হলিউড

স্টার সিনেপ্লেক্সে আসছে হলিউডের দুই ছবি

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮

স্টার সিনেপ্লেক্সে আসছে হলিউডের দুই ছবি

ফাইল ছবি

  অনলাইন ডেস্ক

স্টার সিনেপ্লেক্স ৯ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে হলিউডের দুইটি ছবি । ছবিগুলো হচ্ছে ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’, ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য ফোর রিয়ামস’। জনপ্রিয় ব্রিটিশ ব্যান্ড কুইন-এর ভোকাল অকালপ্রয়াত ফ্রেডি মার্কারির জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’। ব্যান্ডের জনপ্রিয় গান ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’ অনুসারে ছবিটির নাম রাখা হয়েছে। পরিচালনা করেছেন ব্রায়ান সিঙ্গার। অন্যটি আর্নেস্ট হফম্যানের ছোটগল্প  ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য মাউস কিং’ অবলম্বনে নির্মিত ছবি ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য ফোর রিয়ামস’। পরিচালনা করেছেন সুইডিশ পরিচালক লারস হালস্টর্ম এবং ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার’খ্যাত মার্কিন পরিচালক জো জনস্টন। 

এর মধ্যে বোহেমিয়ান রাপসোডিতে দেখা যাবে. সত্তরের দশকে যুক্তরাজ্যে ‘কুইন’ নামে এক কালজয়ী রক সংগীত ব্যান্ড গড়ে উঠেছিল। আজ অবধি ওই সাড়াজাগানো কুইন ব্যান্ডের কতো যে অগণিত ভক্ত রয়েছে তার কোনো ইয়ত্তা নেই। সেই কুইন ব্যান্ডের জনপ্রিয় ভোকাল ছিলেন ফ্রেডি মার্কারি। ১৯৯১ সালে মাত্র পঁয়তাল্লিশ বছর বয়সে এইডসে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। কুইন ব্যান্ডের এই খ্যাতিমান শিল্পীর জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’। লন্ডনের কোনো এক গলির ব্যন্ড থেকে কুইন হয়ে ওঠার গল্পই চলচ্চিত্রটির পটভূমি। মুলত এই ব্যন্ডের লিড আর্স্টিট ফ্রেডি মারকুরির জীবনের রোমাঞ্চকর কাহিনীই উঠে এসেছে এ ছবিতে। তার চরিত্রে অভিনয় করেছেন রামি মালেক। 

হলিউডের সিনেমাপ্রেমীদের কাছে এ বছরের অন্যতম কাঙ্খিত সিনেমার নাম ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’। ছবি নির্মাণের ঘোষণার পর থেকে ‘কুইন’ ভক্তদের বিশেষ কৌতুহল জাগে। কেমন হয়েছে ছবিটি? ফ্রেডির জীবনকে কতটা সাবলীল ভাবে তুলে ধরতে পেরেছে এই ছবি? এসব প্রশ্ন এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে ভক্তদের চিন্তা জগতে। সমালোচকেরা অবশ্য বলছেন ‘বোহেমিয়ান’ ফ্রেডির ভক্তদের নিরাশ করবে না ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’। সম্প্রতি শিল্পী-কুশলীদের উপস্থিতিতে লন্ডনে অনুষ্ঠিত হয় ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’র বিশেষ প্রদর্শনী। ছবিটি দেখার পর ফ্রেডির চরিত্রে অভিনয় করা রামি মালিকের প্রশংসা করছেন সবাই।  বিখ্যাত সিনেমা রিভিউ সাইট রটেন টমেটোতে ছবিটির রেটিং পড়েছে ৫৪ শতাংশ। ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’ মূলত ফ্রেডি মার্কারি ও কুইন ব্যান্ডের প্রথম পনের বছর সময়ের বিস্তারিত বিবরণ। সেই সঙ্গে তার শৈশব-কৈশোরের কিছু ঘটনাও উঠে আসবে ছবিটিতে।

