আন্তর্জাতিক

ভারতে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভার ধসে নিহত ১৬

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮

ভারতে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভার ধসে নিহত ১৬

  অনলাইন ডেস্ক

ভারতের উত্তরপ্রদেশে নির্মাণাধীন একটি ফ্লাইওভার ধসে পড়ে অন্তত ১৬ জন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে প্রদেশটির বারানসীতে ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশনের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

ধসে পড়া ফ্লাইওভারের নিচে অর্ধশতাধিক মানুষ আটকা পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এনডিটিভি বলছে, আচমকাই ফ্লাইওভারের দুইটি পিলার একসঙ্গে ভেঙ্গে পড়ে। এসময় বিশাল আকারের কংক্রিট স্ল্যাব মাটিতে আছড়ে পড়ে।

এতে ধ্বংসস্তুপের নিচে আটকা পড়ে মানুষ, বাস এবং ব্যক্তিগত গাড়িও ভেঙে চুরমার হয়ে যায় মুহূর্তেই।

হতাহতদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে না জানা গেলেও পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা নির্মাণাধীন ফ্লাইওভারটিরই শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলেন বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্সে (এনডিআরএফ) পাঁচটি দল উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে। পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্যও সেখানে রয়েছেন।

ধ্বংসাবশেষ সরাতে আটটি ক্রেন ব্যবহার করা হচ্ছে। গ্যাসকাটার দিয়ে রড কেটে আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। 

কর্মকর্তারা এনডিটিভিকে জানিয়েছেন, জীবিতদের উদ্ধার করাই এখন তাদের একমাত্র লক্ষ্য।

উত্তরপ্রদেশর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ফ্লাইওভার ধসে হতাহতের ঘটনায় আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত কিমিটিকে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ দুর্ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। উদ্ধারে সর্বোচ্চ তৎপরতা চালানো হচ্ছে। আহতদের দ্রুত সুস্থতার কামনাও করেন তিনি।



সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

বিয়ে হয়ে গেছে রাহুলের!


আরও খবর

আন্তর্জাতিক
বিয়ে হয়ে গেছে রাহুলের!

প্রকাশ : ১৪ আগষ্ট ২০১৮

ফাইল ছবি

  অনলাইন ডেস্ক

বয়সটা ঠিকই পেরিয়েছে অনেক দূর; তবে বিয়ের পিঁড়িতে বসা হয়নি ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেরস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

এবার কী তবে শুভ কাজটা সেরেই ফেলেছেন তিনি! না।১৯৭০ সালে গান্ধী পরিবারে জন্ম নেওয়া রাহুল শুধু বিয়ে নিয়ে মুখটা খুলেছেন বলে।

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, দুই দিনের সফরে হায়দরাবাদে সংবাদমাধ্যমের সম্পাদকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মঙ্গলবাররাহুল বলেছেন, আমার দলের (কংগ্রেস) সঙ্গেই আমার বিয়েটা হয়ে গেছে।

ওই সময় তিনি পূর্বাভাস দেন, ‘২০১৯ সালে আর প্রধানমন্ত্রী হতে পারছেন না নরেন্দ্র মোদি।’

রাহুলের দাবি, ‘দেশে আগামী বছর যে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা, তাতে শাসক জোটের প্রধান শরিক দল বিজেপি কোনও ভাবেই লোকসভায় ২৩০টির বেশি আসন পাবে না। তাই নরেন্দ্র মোদিরও আর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই।’

কংগ্রেস সভাপতির যুক্তি, ‘বিহার ও উত্তরপ্রদেশে অ-বিজেপি দলগুলি যে জোট গড়েছে, তার জন্যই আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে লোকসভায় বিজেপির আসন-সংখ্যা কমে যাবে।’

তবে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, সেই প্রশ্নটি কৌশলে এড়িয়ে গেছেন রাহুল। বলেছেন, সেটা আমরা তখন ঠিক করে নেব।

রাজ্যে তার দল কোন কোন দলের সঙ্গে নির্বাচনী আঁতাতে যাবে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার দায়িত্ব দলের প্রদেশ ইউনিটগুলির ওপরেই ছেড়ে দিতে চান কংগ্রেস সভাপতি।

তার জোরালো বিশ্বাস, ‘তেলঙ্গানায় কংগ্রেস ক্ষমতায় আসবে। অন্ধ্রপ্রদেশেও ভাল ফল করবে কংগ্রেস।’

