স্বাস্থ্য

বিএসএমএমইউয়ে নিয়োগ: আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা চাকরিপ্রার্থীদের

প্রকাশ : ১৬ জুন ২০১৯

বিএসএমএমইউয়ে নিয়োগ: আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা চাকরিপ্রার্থীদের

  সমকাল প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন চাকরিপ্রার্থী চিকিৎসকরা। 

রোববার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তনে এক সমাবেশে তারা এ ঘোষণা দেন।

সমাবেশে চিকিৎসকরা নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এনে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার পদত্যাগ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসকদের নামে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

চাকরিপ্রার্থী আন্দোলনকারীরা বলেন, মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় অনিয়মের বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে মৌখিক ও লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে। কিন্তু তারা এটিকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করছে। এ ধরনের মিথ্যাচার করে উপাচার্য তার পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন। উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি জানিয়ে লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তারা।

এদিকে গত ১১ জুন বিএসএমএমইউতে শিক্ষক ও চিকিৎসকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে মিটফোর্ড, সোহরাওয়ার্দী, ফরিদপুর, যশোর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, পাবনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতালসহ অনেক প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছেন।

গত ২০ মার্চ বিএসএমএমইউতে মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত পরীক্ষার ফল গত ১২ মে প্রকাশিত হয়। এর পরই লিখিত পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগ করে পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানান অকৃতকার্য চাকরিপ্রার্থীরা। কিন্তু কর্তৃপক্ষ এ দাবি আমলে না নিয়ে মৌখিক পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ১১ জুন আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভের মুখে পরীক্ষা স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ। ওই দিন রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে ৫০ জনের মতো চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করে। পরে ১৩ জুন সিন্ডিকেট সভা করে পরীক্ষা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মন্তব্য


অন্যান্য