প্রবাস

লন্ডনে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ

যুদ্ধাপরাধী পুনর্বাসনকারীদের বয়কটের আহ্বান

প্রকাশ : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

যুদ্ধাপরাধী পুনর্বাসনকারীদের বয়কটের আহ্বান

আলতাব আলী পার্কের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা- সমকাল

  লন্ডন প্রতিনিধি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যুদ্ধাপরাধী পুনর্বাসনকারীদের বয়কট করে একটি রাজাকারমুক্ত সংসদ গঠনের জন্য দেশবাসীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির যুক্তরাজ্য শাখা।

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংগঠনটির উদ্যোগে প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানানো হয়। এতে যোগ দেন ব্রিটেনের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নির্মূল কমিটি যুক্তরাজ্য শাখার সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর নুর উদ্দিন আহমেদ। সাধারণ সম্পাদক জামাল আহমেদ খানের পরিচালনায় বক্তব্য দেন লন্ডন বারা অব টাওয়ার হ্যামলেটসের কাউন্সিলর আহবাব হোসেন ও বার্কিং অ্যান্ড ডেগেনহামের কাউন্সিলর মইন কাদরি, নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় নেতা আনসার আহমেদ উল্লাহ, যুদ্ধাপরাধ বিচার মঞ্চের প্রেসিডেন্ট সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরী, গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র অজয়ন্তা দেব রায়, উদীচীর সভাপতি হারুন রশিদ, যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হোসনা মতিন, মুক্তিযোদ্ধা মিফতা ইসলাম প্রমুখ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকারবিরোধী ঐক্যের নামে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াতকে পুনর্বাসিত করার গভীর ষড়যন্ত্র হচ্ছে উল্লেখ করে এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন বক্তারা।

তারা বলেন, একাত্তরের ঘাতক পুনর্বাসনের যে প্রক্রিয়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান শুরু করে গেছেন, সে প্রক্রিয়া যখন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর দাবিদার ড. কামাল হোসেন অনুসরণ করেন, তখন আমরা উদ্বিগ্ন হই।

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে একাত্তরের ঘাতকদের বিষয়ে প্রশ্ন করায় সাংবাদিকদের সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের অশোভন আচরণের তীব্র নিন্দা জানান তারা।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিকের রাজাকারবিরোধী কণ্ঠ স্তব্ধ করতে চান ড. কামাল। বিষয়টি আমাদের '৭৫-পরবর্তী রাজাকার পুনর্বাসনের কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়।

ড. কামাল হোসেনের নতুন 'জামায়াত পুনর্বাসন' প্রক্রিয়া প্রতিহত করতে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

এ ছাড়া লন্ডনে পালিয়ে থাকা বুদ্ধিজীবী হত্যার অন্যতম হোতা ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত চৌধুরী মইনুদ্দিনকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করতে ব্রিটিশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তারা।


মন্তব্য


অন্যান্য