প্রবাস

নিউ ইয়র্কে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত

প্রকাশ : ২৪ মে ২০১৯ | আপডেট : ২৪ মে ২০১৯

নিউ ইয়র্কে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত

আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে আগত অতিথিরা -সমকাল

  নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি

`শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালে ১৭ মে বাংলাদেশের জনগণের জন্য আশীর্বাদ হয়ে দেশে ফিরে এসেছিলেন এবং তার হাত ধরেই আজ বাংলাদেশ বিশ্বের দরবারে আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে।'

নিউ ইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র শেখ কামাল স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন নিউ ইয়র্ক সফররত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের পালকি পার্টি হলে সংগঠনের সভাপতি ডা. মাসিদুল হাসানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ডা. মোহাম্মদ এ সিদ্দিক ও হাজী এনামের যৌথ সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহবুবুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ। 

আবদুস সোবহান গোলাপ বলেন, শেখ হাসিনা ফিরে এসেছিলেন বলেই পার্বত্য চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার করা সম্ভব হয়েছে, যুদ্ধাপরাধের বিচার করা সম্ভব হয়েছে এবং যা এখনও চলছে। 

তিনি বলেন, আপনারা শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন, তিনি যেন দীর্ঘজীবী হন। তিনি বেঁচে থাকলে বাংলাদেশের গরীব দুঃখি মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হবে।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আইরিন পারভিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম বাদশা, চন্দন দত্ত, এম এ সালাম ও দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী।

এ সময় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক সোলায়মান আলী, কার্যনির্বাহী সদস্য আব্দুল হামিদ, জহুর আলী, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন বাবু, পেনসিলভেনিয়ায় স্টেট আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফর রহমান হিমু, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহ্বায়ক তারিকুল হায়দার, জাতীয় শ্রমিক লীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার সভাপতি আজিজুল হক খোকন, যুবলীগ নেতা নান্টু মিয়াসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। 

মন্তব্য


অন্যান্য