ময়মনসিংহ

নিখোঁজের ২৩ দিন পর মিলল মাদ্রাসাছাত্রের অর্ধগলিত লাশ

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ০৬ নভেম্বর ২০১৮

নিখোঁজের ২৩ দিন পর মিলল মাদ্রাসাছাত্রের অর্ধগলিত লাশ

  কিশোরগঞ্জ অফিস

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে নিখোঁজের ২৩ দিন পর মাদ্রাসাছাত্র ওবায়দুল্লাহ মুন্নার (১৫) লাশ পাওয়া গেছে। 

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার সাহেদল ইউনিয়নের দড়িয়াবাজ গ্রামের একটি নালা থেকে তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। মুন্না উপজেলার মধ্য সাহেদল গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয় সাহেদল ডিএস দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল সে।

পরিবারের সদস্যরা জানান, গত ১৫ অক্টোবর বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি মুন্না। আত্মীয়স্বজনের বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও তার সন্ধান মেলেনি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার ভোরে দড়িয়াবাজ গ্রামের জামাল হাজির বাড়ির জঙ্গলের কাছে নালা থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা গিয়ে অর্ধগলিত লাশটি দেখতে পান। খবর পেয়ে হোসেনপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। 

এলাকাবাসীর কাছে অর্ধগলিত লাশ পাওয়ার খবর পেয়ে পাশের গ্রামের নিখোঁজ মুন্নার বাবা-মা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। নিহতের মা মেহেরা খাতুন পরনের গেঞ্জি, প্যান্ট ও কোমরের বেল্ট দেখে লাশটি তদের ছেলে মুন্নার বলে শনাক্ত করেন। এ সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

হোসেনপুর থানার ওসি মো. আবুল হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মুন্নাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মন্তব্য


অন্যান্য