আন্তর্জাতিক

‘মানবাধিকারের প্রয়োজন নেই, আমরা ঋষি-মুনিদের সন্তান’

প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০১৯ | আপডেট : ২০ জুলাই ২০১৯

‘মানবাধিকারের প্রয়োজন নেই, আমরা ঋষি-মুনিদের সন্তান’

সত্যপাল সিং

  অনলাইন ডেস্ক

চার্লস ডারইউনের তত্ত্ব অনুযায়ী, মানুষের পূর্বপুরুষ ছিল বানর। কিন্তু ভারতের উত্তপ্রদেশের লোকসভা সদস্য ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যপাল সিং এমন তত্ত্ব মানতে রাজি নন। তার ভাষায়, ভারতীয়রা আসলে ঋষি–মুনিদের সন্তান। বানর কখনোই তাদের পূর্বপুরুষ ছিল না।

শুক্রবার মানবাধিকার আইনসংক্রান্ত একটি বিল পাসের আলোচনায় সময় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

সত্যপাল সিং বলেন, ‘ভারতীয় সংস্কৃতি কখনোই মানবাধিকারকে গুরুত্ব দেয় না। এখানে মানবাধিকার কর্মীদের কোনও ব্যাখ্যাও নেই’।

ডারউইনের তত্ত্ব অস্বীকার করে তিনি বলেন, ‘যারা মনে করেন, আমাদের পূর্বপুরুষরা বানর ছিলেন তাদের আমি দুঃখ দিতে চাই না। কিন্তু সত্যিটা হল ভারতীয় সংস্কৃতি অনুযায়ী, আমরা আসলে ঋষি-মুনিদেরই সন্তান। তাই আমাদের মানবাধিকারের কোনও প্রয়োজন নেই।’

সাবেক এই মন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের দরকার ভালো ও ন্যায়নিষ্ঠ মানুষ হয়ে ওঠা। আমরা সব মানুষকে শ্রদ্ধা করতে চাই। এটাই আমাদের সংস্কৃতির আদর্শ।’

প্রাক্তন এই মন্ত্রী অভিযোগ করেন, মানবাধিকার কর্মীরা বিদেশি সংস্থার দ্বারা অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছে। এ কারণে তারা জঙ্গি, জাতীয়তাবাদ-বিরোধী ও ধর্ষকদের সমর্থক। তিনি বলেন, সরকার তাদের মানবাধিকার রক্ষায় ব্যস্ত যাদের সেটার প্রয়োজন আছে।

অবশ্য সত্যপালের এমন বক্তব্যে সঙ্গে সঙ্গে প্রবল প্রতিবাদ জানায় বিরোধীপক্ষ। তৃণমূল লোকসভা সদস্য মহুয়া মৈত্র সত্যপাল সিংকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘এবার তো আপনি বলবেন, গরু আপনার মা।’

উল্লেখ্য, শুক্রবার লোকসভায় মানবাধিকার রক্ষা বিল ২০১৯ পাশ  হয়। সূত্র : আজকাল, এনডিটিভি

মন্তব্য


অন্যান্য