প্রবাস

নানা আয়োজনে কানাডার ১৫২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত

প্রকাশ : ০২ জুলাই ২০১৯ | আপডেট : ০২ জুলাই ২০১৯

নানা আয়োজনে কানাডার ১৫২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত

  আহসান রাজীব বুলবুল, কানাডা প্রতিনিধি

বিপুল উৎসহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে ১৫২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করল উত্তর আমেরিকার দেশ কানাডা। 

বছরের বেশির ভাগসময় বরফাচ্ছন্ন এই দেশের জন্মদিনে পহেলা জুলাই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গ যোগ দিয়েছিলেন প্রবাসী বাঙ্গালীরাও।

এ উপলক্ষে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাষ্টিন ট্যুডো এবং আলবার্টা  প্রিমিয়ার জেসন কেনী পৃথক পৃথক শুভেচ্ছা বাণী দিয়েছেন।

স্থানীয় জেনেসিস সেন্টার প্রেইরি উন্ডসপার্ক, রকিভিউ এলাইন্স, ডাউন টাউনসহ ক্যালগ্যারির প্রায় প্রতিটি স্থানেই ছিলো উপচে পড়া ভিড়।

জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে মূল অনুষ্টান শুরু হয়। এর পর কানাডার জন্মদিনের কেককাটা ছোটছোট শিশু-কিশোরদের ফেসপিন্টর, জর্লি জার্ম্পসহ বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা এবং কানাডার আদিবাসীদের শারীরিক কসরত ছাড়াও আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

ক্যালগেরির এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট এবং বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ড. মো. বাতেন বলেন, দূর প্রবাসে থাকলেও মাতৃভূমি আমাদের হৃদয়ে, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা আমাদের আশার আলো দেখায়। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের   অন্যতম রোল মডেল দেশ। কানাডার জন্মদিনে আমাদের প্রত্যাশা প্রচুর সংখ্যক বাঙ্গালিরা এদেশে আসুক, জ্ঞানার্জন এবং বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখুক।

বেঙ্গল ফার্মেসি ও কমিউনিটি আর এক্স বাংলাদেশি ফার্মেসি গ্রুপের চেয়ারম্যান ও স্বত্তাধিকারী ড, ইব্রাহিম খান বলেন,  বিশ্ববাসী আজ বাংলাদেশ নিয়ে ভাবছে। আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধিতে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। প্রবাসী হয়েও আমরা বাংলাদেশ কে নিয়ে  গর্ব করি, অহংকার করি। বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ ও কানাডার দুদেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে- কানাডার ১৫২তম জন্মবার্ষিকীতে এটাই আমার প্রত্যাশা।

ক্যালগেরির ফ্যামেলি ফিজিশিয়ান ডা. মো. জাকির হোসেন বলেন, আমরা আনন্দিত যে কানাডায় বসে এর জন্মদিনে অংশগ্রহণ করতে পারছি। শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে আরো আরো প্রচুর সংথ্যক বাংলাদেশিরা এদেশে এসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করুক এমনটাই কামনা করছি।ৱ

আইসিডিসি এর পরিচালক এ্যান্থনি জ্যাকব বলেন, বাংলাদেশ যেমন আমাদের অহংকার পাশাপাশি কানাডাও আমাদের কাছে অহংকার, কানাডার জন্মদিনে অনেক অনেক শুভেচ্ছা। আমাদের ভুলে গেলে চলবে না, বাংলাদেশকে যে কটি দেশ স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিল কানাডা তাদের মধ্যে অন্যতম দেশ।

ইউটার্ন প্রজেক্টের ফাউন্ডার জয়ন্ত চৌধুরী বলেন, আমরা যারা অভিবাসী হয়ে এদেশে আসি সবারই হৃদয় পড়ে থাকে নিজ দেশে। দেশের উন্নয়ন আমাদের গর্বিত করে,বিশ্বের কাছে নিজেদের ভাবর্মর্তি উজ্জল করে। কানাডার ১৫২তম জন্মবার্ষিকীতে অফুরন্ত ভালবাসা। দীর্ঘজীবী হোক কানাডা।

ক্যালগেরির ফ্যামিলি ফিজিশিয়ান ডা. জাকি আজম শিকদার বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধিতে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল। কানাডার জাতীয় দিবসে অনেক আনন্দ করছি। দুইদেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় হোক এটাই আমার প্রত্যাশা।

বালাদেশ কানাডা এসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সভাপতি  কাজী এহসান বলেন, আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত যে বাংলাদেশ আজ অনেক দূরে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রতিযোগীতা করছে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে।

বালাদেশ কানাডা এসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সাধারণ সম্পাদক মো. রশিদ রিপন বলেন, কানাডার ১৫২ তম জন্মবার্ষিকীতে এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে আমাদের প্রাণঢালা অভিনন্দন। বাংলাদেশ ও কানাডার মধ্যে সম্পর্ক আরো  সুদৃঢ় হোক এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

মন্তব্য


অন্যান্য