আন্তর্জাতিক

যেখানে ব্রেক-আপের মূল্য পরিশোধ অর্থে

প্রকাশ : ১৬ মে ২০১৮

যেখানে ব্রেক-আপের মূল্য পরিশোধ অর্থে

  অনলাইন ডেস্ক

বিচ্ছেদ বা ব্রেক-আপের পর ক্ষতিপূরণ! বিষয়টা অদ্ভূত হলেও সাম্প্রতিক সময়ে এমনই এক প্রথা চালু হয়েছে চীনের প্রেমিক-প্রেমিকাদের মধ্যে।

প্রেম করলে সবাই ডেটিংয়ে যাবে এটাই স্বাভাবিক। ঘোরাঘুরি, কোথাও বসে খাওয়া-দাওয়া করা -এগুলো ডেটিংয়েরই অংশ। এছাড়া প্রেমের সময় বিভিন্ন উপলক্ষে প্রেমিক-প্রেমিকা নিজেদের মধ্যে উপহার বিনিময় করে। সব মিলিয়ে ডেটিং বেশ ব্যয়বহুলও বটে। 

এ কারণে সম্পর্ক শেষ হয়ে গেলে মূল্য দিয়ে তা পরিশোধের প্রথা নিজেরাই চালু করেছেন চীনের প্রেমিক-প্রেমিকারা। তবে এর বাধ্যবাধকতা নেই। তারপরও প্রেমিক-প্রেমিকাদের একটি পক্ষ দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্কে ইতি টানার ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ দিচ্ছেন। 

নতুন এই প্রথা অনুযায়ী, সম্পর্ক যে ছেড়ে দিচ্ছে ক্ষতিপূরণটা দিতে হচ্ছে তাকেই। ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রেমিক-প্রেমিকারা একসঙ্গে কত সময় সম্পর্কের পিছনে ব্যয় করেছেন, কতটা কষ্ট করেছেন- এগুলো বিবেচনায় নেওয়া হচ্ছে।  

কেউ কেউ ডেটিংয়ের খরচের ওপর ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ করেন। আবার কেউবা ব্রেক-আপের কারণে কতটা মানসিক ক্ষতি হলো সেটা বিবেচনা করে একটা মূল্য নির্ধারণ করেন। 

তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ছেলেরাই ক্ষতিপূরণ প্রদান করেন। মেয়েরাও সম্পর্ক ভাঙলে ক্ষতিপূরণ দিচ্ছেন। চীনের শহরাঞ্চলে এই প্রবণতা বাড়ছে। অনেক সময় ব্রেক-আপের পর প্রেমিক বা প্রেমিকা ক্ষতিপূরণ দাবী করেও বসছেন।  

কিছুদিন আগে চীনের এক নারী তার সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে যেসব হোটেল এবং রেষ্টুরেন্টে একসঙ্গে যান এবং তাতে যা খরচ হয়- তার একটি তালিকা তৈরি করে ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। সেই সঙ্গে প্রেমিক তার জন্য যত খরচ করেছেন তা শোধ করার ইচ্ছাও জানান।

এর আগে ব্রেক-আপের ক্ষতিপূরণ নিয়ে ২০১৪ সালে চীনের দক্ষিণ সিচুয়ান প্রদেশে ভয়াবহ এক ঘটনা ঘটে। ব্রেক-আপ ফি দিতে অস্বীকার করায় এক নারীর বাড়িতে অ্যাসিড ছুড়ে মারেন তার প্রেমিক। সূত্র: বিবিসি


সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

কানাডায় ভারতীয় রেস্তোরাঁয় বিস্ফোরণ, আহত ১৫


আরও খবর

আন্তর্জাতিক

  অনলাইন ডেস্ক

কানাডার টরোন্টোতে ভারতীয় একটি রেস্তোরাঁয় বোমা হামলায় কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছে কানাডীয় সংবাদমাধ্যম সিবিসি। 

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে টরোন্টোর অন্টারিওতে ‌‘বোম্বে ভেল’ নামে একটি রেস্তোরাঁয় এ হামলার ঘটনা ঘটে। 

সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দুই হামলাকারীর ছবি সংগ্রহ করেছে পুলিশ। হামলাকারীদের ধরতে ওই ছবি টুইটারে পোস্ট করা হয়েছে। 

