রাজনীতি

যে কোনও মূল্যে ভূমির দুর্নীতি দূর করা হবে: মন্ত্রী

প্রকাশ : ০৮ জানুয়ারি ২০১৯

যে কোনও মূল্যে ভূমির দুর্নীতি দূর করা হবে: মন্ত্রী

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

যে কোন মূল্যে ভূমির দুর্নীতি দূর করা হবে। ভূমি ব্যবস্থাপনা আধুনিয়কায়নের মাধ্যমে দুর্নীতির পথ-ঘাট বন্ধ করা হবে। এই খাতে মানুষের হয়রানি, ভোগান্তি বন্ধ করা হবে। সাধারণ মানুষকে সহজে উন্নত সেবা দিতে হবে।

দায়িত্ব গ্রহণের পর মঙ্গলবার প্রথম কর্মদিবসে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন নতুন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সসয় বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা- কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন। সচিবের নেতৃত্বে কর্মকর্তা-কর্মচারিরা মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।

নয়া মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া এই গুরুদায়িত্ব সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সঙ্গে পালন করা হবে। ভূমি মন্ত্রণালয়, সংশ্নিষ্ট দফতর, অধিদফতরের দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। তিনি সামগ্রিক ভূমি ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারিদেরকে জনস্বর্থে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে। আর যাদের ভেতরে সমস্যা আছে, যাদের মানসিকতা দুর্নীতি প্রবণ- তাদেরকে মন্ত্রণালয় ছেড়ে চলে যেতে হবে।

তিনি আরো বলেন, টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ের কাজে চমক সৃস্টি করতে হবে। সব মন্ত্রণালয়ের মধ্যে টপটেনে থাকবে ভূমি মন্ত্রণালয়। এ লক্ষে ভূমি ব্যবস্থাপনা ডিজিটাইজড করা, অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষে আগামী দুই বছরের পরিকল্পনা হতে নেওয়া হবে। মাঠ পর্যায়ের ভূমি অফিসগুলোকে অটোমেশনের আওতায় আনা হবে। প্রতিটি অফিসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, মানুষের জীবন ঘনিষ্ঠ অতি গুরুত্বপূর্ণ এই খাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে। এ লক্ষে সংশ্নিষ্ট সকলকে তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালনের নির্দেশ দেন তিনি।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী আরও বলেন, ভূমির সব কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহীতা নিশ্চিৎ করতে হবে। ভূমি সংক্রান্ত সেবা নিতে এসে কোনও মানুষ যাতে হয়রানি, ভোগান্তির শিকার না হন- এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। সব কাজ নিয়ম, নীতি ও আইনী প্রক্রিয়ার মধ্যে হতে হবে।

মন্তব্য


অন্যান্য