আইন ও বিচার

পা হারানো রাসেলকে ক্ষতিপূরণ দিতে আবার সময় পেল গ্রিনলাইন

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৯

পা হারানো রাসেলকে ক্ষতিপূরণ দিতে আবার সময় পেল গ্রিনলাইন

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারকে বাকি ৪৫ লাখ টাকা দিতে (কমপক্ষে আংশিক) আগামী ২২ মে পর্যন্ত সময় নির্ধারণ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

গ্রিনলাইন পরিবহনের সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ সময় দেন।

আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খোন্দকার শামসুল হক রেজা ও আইনজীবী উম্মে কুলসুম স্মৃতি। গ্রিনলাইনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী অজি উল্লাহ।

এর আগে ১০ এপ্রিল রাসেল সরকারকে পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করে গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ। ওইদিন বাকি ৪৫ লাখ টাকা দিতে গ্রিনলাইনকে এক মাস সময় দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

বুধবার গ্রিনলাইনের পক্ষে আবার সময় আবেদন করা হয়। এ সময় আদালত গ্রিনলাইনের আইনজীবী অজি উল্লাহকে উদ্দেশ করে বলেন, টাকা দিয়েছেন? জবাবে অজি উল্লাহ বলেন, চিকিৎসার জন্য খরচ দিচ্ছি। আদালত বলেন, বাকি টাকা (৪৫ লাখ) দিয়েছেন? কথা ছিল এক মাসের মধ্যে বাকি টাকা দেবেন। টাকা তো দেননি। আর চিকিৎসার খরচ তো আলাদা দেওয়ার নির্দেশনা ছিল। টাকা দেননি কেন? এ সময় অজি উল্লাহ বলেন, সময় চেয়েছি। আদালত বলেন, একবার তো সময় দিলাম। কোনো টাকা না দিয়েই আবার সময় চাইলেন। আপনাদের (গ্রিনলাইন) কি ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে? আমরা কি রিসিভার নিয়োগ দিয়ে দেব? একেবারে খালি হাতে চলে এলেন। এটা কি করে হয়! সামনে আদালতের অবকাশ আছে। তার আগে আদেশ প্রতিপালন করবেন। এ পর্যায়ে ২২ মে পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত।

গত বছরের ২৮ এপ্রিল মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে কথা কাটাকাটির জেরে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারের ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে দেন। এতে ঘটনাস্থলেই রাসেলের বাঁ পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

এ ঘটনায় হাইকোর্টে রিট আবেদনটি দায়ের করেন আইনজীবী উম্মে কুলসুম স্মৃতি। গত ৩১ মার্চ পা হারানো রাসেলকে তিন দিনের মধ্যে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।


মন্তব্য


অন্যান্য