রাজনীতি

ডাকসু নির্বাচনে ঢাবির ঐতিহ্য ভূলুণ্ঠিত: খন্দকার মোশাররফ

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৯

ডাকসু নির্বাচনে ঢাবির ঐতিহ্য ভূলুণ্ঠিত: খন্দকার মোশাররফ

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন- ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ভোটের আগের রাতে ব্যালট বাক্স ভরে রাখার যে সংস্কৃতি ক্ষমতাসীনরা গড়ে তুলেছে তা ডাকসুতেও দেখা গেছে। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য সম্পূর্ণ ভূলুণ্ঠিত হয়েছে। ঢাবির গৌরবকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকাস্থ দাউদকান্দি উপজেলা জাতীয়তাবাদী ফোরামের এক স্মরণসভায় খন্দকার মোশাররফ এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ডাকসুতে যারা নির্বাচনে জয়লাভ করেছে তারাও প্রতিবাদ করছে। যাদের ভোট দিতে দেওয়া হয়নি তারাও প্রতিবাদ করছে। সারা বাংলাদেশেই একই অবস্থা। এ থেকে উত্তরণ ঘটাতে হবে। এজন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জনগণকে সঙ্গে নিয়েই আবার গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে।

তিনি বলেন, কিছুদিন আগে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচন হলো। কেন্দ্রে দেখা গেল কর্মকর্তারা ভোটারের অপেক্ষায়, কোনো ভোটার নেই। ভোট দিতে যাওয়া প্রয়োজন মনে করেননি ক্ষুব্ধ ভোটাররা। উপজেলায় প্রথম পর্বের নির্বাচনেও একই অবস্থা। ভোটার নেই। ডাকসু নির্বাচনেও কলঙ্কময় ঘটনা ঘটেছে। ঢাবির সাবেক এই শিক্ষক বলেন, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে '৬৯-এর গণআন্দোলন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ এবং নব্বইয়ে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন এই ডাকসুর অবদান।

আয়োজক সংগঠনের সাবেক সভাপতি শাহজাহান চৌধুরীর স্মরণভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের বর্তমান সভাপতি মিঞা মিজানুর রহমান। আলোচনায় অংশ নেন এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার খন্দকার মারুফ হোসেন, ফোরামের সভাপতি জসিম উদ্দিন আহমেদ, সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া, প্রয়াত শাহজাহান চৌধুরীর ছেলে রোমান চৌধুরী প্রমুখ।

মন্তব্য


অন্যান্য