খুলনা

খোকসায় পোশাকশ্রমিকের মৃত্যু, স্বামীর নির্যাতনের অভিযোগ

প্রকাশ : ০৬ জুন ২০১৯ | আপডেট : ০৬ জুন ২০১৯

খোকসায় পোশাকশ্রমিকের মৃত্যু, স্বামীর নির্যাতনের অভিযোগ

সুমি খাতুন

  খোকসা (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার খোকসায় স্বামীর নির্যাতনে সুমি খাতুন (২৪) নামে এক পোশাকশ্রমিকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার সন্তোষপুরে গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে সুমির মৃত্যু হয়। ঘটনার পর স্ত্রীর লাশ হাসপাতালে রেখে আটমাসের শিশুপুত্রকে নিয়ে পালিয়ে গেছেন সুমির স্বামী শিপন হোসেন।

তবে পুলিশ বলছে, সুরতহাল রিপোর্টে সুমির আত্মহত্যার আলামত পাওয়া গেছে।  

সুমির স্বজনদের অভিযোগ, সুমি খাতুন বছর দেড়েক আগে সন্তানসম্ভাবা হওয়ার পর শ্বশুরবাড়ি উপজেলার সন্তোষপুরে গ্রামে এসে থাকতে শুরু করেন। এরপর থেকে তার ওপর শ্বশুর-শ্বাশুড়ি নির্যাতন চালাতে থাকে। নির্যাতন সইতে না পেরে সন্তান জন্মের কয়েক মাস পর তাকে নিয়ে সুমি একই গ্রামে বাবার বাড়িতে চলে যান। ঈদের তিন দিন আগে স্বামী শিপন বাড়ি ফিরলে আবারও শ্বশুর বাড়িতে আসেন সুমি। বৃহস্পতিবার সকালে শিপনের নির্যাতনে সুমি অচেতন হয়ে পড়েন। শিপন তাকে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন। তখন হাসপাতাল থেকে শিশুপুত্রকে নিয়ে পালিয়ে যান শিপন।

সুমির বাবা শরিফুল ইসলাম বলেন, বিয়ের পর মেয়ে রোজগার করে শ্বশুরবাড়িতে টাকা পাঠাতো। তখন তাদের সংসার ভালোই চলছিল। কিন্তু সুমি সন্তানসম্ভাবা হয়ে পড়লে চাকরি ছেড়ে গ্রামে ফিরে আসে। এরপর তার ওপর শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামীর নির্যাতন শুরু হয়। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার স্বামীর নির্যাতনেই সুমির মৃত্যু হয়। 

স্থানীয় প্রভাবশালীরা মামলা না করার জন্য চাপ দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

এদিকে সুমির শ্বশুর ইসলাম প্রামানিক দাবি করেন, সকালে ছেলের কাছে শোনেন, সুমি ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরে তারা সুমিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। 

খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সুদিপ কুমার দে বলেন, সুমিকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। 

উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা জানান, সুমির আটমাস বয়সের শিশুটির ভবিষ্যতের কথা ভেবে তারা আপসের চেষ্টা করেছিলেন। 

খোকসা থানার এসআই প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। সুরতহাল রিপোর্টে সুমি ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার আলামত পাওয়া গেছে। 

মন্তব্য


অন্যান্য