বিনোদন

ঈদ আয়োজনে তপু খানের ১৩ নাটক

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৯ | আপডেট : ১০ জুন ২০১৯

ঈদ আয়োজনে তপু খানের  ১৩ নাটক

ফাইল ছবি

  বিনোদন প্রতিবেদক

ঈদের আনন্দ বাড়িয়ে দিতে  সাত দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে টিভি চ্যানেলগুলো। সাত দিনের অনুষ্ঠানমালায় নাটক, টেলিফিল্ম, ছোটদের অনুষ্ঠানসহ থাকছে নানা আয়োজন। উদ্দেশ্য একটাই দর্শকদের বিনোদিত করা। ঈদকে  ঘিরে তাই নির্মাতা অভিনেতাদের ব্যস্ততা বেড়ে যায় বহুগুণে।  

এবারের  ঈদকে ঘিরে তরুণ নির্মাতা তপু খানের ব্যাস্ততা ছিল বেশ। বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ও ইউটিইব চ্যানেলে তার পরিচালিত ১৩ টি নাটক প্রচার হচ্ছে। 

এই ১৩টির মধ্যে ২টি  ইউটিউব চ্যানেলের জন্য হলেও বাকী ১১টিই বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের জন্য।  গতকাল আরটিভিতে  প্রচার হয় তার পরিচালনায়  নাটক ‘ফার্মগেট’। দয়াল সাহা রচনা করেছেন এটি। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন তানজিন তিশা ,তওসিফ, আব্দুল্লাহ রানা। একই দিন প্রচার হয়েছে ‘কবুল’ নামে আরেকটি নাটক । সন্ধ্যা ৭টা ৪০মিনিটে  ‘রঙ্গন ফিল্মস’র ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার হয় এটি। এটি রচনা করেছেন মাসুদ উল হাসান। নাটকে অভিনয় করেছেন তাহসান ও সাফা কবির।

একই দিন  এটিএন বাংলায়  রাত ১১টা ৩০মিনিটে প্রচার হয় ‘কি করে তোকে বলব’। আনিসুর রহমান রাজীবের লেখা এই নাটকে অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও তানজিন তিশা।

এছাড়াও ঈদের দিন থেকে প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে তপু খানের নাটক। ঈদের দিন থেকে চ্যানেল নাইনে প্রচার হচ্ছে ৭দিনের একটি ধারাবাহিক নাটক ‘বোনাস’। এটি রচনা গল্পের বাড়ি এর রচনায় এখানে অভিনয় করছেন নাঈম,অহনা,সাজু খাদেম,আরফান,আজাদ আবুল কালাম পাভেল, তাসনুভা এলভিন ও কাজল সুবর্ণ। 

তপু খানের ‘দুই প্রহরের ভালবাসা’ নামের একটি নাটক এনটিভিতে প্রচার হবে ঈদের নবম দিন রাত ৯টায়। নাটকটি রচনা করেছেন জহির করিম। নাটকে অভিনয় করেছেন মৌসুমি হামিদম তামিম মৃধা, আজাদ। ‘কাজিন ফ্যাক্ট’ নামে একটি নাটক প্রকাশ পাবে বিগ ব্যাংক ইউটিউব চ্যানেলে। নাটকটি রচানা করেছেন সৌরভ মল্লিক। ‘গ্লানি’ নামে আরেকটি নাটক আরটিভিতে প্রচার হবে ১৫তারিখে। এটি রচনা করেছেন  রশিদুর রহমান।  

শুধু ঈদেই নয় নাটক নির্মাণ নিয়ে সারা বছরই ব্যস্ত থাকেন এ নির্মাতা। ঈদের নাটকগুলো নিয়ে তপু খান বলেন, ‘সারা বছরই নাটক নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। তবে ঈদের  আগে কাজের ব্যস্ততা অনেক বেড়ে যায়। তবে ব্যস্ততা বাড়লেও নাটকের মানের সঙ্গে আপোষ করিনা। এইবার যে তেরোটি নাটক প্রচার হয়েছে বা হচ্ছে। তার সবগুলোর গল্পই সুন্দর। বেশ যত্ন নিয়ই কাজগুলো করা।’

তেরো নাটকের একটি  ‘প্রেমে পরা বারণ’। চাঁদরাতে বাংলাভিশনে প্রচার হয়েছে। এটি রচনা করেছেন রশিদুর রহমান। চাঁদরাতে আরটিভিতে ‘ ফানিমুন’ও প্রচার হয়।  হাসিব হাসান চৌধুরী গল্পে নাটকটি তৈরি হয়েছে। শাহজাহান সৌড়ভ এর রচনায় ‘সুরের বাধন’  নামে আরেকটি নাটক চাঁদরাতে প্রচার হয় এনটিভিতে। 

এছাড়াও ঈদের দিন দেশ টিভিতে প্রচার হয়েছে রুম্মান রশিদ খানের রচনায় নাটক ‘ইয়েস’। পাশাপাশি ‘রুম নম্বর ৫৩৬’ নাটকটি ঈদের তৃতীয় দিন এসএ টিভিতে প্রচার হয়। এটি রচনা করেছেন  সৈয়দ ইকবাল। একই দিনে ‘ডি মোটিভেশনাল লাভ’ নামে আরেকটি নাটক প্রচার হয় এশিয়ান টিভিতে। নাটকটি রচনা করেছেন রশিদুর রহমান।

প্রচার হওয়া সবগুলো নাটকেই দর্শক সাড়া দারুন পেয়েছেন এবং পাচ্ছেন বলে মন্তব্য নির্মাতা তপু খানের। প্রচারের পর নাটকগুলোতে ইউটিউব ভিউ অনেক।  তপু খান বলেন, অসুস্থ শরীর নিয়ে প্রায় নাটকগুলোর শুটিং করেছি। এই কষ্ট স্বার্থক হয় যখন দর্শকরা নাটক গ্রহণ করেন। আমার প্রতিটি নাটকে আর্টিস্টরা অনেক কো-অপারেটিভ করেছেন। তাদের সহযোগিতায় নাটকগুলো করা সম্ভব হয়েছে। সেই সঙ্গে আমার টিমের মেম্বারের কথা না বললেই নয়। ওদের জন্যই ঈদের এতোগুলো কাজ শেষ করা সম্ভব হয়েছে।’

মন্তব্য


অন্যান্য