মিউজিক

পরনির্ভরশীল শিল্পীরা টিকে থাকে না: ন্যান্সি

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৯ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৯

পরনির্ভরশীল শিল্পীরা টিকে থাকে না: ন্যান্সি

কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি

  বিনোদন প্রতিবেদক

ন্যান্সি। তারকা কণ্ঠশিল্পী। সম্প্রতি নতুন সঙ্গীতায়োজনে 'বৃষ্টিভেজা রাত' শিরোনামে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। গান ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে-

'বৃষ্টিভেজা রাত' গানটি নতুনভাবে উপস্থাপনের ভাবনা কেন করলেন?

অনেক আগে এই গানে একক কণ্ঠ দিয়েছিলাম। গল্পনির্ভর বর্ষার গানটির কথা অসাধারণ। তাই ভাবলাম নতুন সঙ্গীতায়োজনে শ্রোতাদের কাছে গানটি পরিবেশন করলে মন্দ হয় না। এটি প্রকাশের পর আমার পরিকল্পনাই সত্যি হয়েছে। একক কণ্ঠের পর নতুনভাবে দ্বৈত কণ্ঠের গানটি শুনে অনেকেরই ভালো লেগেছে। মনতোষ মধুরের কণ্ঠ গানে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে। এ ছাড়া অভি আকাশের সুরে মুশফিক লিটু সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে সঙ্গীতায়োজন করেছেন। 

সাম্প্রতিক সময়ে দ্বৈত গানে তরুণ শিল্পীদের প্রাধান্য দিচ্ছেন- কারণ কী?

শ্রুতিমধুর গায়কীর প্রাধান্য আমি সবার আগে দিয়ে থাকি। গায়কী ভালো হলে শিল্পী নবীন না প্রবীণ, তা দেখার কোনো প্রয়োজন পড়ে না। সবসময় চেষ্টা করেছি সবার সঙ্গে গান গাইতে। তাছাড়া তরুণ বা নতুন শিল্পীরা ভালো গাইতে পারেন না- এটা ভাবলে ভুল হবে। নিজেও তো একসময় নতুন ছিলাম। সেই সময় তারকা শিল্পীদের সঙ্গে গান গাওয়ার ইচ্ছা আমারও করত। তাই যেসব সম্ভাবনাময় শিল্পী আমার সঙ্গে গান করতে চান, তাদের নিরাশ করিনি।

আগামীতে তারকা শিল্পীদের সঙ্গে কোনো দ্বৈত গান প্রকাশ পাবে কি? 

কখনোই বলিনি তারকা খ্যাতি পাওয়া বা জনপ্রিয় শিল্পীদের সঙ্গে দ্বৈত গান করব না। কিন্তু এখন প্রতিষ্ঠিত শিল্পীরা একক গানের দিকেই বেশি ঝুঁকছেন। তরুণ মডেল নিয়ে মিউজিক ভিডিও নির্মাণে তাদের আগ্রহ বেশি দেখা যাচ্ছে। দুর্ভাগ্যের বিষয়, প্লেব্যাকেও দেখি গ্রুপিং চলে। বেশিরভাগ সঙ্গীত পরিচালক নিজ নিজ সার্কেলের শিল্পীদের দিয়েই গান তৈরি করছেন। ব্যক্তিগতভাবে কোনো সার্কেল মেনে গান করি না। পরনির্ভরশীল শিল্পীরা টিকে থাকে না। এ কারণেই অনেকদিন কোনো তারকা শিল্পীর সঙ্গে গান বা অ্যালবাম করা হয়নি। 

আজকাল টিভি আয়োজনেও আপনাকে কম দেখা যায়, এর কারণ কী?

টিভি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে হলে যতটা সময় দিতে হয়, ততটা সময় দেওয়া কঠিন। একটি অনুষ্ঠানের পরিবর্তে বেশকিছু নতুন গানে কণ্ঠ দেওয়া যায়। এ জন্য বিশেষ দিবস ছাড়া টিভি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া কমিয়ে দিয়েছি।

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

নতুন কয়েকটি গানের কাজ শেষ করেছি। এগুলো নির্দিষ্ট সময় পরপর প্রকাশ হবে। আর স্টেজ শোও চলছে। কিছুদিনের মধ্যেই দেশের বাইরে যাওয়ার কথা রয়েছে। আশা করছি, ভালো একটি সফর শেষ করে দেশে ফিরতে পারব।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপনাকে সেভাবে পাওয়া যাচ্ছে না কেন?

ফেসবুক ব্যবহার শুরু করেছিলাম আত্মীয়-স্বজন ও কাছের মানুষদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার জন্য। কিন্তু ফেক আইডির জটিলতা ও বিভিন্ন কারণে আমার আইডি বন্ধ করে দিয়েছি। এখন আমার ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের সঙ্গে পেজের মাধ্যমে যোগাযোগ রক্ষা হয়। কিন্তু তারপরও দেখছি সমস্যা রয়েই গেছি। অনেকেই আমার লাইভের ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করে দিচ্ছে। সবাইকে আমার ফেক আইডি সম্পর্কে সাবধান থাকতে বলছি। আমার কোনো ফেসবুক আইডি নেই। এখন শুধু পেজ চালাচ্ছি।

অদূর ভবিষ্যতে আপনার মেয়ের সঙ্গে কোনো দ্বৈত গানে কণ্ঠ দেবেন কি?

কয়েক মাস আগে আমার বড় মেয়ে রোদেলা কণ্ঠশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। পরিবারের উৎসাহে তার একটি গান প্রকাশিত হয়েছে। সঙ্গীতাঙ্গনের অনেক মানুষ সেই গানের প্রশংসাও করেছেন। সামনে তার সঙ্গে নতুন কোনো গানে কণ্ঠ দেব কি-না তা সময় বলে দেবে। মা হিসেবে এতটুকু চাওয়া, রোদেলা নিজের গতিতে চলুক। আমি কোনো চাপ দিতে চাই না। তাকে সহযোগিতা করতে চাই। কোনো কিছু চাপিয়ে দেওয়ায় বিশ্বাসী নই। ও ভালো যে কাজটিই করবে, তার সঙ্গে আমি আছি।

মন্তব্য


অন্যান্য