হামলাকারী দুই ব্যক্তি হুডি পড়ে মোটরসাইকেলে করে ওই রেস্তোরাঁয় আসে। একটি ব্যাগে বিস্ফোরক জাতীয় কোনো বস্তু তাদের সঙ্গে ছিল।

তবে এখন পর্যন্ত কোনো জঙ্গি গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। 

পুলিশ ধারণা করছে, ওই দুই ব্যক্তি বিস্ফোরক বস্তু ফেলে রেখে দ্রুত পালিয়ে যায়। তবে কি ধরনের বিস্ফোরক ব্যবহার করা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু বলতে পারেনি পুলিশ।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

নাজিব রাজাকের অ্যাপার্টমেন্টে মিলল ৩ কোটি ডলার


আরও খবর

আন্তর্জাতিক

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক— এএফপি

  অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের অ্যাপার্টমেন্টে তল্লাশি চালিয়ে বিভিন্ন মুদ্রায় প্রায় ৩ কোটি ডলারের সমপরিমাণ অর্থ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ।

রাজাকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তের অংশ হিসেবে তার অ্যাপার্টমেন্টে তল্লাশি চালানো হয়।

মালয়েশিয়ার পুলিশের বরাত দিয়ে শুক্রবার বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সপ্তাহে নাজিব রাজাকের বাড়ি এবং অন্যান্য স্থানের পাশাপাশি কুয়ালালামপুরে অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ঘড়ি ও অলঙ্কারের সঙ্গে ওই নগদ অর্থ উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার দেশটির পুলিশ কর্মকর্তা অমর সিং কুয়ালালামপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে সর্বশেষ তথ্য জানিয়ে বলেন, উদ্ধার করা অর্থের মধ্যে ২৬ ধরনের মুদ্রা রয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উদ্ধার করা অর্থের পরিমাণ ১১৪ মিলিয়ন রিংগিট (২ কোটি ৮৬ লাখ ডলার)।

তিনি জানান, কুয়ালালামপুরের একটি অ্যাপার্টমেন্টে ৩৫টি ব্যাগে এই অর্থ পাওয়া যায়। অপর ৩৭টি ব্যাগে পাওয়া যায় ঘড়ি ও অলঙ্কার। এগুলোর অর্থমূল্য পরে হিসাব করা হবে। এছাড়া অ্যাপার্টমেন্টটিতে ২৮৪টি বাক্স পাওয়া গেছে, যেগুলোর ভেতরে ছিল ডিজাইনার হ্যান্ডব্যাগ।

অমর সিং আরও জানান, একই ভবনের আরেকটি অ্যাপার্টমেন্টে ১৫০টি হ্যান্ডব্যাগ পাওয়া গেছে, যে অ্যাপার্টমেন্টে থাকতো রাজাকের মেয়ে।

গত ৯ মে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের জোটের কাছে পরাজিত হয়ে নাজিব রাজাকের জোট ক্ষমতা হারায়।  এরপর থেকেই দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

ট্রাম্প-কিমের বৈঠক বাতিল


আরও খবর

আন্তর্জাতিক

  অনলাইন ডেস্ক

উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আগামী ১২ জুনের ঐতিহাসিক বৈঠকটি বাতিল করেছে হোয়াইট হাউজ। খবর সিএনএনের।

বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বৈঠক বাতিলের বিষয়ে একটি চিঠি এরই মধ্যে কিম জং উনের কাছে পাঠানো হয়েছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এক বিবৃতিতে বলেন, আগামী মাসের বৈঠকটির জন্য আমি উন্মুখ হয়েছিলাম। কিন্তু উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ডে মনে হয়েছে বৈঠকের জন্য এটি সঠিক সময় নয়।

সিঙ্গাপুরে ১২ জুন ট্রাম্প এবং কিমের এই ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। গত ২৭ এপ্রিল দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুনের সঙ্গে কিমের সাক্ষাতের পর সিঙ্গাপুরের ওই বৈঠকটির ব্যাপারে চূড়ান্ত ঘোষণা আসে।

সংশ্লিষ্ট খবর