অন্যদিকে  রূপকথার গল্পকে সিনেমার পর্দায় আনার ক্ষেত্রে জুড়ি নেই ডিজনির। এবার পর্দায় নিয়ে আসছে জার্মান লেখক আর্নেস্ট হফম্যানের ছোটগল্প ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য মাউস কিং’। গল্পটি অবলম্বনে নির্মিত ছবির নাম দেয়া হয়েছে ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য ফোর রিয়ামস’। পরিচালনা করেছেন সুইডিশ পরিচালক লারস হালস্টর্ম এবং ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার’খ্যাত মার্কিন পরিচালক জো জনস্টন। ছবির গল্প আবর্তিত হয়েছে ক্লারা নামের এক কিশোরীকে ঘিরে। মায়ের উপহারের বাক্সটি খুলতে তার প্রয়োজন একটি চাবির। সেই চাবির সন্ধানে তাকে জড়িয়ে পড়তে হয় অদ্ভুত এক রহস্যে। যে গল্পে রয়েছে আরো তিনটি সাদৃশ্য জগৎ, জীবিত কিছু পুতুল, বুদ্ধিমান এক ইঁদুরের দল এবং সেই জগতের অদ্ভুতুড়ে বাসিন্দারা। তারকাবহুল এ চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ম্যাকেঞ্জি ফয়। এ ছাড়া দেখা যাবে কিরা নাইটলি, রিচার্ড ই গ্রান্ট, হেলেন মিলেন, মরগান ফ্রিম্যানের মতো অভিনয়শিল্পীদের। 

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

ক্ষমা চাইতে বলায় অস্কার উপস্থাপনায় 'না'


আরও খবর

হলিউড

কেভিন হার্ট - ফাইল ছবি

  অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে বসবে এবারের অস্কারের আসর। চলচ্চিত্র দুনিয়ার সবচেয়ে সম্মানজনক এই পুরস্কার অনুষ্ঠান এ বছর ৯১তম বছর উদ্‌যাপন করতে যাচ্ছে।

হাতে একদম সময় নেই। কিন্তু এরই মাঝে জানা গেল, দু:সংবাদ। অস্কার কর্তৃপক্ষ এখনও ঠিক করতে পারে নি এবারের আসরের উপস্থাপকের নাম!

ডেইলি মেইল জানায়, উপস্থাপক ছাড়াই অনুষ্ঠিত হতে পারে অস্কার পুরস্কার। জানা গেছে, উপস্থাপক  ছাড়াই অনুষ্ঠানের বিভিন্ন অংশ  উপস্থাপনার জন্য একাধিক তারকাদের মঞ্চে ডাকা হবে। কিন্তু কে থাকবেন উপস্থাপকের ভূমিকায়, তা  এখনও চূড়ান্ত  তালিকা তৈরি করতে পারেনি অস্কার কর্তৃপক্ষ।   

আর এই পুরো ঘটনার পেছনে কেভিন হার্ট ইস্যুই অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন চলচ্চিত্র বিশেষজ্ঞরা।

প্রথমে এবছরের অস্কার পুরস্কারের সঞ্চালক হিসেবে অভিনেতা কেভিন হার্টের নাম ঘোষণা করেছিল অস্কার কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি কেভিনের পুরনো কিছু টুইট ভাইরাল হয়। ওই টুইটে বর্ণ বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছিলেন কেভিন।

এ ব্যাপারে কেভিনকে ক্ষমা চাইতে বলেছিল অস্কার কর্তৃপক্ষ। কেভিন তাতে রাজি না হয়ে বরং অস্কার কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেন, তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করছেন না।   ‌‌

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

আমেরিকা ও বাংলাদেশে একই দিনে ‘রেপ্লিকাস’


আরও খবর

হলিউড

‘রেপ্লিকাস’ ছবির একটি দৃশ্য

  অনলাইন ডেস্ক

আন্তর্জাতিকভাবে শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে সায়েন্স ফিকশন থ্রিলার সিনেমা ‘রেপ্লিকাস’।  একই দিনে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সেও মুক্তি পাবে ছবিটি। জেফ্রে নাচম্যানফ পরিচালিত ছবিটির চিত্রনাট্য লিখেছেন চাদ সেন্ট জন। ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ তারকা কিয়ানু রিভস। আরও অভিনয় করেছেন এলিস ইভ, টমাস মিডলদেচ ও জন অর্টিজ প্রমুখ। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবিটির প্রযোজনায়ও যুক্ত আছেন কিয়ানু রিভস। 

মানব ক্লোনিং নিয়ে নৈতিক ও আইনি বিতর্ক চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। ভবিষ্যত প্রজন্মকে এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে সুরক্ষার জন্য বিশ্বের অধিকাংশ দেশই মানব ক্লোনিং নিষিদ্ধ করেছে। তবে কিছু কিছু দেশ এখনো গোপনে বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। এর মধ্যেই সেই ঘরানার কাহিনি নিয়ে হলিউডে নির্মিত হলো কল্প-বিজ্ঞানভিত্তিক সিনেমা ‘রেপ্লিকাস’। ছবিতে সিন্থেথিক বায়োলজিস্ট ও নিউরো সায়েন্টিস্ট উইলিয়াম ফস্টার চরিত্রে দেখা যাবে কিয়ানু রিভসকে। যিনি মানুষের চেতনাকে সফলভাবে কম্পিউটার প্রোগ্রামে স্থানান্তর করতে পারেন।

