রাজনীতি

আন্দোলন-নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে অপপ্রচারে বিএনপি: কাদের

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৯

আন্দোলন-নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে অপপ্রচারে বিএনপি: কাদের

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

বিএনপির উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দৃশ্যপট যত দুর্বল হোক, তলে তলে ষড়যন্ত্র বাড়ছে। সরকারকে বিপদে ফেলতে গুজবের ডালপালা বিস্তার করা হচ্ছে। পদ্মা সেতু নিজস্ব অর্থায়নে হচ্ছে, এটা তারা সহ্য করতে পারছে না। তাই তারা বলে 'পদ্মা সেতু করতে লাখো মানুষের মাথা ও রক্তের প্রয়োজন'।

বিএনপির উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, এসব অপপ্রচার- কী নির্মম, নিষ্ঠুর এদের রাজনীতি! আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে এখন শুরু করেছে অপপ্রচার। এ অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সক্রিয় হতে হবে। আজকের এই শান্তিপূর্ণ অবস্থা সব সময় এক থাকবে, এমন মনে করার কিছু নেই। নীরবতার মধ্যে হলি আর্টিসান ঘটবে না- এ কথা মনে করার কিছু নেই। সতর্ক থাকতে হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কর্মিসভায় তিনি এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নেতিবাচক রাজনীতি করে দেউলিয়া হয়ে পড়েছে। এ কারণে জনগণ তাদের কোনো আন্দোলনের ডাকে সাড়া দেয় না। আন্দোলন করতে না পারাটা বিএনপির দুর্বলতা। এখানে আওয়ামী লীগের কিছু করার নেই। বিরোধী দল রাজপথে আন্দোলন করতে ব্যর্থ হলে সরকার সে দায় নিতে পারে না।

'আন্দোলন করে বিএনপি নেত্রীকে কারামুক্ত করা হবে' বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়ার জামিনের ব্যাপার বরাবরই আদালতের বিষয়। খালেদা জিয়াকে আওয়ামী লীগ জেলে বন্দি করেনি। আদালতের আদেশে দুর্নীতির মামলায় তিনি বন্দি হয়েছেন। এটা আইনগত ব্যাপার, আইনি লড়াই করে বিএনপি তাকে বের করে আনতে পারে।

তিনি বলেন, সরকার এখানে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে পারে না। কারণ বিচার বিভাগ স্বাধীন। স্বাধীন বিচারব্যবস্থায় সরকার হস্তক্ষেপ করে না, আজ পর্যন্ত করেনি। এখানে আওয়ামী লীগ-বিএনপির দ্বন্দ্বের কোনো বিষয়ও নেই। বিএনপির যদি এতই সাহস আর সক্ষমতা থাকে তাহলে খালেদা জিয়ার জন্য আন্দোলন করে না কেন? দেখি না, তাদের কতটা হিম্মত আছে, সক্ষমতা আছে।

'বর্তমান সরকারের জনগণের প্রতি দায় নেই'- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের জনগণের প্রতি আওয়ামী লীগেরই দায়বদ্ধতা আছে। আওয়ামী লীগই এ দেশের জনগণের স্বার্থে কাজ করে। 'দেশের কোথাও গণতন্ত্র নেই'- বিএনপি মহাসচিবের এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্রের কোনো সংকট নেই। গণতন্ত্রের যদি সংকট থাকে সেটা আছে বিএনপিতে।

দলের সদস্য করার ক্ষেত্রে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, যাকে-তাকে আওয়ামী লীগের সদস্যপদ দেওয়া যাবে না। দুষ্টু গরু থেকে শূন্য গোয়াল ভালো।

মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে কর্মিসভায় আরও বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, নগর নেতা আবু আহম্মেদ মন্নাফি, আবুল বাশার, কামাল চৌধুরী, কাজী মোর্শেদ কামাল, আকতার হোসেন ও মিরাজ হোসেন।


মন্তব্য


অন্যান্য