প্রবাস

লন্ডনে ছান্দসিক সম্মাননা পেলেন আবৃত্তিশিল্পী উদয় শঙ্কর দাশ

প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

লন্ডনে ছান্দসিক সম্মাননা পেলেন আবৃত্তিশিল্পী উদয় শঙ্কর দাশ

সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন উদয় শঙ্কর দাশ। ছবি: সমকাল

  সৈয়দ আনাস পাশা, লন্ডন

আবৃত্তিতে বিশেষ অবদানের জন্য 'ছান্দসিক সম্মাননা-২০১৯' এ ভূষিত হয়েছেন বিলেতের খ্যাতিমান আবৃত্তিকার, সাংবাদিক ও কলামিস্ট উদয় শঙ্কর দাশ। রোববার পূর্ব লন্ডনের ব্রাডি আর্টস সেন্টারে আবৃত্তি সংগঠন 'ছান্দসিক'-এর উদ্যোগে তাকে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

'ছন্দপ্রভা ছড়িয়ে পড়ুক বিশ্বপ্রাণে' শ্লোগানে প্রথমবারের মতো এ আন্তর্জাতিক আবৃত্তি উৎসবের আয়োজন করা হয়। এ উপলক্ষে ব্রাডি সেন্টারে বসেছিলো কবিতাপ্রেমীদের মিলনমেলা। উদয় শঙ্কর দাশসহ বাংলাদেশ, কলকাতা, আমেরিকা ও ব্রিটেনের খ্যাতিমান আবৃত্তিকাররা তাদের কণ্ঠের জাদুতে উৎসবের পুরো সময়টা মাতিয়ে রাখেন। 

বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে রয়েছেন। সেখান থেকেই অনলাইনে উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন তিনি। বিলেতে মুক্তিযুদ্ধের প্রবীন সংগঠক সুলতান শরীফ ও ছান্দসিক আবৃত্তি উৎসবের আহ্বায়ক মুনিরা পারভিনসহ অতিথিরা প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে সূচনা করেন আবৃত্তি উৎসবের। 

উৎসবে বাংলাদেশের কবি মোস্তফা মীরের আঞ্চলিক কবিতা 'বেদনার পদাবলী' ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বগিরথ মিশ্রের আঞ্চলিক কবিতা 'ওল বাবু' এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের 'কৃষ্ণকলি' ইংরেজী অনুবাদসহ আবৃত্তি করেন উদয় শঙ্কর দাশ।

সম্মাননাপ্রাপ্তির প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি সমকালকে বলেন, এই সম্মাননা শুধু আমার নয়, বিলেতের সব আবৃত্তি শিল্পীই এর অংশীদার। বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতিকে এই জনপদের মূলধারায় পরিচিত করতে আমাদের সবারই ভূমিকা রয়েছে। আজকের এই সম্মাননা আমি সবার সঙ্গে ভাগ করে নিচ্ছি। সাংস্কৃতিক অঙ্গনের দীর্ঘ এই পথচলায় সহযোগিতার জন্য বিলেতের সংস্কৃতিকর্মী, সাহিত্যিক, সাংবাদিকসহ কমিউনিটির সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

উদয় শঙ্কর দাশ বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিস রেডিওর বাংলা বিভাগে কাজ করেন। করছেন ক্রীড়া সাংবাদিকতাও। তিনি প্রবাসে চার দশক ধরে বাংলা নাটক আয়োজনে ও অভিনয়ে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন।বাংলা ও ইংরেজিতে লেখা তার কলাম বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন অনলাইন ও দৈনিক পত্রিকায় নিয়মিত প্রকাশিত হয়।

মন্তব্য


অন্যান্য