এক গাড়ি দুর্ঘটনা তার পরিবার নিহত হয়। উইল স্ত্রী ও সন্তানদের ক্লোন তৈরি করতে চান। এ কাজে সাহায্য করে সহকর্মী এড হুইটল। এ দিকে চেতনা স্থানান্তর বা ক্লোন রেপ্লিকা তৈরি আইন ও বিজ্ঞানের সূত্রের বিরোধী। তাই তাদের সবকিছু করতে হয় গোপনে। এক পর্যায়ে অন্য রকম বিপদে পড়ে যান উইল। যাকে বলা হয় ‘সোফিস চয়েস’। উইলকে পরিবারের চার সদস্য থেকে তিনজনকে ক্লোনের জন্য বেছে নিতে হবে। তিনি কাকে বাদ দেবেন? এভাবে এগিয়ে চলে ছবির কাহিনি। সম্প্রতি ফিনল্যান্ডের নাইট ভিশনস ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ছবিটি প্রদর্শিত হয়েছে। সেখানে বিভিন্ন দেশ থেকে আমন্ত্রিত চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ছবিটি দেখে প্রশংসা করেছেন। ছবিটিকে এ সময়ের একটি সাহসী নির্মাণ বলে উল্লেখ করেছেন অনেকে। মূল চরিত্রে কিয়ানু রিভসের অভিনয় আকৃষ্ট করেছে দর্শকদের।


সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

গোল্ডেন গ্লোবে 'বোহেমিয়ান রাপসডি' ও লেডি গাগার জয়জয়কার


আরও খবর

হলিউড

`অ্যা স্টার ইজ বর্ন’ ছবিটির ‘শ্যালো’ গানের জন্য পুরস্কার জিতেছেন লেডি গাগা

  অনলাইন ডেস্ক

১৯৪৪ সাল থেকে হলিউড ফরেন প্রেস অ্যাসোসিয়েশন প্রদান করে আসছে গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড। হলিউডের টিভি ও চলচ্চিত্রে সেরা কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ দেয়া হয়ে এ পুরস্কার। ৬ জানুয়ারি রাতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার বেভারলি হিলসে (বাংলাদেশ সময় সোমবার সকাল) অনুষ্ঠিত হয় গোল্ডেন গ্লোবসের ৭৬তম আসর।

বেস্ট ড্রামা অ্যাক্টর পুরস্কার জিতেছেন রামি মালেক

এবারের আয়োজনে চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন মিলিয়ে মোট ২৭টি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হয়। অভিনয়শিল্পী, পরিচালক, লেখক ও প্রযোজকরা তাদের সেরা কাজের জন্য পেয়েছেন এই গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার। আসরে এবার উপস্থাপক হিসেবে ছিলেন অভিনেতা ও কমেডিয়ান অ্যান্ডি স্যামবার্গ ও অভিনেত্রী সান্ড্রা ওহ।

গোল্ডেন গ্লোবের এবারের আসরে 'বোহেমিয়ান রাপসডি' ছবি জিতেছে প্রধান দুটি পুরস্কার। বেস্ট ড্রামা এবং বেস্ট ড্রামা অ্যাক্টর পুরস্কার জিতে নিয়েছে ছবিটি। ফ্রন্টম্যানের চরিত্রে অভিনয় করে এই পুরস্কার জিতেছেন রামি মালেক। 

গ্লোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীরা

অন্যদিকে পাঁচটি নমিনেশন পেয়েও মাত্র একটি পুরস্কার জিতে হতাশ করেছে ‘অ্যা স্টার ইজ বর্ন’ ছবিটি। বেস্ট অরিজিনাল সং এর পুরস্কার জিতে নিয়েছে ছবিটি। এই  ছবির ‘শ্যালো’ গানের জন্য পুরস্কার জিতেছেন লেডি গাগা। ‘গ্রিন বুক’ ছবিটি জিতেছে তিনটি পুরস্কার। সেরা স্ক্রিন প্লে, সেরা কমেডি ফিল্ম এবং সেরা সহ-অভিনেতার (মাহেরশালা আলি) পুরস্কার জিতেছে ছবিটি।

সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন গ্লেন ক্লোজ (দ্য ওয়াইফ)। সেরা অভিনেতা (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) পুরস্কার নিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ান বেল (ভাইস) এবং সেরা অভিনেত্রী (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) হয়েছেন অলিভিয়া কোলম্যান (দ্য ফেভারিট)। এছাড়াও চলচ্চিত্রের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন রেজিনা কিং, আলফনসো কুয়ারন, জাস্টিন হারউইৎজ, লেডি গাগা এবং জেফ ব্রিজেস।


সংশ্লিষ্ট খবর