হলিউড

‘বিয়েই আমাকে যৌন হেনস্তা থেকে সুরক্ষা দিয়েছে’

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০১৮ | আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০১৮

‘বিয়েই আমাকে যৌন হেনস্তা থেকে সুরক্ষা দিয়েছে’

নিকোল কিডম্যান

  অনলাইন ডেস্ক

হলিউড-বলিউডে চলছে # মি টু আন্দোলনের ঝড়। এ ঝরে লণ্ডভণ্ড হয়ে যাচ্ছে অনেক বড় বড় তারকার জীবন। এবার  #মি টু আন্দোলন বিষয়ে মুখ খুললেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী নিকোল কিডম্যান। তবে যৌন হেনস্তার প্রতিবাদে বা তার কোনো ঘটনা বিষয়ে বলেননি তিনি। জানালেন,  ক্যারিয়ারে কখনোই এমন পরিস্থিতির শিকার না হওয়ার কারণ।

কিডম্যান এ পরিস্থিতির শিকার না হওয়ার পুরো  ক্রেডিট দিয়েছেন তার সাবেক স্বামী  অভিনেতা টম ক্রুজকে।

সম্প্রতি #মি টু  আন্দোলন নিয়ে নিউইয়র্ক ম্যাগাজিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে  নিকোল কিডম্যান বলেন, আমি এখন উপলব্ধি করছি যে, ওইসময় আমার সুপারস্টার স্বামী থাকায় হলিউডের অন্ধকার দিক থেকে সুরক্ষা পেয়েছিলাম আমি।

তিনি বলেন, ‘খুব অল্প বয়সে প্রেমে পড়ে বিয়ে করেছিলাম। পরে আমার ক্ষমতা না বাড়লেও, এই বিয়েটাই আমাকে সুরক্ষা দিয়েছিল। খুব ক্ষমতাশালী লোকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল বলেই হয়তো যৌন হয়রানিমূলক সব বিপদ থেকে নিরাপদ ছিলাম।’

টম ক্রুজ ও নিকোল কিডম্যান বিয়ে করেছিলেন ১৯৯০ সালে। পরে ২০০১ সালে টম ক্রুজের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় কিডম্যানের। এরপর ২০০৬ সালে কিথ আরবান নামের একজন কান্ট্রি মিউজিক গায়ককে বিয়ে করেন  নিকোল কিডম্যান। এ সংসারে তাদের দুটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।  আরবানের সঙ্গেই এখন ঘর করছেন অস্কারবিজয়ী নিকোল কিডম্যান।

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

মনরোর অ্যাওয়ার্ডের এত দাম!


আরও খবর

হলিউড
মনরোর অ্যাওয়ার্ডের এত দাম!

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৮

মেরিলিন মনরো- ফাইল ছবি

  অনলাইন ডেস্ক

বিংশ শতাব্দির লাখো তরুণের স্বপ্নের রানি মেরিলিন মনরো পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছেন ১৯৬২ সালে। কিন্তু মৃত্যুর অর্ধশতাব্দি পরও ভুবনমোহিনী হাসির অধিকারী এই অভিনেত্রীর আবেদন এতটুকুও কমেনি। 

তারই প্রমাণ মিলল যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার বেভারলি হিলে অনুষ্ঠেয় একটি নিলামে। সেখানে মনরোর জেতা গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডটি বিক্রি হয়েছে রেকর্ড দামে। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের। 

অ্যাওয়ার্ডটি আড়াই লাখ ডলারে বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছে নিলামকারী প্রতিষ্ঠানটি।

জুলিয়ানস অকশন নামের নিলামকারী প্রতিষ্ঠানটির মালিক ড্যারেন জুলিয়ান জানান, এছাড়াও নিলামে মনরোর ব্যবহৃত ১৯৫৬ সালের দুই আসনের ফোর্ড থান্ডারবার্ড মডেলের গাড়িটি ৪ লাখ ৯০ হাজার ডলারে কিনে নিয়েছেন এক ব্যক্তি।

তিনি জানান, ১৯৬২ সালে অনাকাঙ্খিত মৃত্যুর আগে প্রায় ৬ বছর গাড়িটি ব্যবহার করেছেন হলিউডের এই নারী সুপারস্টার।


সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

চলে গেলেন স্পাইডারম্যান-আয়রনম্যান স্রষ্টা


আরও খবর

হলিউড

স্ট্যান লি

  অনলাইন ডেস্ক

স্পাইডারম্যান, এক্স ম্যান, হাল্ক, আয়রনম্যান, ডক্টর স্ট্রেঞ্জ চরিত্রগুলো বিশ্ব মাতানো। চরিত্রগুলো অগণিত মানুষের পছন্দের তালিকায় রয়েছে। পৃথিবী কাঁপানো এসব চরিত্রের স্রষ্টা মার্কিন কমিক্স বই লেখক ও মার্ভেল কমিক্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট স্ট্যান লি  চলে গেলেন চির বিদায় নিয়ে। সোমবার  শিকাগোর সিনাই মেডিক্যাল সেন্টারে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ৯৫ বছর বয়সী স্ট্যান লি।

হলিউড রিপোর্টে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার মেয়ে জেসি।  জেসি বলেন, ‘তিনি তার জীবন এবং কাজকে ভালোবেসেছিলেন। তার পরিবার এবং ভক্তরা তাকে ভালোবাসতো। তার স্থান অপূরণীয়।’

তবে স্ট্যান লি’র মৃত্যুর কারণ জানাননি জেসি। জানা গেছে অনেকদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। ছিলো চোখের সমস্যাও। এইসব সমস্যা নিয়ে আর ফিরলেন স্ট্যান লি।

১৯২২ সালে নিউ ইয়র্ক শহরের একটি নিম্নবিত্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন স্ট্যান লি। বাবা জ্যাক লিয়েবার ছিলেন দর্জি। ১৯৬০ সাল থেকে মার্বেল কমিক্স লেখা শুরু হয় স্ট্যান লির। এমনকি প্রচ্ছদ থেকে শুরু করে প্রায় সব কিছুই নিজের হাতে করতেন তিনি। 

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

অনামিকায় নতুন প্রেমিকের উপহার


আরও খবর

হলিউড

লেডি গাগা

  অনলাইন ডেস্ক

ছিলেন গায়িকা। এখন নায়িকা হিসেবেই পরিচিত তিনি। নানা সময়ে নানা প্রসঙ্গ নিয়ে হলিউড পাড়ায় আলোচিত তিনি। বলছি লেডি গাগার কথা। ক’দিন আগে হলিউড এজেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ক্যারিনোর সঙ্গে সম্প্রতি বাগদান সেরেছেন গাগা। গণমাধ্যমে নিজের বাগদানের খবর নিজেই নিশ্চিত করেছিলেন। এবার প্রেমিকের দেওয়া আংটি সামনে আনলেন গাগা। 

সম্প্রতি একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের রেড কার্পেটে ধরা দেন তিনি। পরনে ছিল ডি'অরের ব্যালেরিনা গাউন। তবে সব কিছু ছাপিয়ে উপস্থিত সবার নজর গিয়ে পড়ে গাগার অনামিকার উপর।যেখানে একটা বড় গোলাপি হিরের আংটি জ্বলজ্বল করছিল।

লেডি গাগাও আংটি লুকানোর কোনও চেষ্টা করেননি গাগা। বরং এমনভাবে পোজ দিতে শুরু করেন যাতে ভালভাবে আংটিটি দেখা যায়। পরে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘কারও প্রতি ভালবাসা জাহির করায় বাধা কোথায়?'

সংশ্লিষ্ট খবর