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

ইতালিতে সেতু ধসে নিহত ২২


আরও খবর

আন্তর্জাতিক
ইতালিতে সেতু ধসে নিহত ২২

প্রকাশ : ১৪ আগষ্ট ২০১৮

ধসে পড়া সেতু- বিবিসি

  অনলাইন ডেস্ক

ইতালিতে গাড়ি চলাচলের একটি সেতু ধসে অন্তত ২২ জন নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের শহর জেনোয়ার কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ধসে পড়া সেতুটির উচ্চতা ৯০ মিটারের ওপরে। আচমকা পড়ে যাওয়ার সময় ওই সেতুর ওপর বেশ কয়েকটি গাড়ি অবস্থান করছিল।

ইতালির পরিবহনমন্ত্রী ড্যানিলো টনিনেল্লি বলেছেন, বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে বলেই মনে করা হচ্ছে। 

বিবিসি বলছে, দুর্ঘটনায় আরও বেশ কয়েজন নিহত ও আহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। উদ্ধার কর্মীরা তৎপরতা শুরু করেছেন।

সেতুটির পাশের একটি ভবন থেকে করা ভিডিওতে দেখা যায়, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ঝড়ের মধ্যে ধসে পড়ছে এটি।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, একটি রেল লাইনের ওপর ধসে পড়েছে সেতুটি। গাড়ি ও ট্রাকও সেতুর সঙ্গে সঙ্গে ওপর থেকে সেখানে পড়েছে।

দুর্ঘটনাস্থলের ছবিতে সেতুর মাঝামাঝি জায়গায় মাটিতে ধ্বংসস্তুপ দেখা গেছে। সেতুর একটি অংশে একটি ট্রাকও ঝুলে রয়েছে।


পরের
খবর

৪০ বছর পর ফেরত পেলেন চুরি যাওয়া সার্ফবোর্ড


আরও খবর

আন্তর্জাতিক

সার্ফবোর্ড হাতে গিলসন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রায় ৪০ বছর আগের কথা। ৭০ দশকের শেষের দিকে অষ্ট্রেলিয়ান এক মা অনেকদিন ধরে টাকা জমিয়ে তৎকালীন সময়ের ১৮০০ অষ্ট্রেলিয়ান ডলার দিয়ে সার্ফবোর্ড কিনে দেন ছেলেকে। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যে তাদের বাড়ির গ্যারেজ থেকে চুরি যায় সেই সার্ফবোর্ডটি। এতদিন পরে সম্প্রতি অনলাইনের মাধ্যমে চুরি যাওয়া সেই সার্ফবোর্ডটি খুঁজে পেয়েছেন সেই ছেলে। 

ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস স্টেটের নিউ ক্যাসেল এলাকায়। 

সার্ফবোর্ডটির মালিক পিটার গিলসন স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানান, তার মা অনেক কষ্টে টাকা জমিয়ে তাকে ওই সার্ফবোর্ড কিনে দিয়েছিলেন ।তাই চুরি যাওয়ার পর মা প্রচণ্ড কষ্ট পেয়েছিলেন। গিলসন বলেন, ‘ছোট থাকায় মায়ের ত্যাগটা তখন বুঝতে পারিনি। কিন্তু বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমিও তার কষ্টটা অনুভব করতে শুরু করি’।

সেই ঘটনার চার দশক পরে গিলসন ঐতিহ্যশালী সার্ফবোর্ড মেরামতের কাজ শুরু করেন । ওই সময় একদিন অনলাইনে তার চুরি যাওয়া ঘোড়ার ছবিযুক্ত সার্ফবোর্ডটি দেখতে পান। দেশের পশ্চিম প্রান্তে বসবাসকারী এক ব্যক্তি অনলাইনে ছবিটা শেয়ার করেছিলেন।  

এতদিন পর নিজের হারানো সেই সার্ফবোর্ডটি খুঁজে পেয়ে গিলসন ছুটে যান ওই ব্যক্তির কাছে। পরে তার সঙ্গে কথা বলে বুঝতে পারেন, ৪০ বছরে অনেকবার হাত বদল হয়ে সার্ফবোর্ডটি ওই ব্যক্তির কাছে পৌঁছেছে।গিলসন তখন সার্ফবোর্ড হারানোর পুরো ঘটনা ওই ব্যক্তিকে খুলে বলেন।  

সব শুনে সার্ফবোর্ডটির বর্তমান মালিক গিলসনকে বিনামূল্যে সার্ফবোর্ডটি ফেরত দেন।গিলসনও তার হারানো জিনিসটি এভাবে ফিরে পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে ওঠেন।  সূত্র : এনডিটিভি


সংশ্লিষ্ট খবর