইসলাম তদন্ত প্রতিবেদন পাঠানোর বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ চারজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণে আইজিআর কার্যালয়ে প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়েছে। আইজিআর কার্যালয়ে সোমবার (আজ) সশরীরে আমাকেও হাজির হতে বলা হয়েছে। হয়তো চূড়ান্ত কোনো নির্দেশনাও দেওয়া হতে পারে।

এদিকে, তদন্ত প্রতিবেদন আইজিআর কার্যালয়ে প্রেরণের গোপন খবর পেয়ে সাময়িক বরখাস্তসহ বিভাগীয় শাস্তি ঠেকাতে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস কৌশলে ছুটির জন্য দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন বলে জানা গেছে। গত ১৫ আগস্ট ঘুষ গ্রহণের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় সমকালসহ গণমাধ্যমে সংবাদ হয়। এতে ভীষণ ক্ষুব্ধ হয়ে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস গত ১ সেপ্টেম্বর অফিস সময়ে ঊর্ধ্বতনদের অনুমতি ছাড়াই নিজ অফিসে সংবাদ সম্মেলনও করেন।

শাহজাদপুরে মানববন্ধন ও সমাবেশ: শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসের অপসারণ ও শাস্তির দাবিতে শাহজাদপুরবাসীর ব্যানারে রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে দলিল লেখক শিমুল মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যন ও দলিল লেখক সমিতির সাবেক সভাপতি মহির, শাহজাদপুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল হাসান প্রমুখ। বক্তারা বলেন, সাব-রেজিস্ট্রারের ঘুষ লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল হয়ে দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। তারপরও অদৃশ্য শক্তির বলে তিনি প্রায় দুই সপ্তাহ স্বপদে বহাল রয়েছেন। তারা সুব্রত কুমার দাসের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে শাহজাদপুর সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাশ বলেন, এ অফিস থেকে অবৈধ সুবিধাবঞ্চিত কিছু দলিল লেখক আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য এ মানববন্ধনে ইন্ধন দিয়েছে।

মন্তব্য


অন্যান্য