বিনোদন

বিনামূল্যে ছবি দেখতে পাবে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশ : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯ | আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯

বিনামূল্যে ছবি দেখতে পাবে শিক্ষার্থীরা

  অনলাইন ডেস্ক

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে 'ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব'। ‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’- শ্লোগান সামনে রেখে শুরু হচ্ছে এ উৎসব। রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের উদ্যোগে আয়োজিত এ উৎসব চলবে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত। উৎসবকালীন সময়ে পরিচয়পত্র দেখিয়ে মূল কেন্দ্রগুলোতে শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে ছবি দেখতে পারবে বলে জানান কর্তৃপক্ষ। 

তবে যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমা হলে ব্লকবাস্টার কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত মূল্যে ছবি দেখতে হবে বলেও আজ দুপুরে ঢাকা ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। 

সংসবাদ সম্মেলেন উপস্থিত ছিলেন  উৎসব পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল, উৎসব কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য ম হামিদ, উৎসবের অন্যতম জুরি ইলিয়াস কাঞ্চনসহ অনেকেই। বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এ উৎসবের উদ্বোধন করবেন। তখন তথ্য সচিব আবদুল মালেক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। সভাপতিত্ব করবেন উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম । 

উদ্বোধনী চলচ্চিত্র হিসেবে থাকছে তুরস্ক ও-জর্ডানের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্রটি ছবি ‘‌দ্যা গেস্ট’। এটি পরিচালনা করেছেন রস্কের নির্মাতা আন্দাজ হাজানেদারগলু। বিকেল ৫টায় দেখানো হবে ছবিটি। 

এ ছাড়াও একইদনে আরও প প্রর্দশীত হবে 'দেব ভূমী', 'দ্য কেন্টারস', ট্যাঙ্গো হ্যাজেনডারেগ্নু', 'আল রাহা', 'পিহুজলি', 'প্যাসেজ অব লাইফ', 'ফ্রম ইউএফএ', 'উইথ লাইফ', আইসোলেশান', ইউএনসাইড', 'দ্য ভার্জিন', 'হিউম্যান অব নেচার', 'এন্টার দস আগুয়াস', 'পজ' এবং 'ক্রসিং দ্য বর্ডার'।

৯ দিনব্যাপী এ উৎসব জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তন ও বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তন, অঁলিয়স ফ্রঁসেস মিলনায়তন, শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ও যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমাস-এ ছবিগুলো প্রদর্শিত হবে। প্রদর্শনীর সময় প্রতিদিন সকাল ১০টা, দুপুর ১টা ও বিকাল ৩টা। 

সংবাদ সম্মেলনে উৎসব পরিচালক জানান, বরাবরের মতোই এবারের উৎসবেও এশিয়ান প্রতিযোগিতা বিভাগ, রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগ, বাংলাদেশ প্যানারোমা, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড, চিলড্রেনস ফিল্ম, স্পিরিচুয়াল ফিল্মস, শর্ট অ্যান্ড ইন্ডিপেনডেন্ট ফিল্ম এবং উইমেন্স ফিল্ম সেকশনে ৭২টি দেশের দুই শত ১৮টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে । উৎসবের ২১৮টির মধ্যে পূর্ণদৈর্ঘ্য (৭০ মিনিটের বেশি) চলচ্চিত্রের সংখ্যা ১২২টি, স্বল্পদৈর্ঘ্য ও স্বাধীন চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৯৬টি।

উৎসবের মূল কেন্দ্র জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে সকাল ১০টা থেকে চলবে শিশুতোষ চলচ্চিত্র। এ ক্ষেত্রে শিশুদের সঙ্গে অভিভাবকরাও আসতে পারবেন বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।  এ ছাড়া, সকাল ১০টা, দুপুর ১টা ও বিকেল ৩টার প্রদর্শনী শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে দেখতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র প্রদর্শন করতে হবে। এর বাইরে, সাধারণ দর্শনার্থীদের জন্য টিকিটমূল্য ৫০ টাকা। কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তনে সকাল ১০টা থেকে শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। যেখানে অভিভাবকরাও শিশুদের সঙ্গে এই চলচ্চিত্রগুলো বিনা মূল্যে উপভোগ করতে পারবেন। এ ছাড়া, সকাল ১০টা, দুপুর ১টা ও বিকেল ৩টার প্রদর্শনী শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে দেখতে পারবেন। জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে সব প্রদর্শনী সবাই বিনা মূল্যে উপভোগ করতে পারবেন।  আগে আসলে দেখবেন ভিত্তিতে আসন বণ্টন করা হবে বিনামূল্যে ছবি দেখার আসন। পাশাপাশি অলিয়ঁস ফ্রঁসেজ মিলনায়তনেও প্রদর্শনীগুলো সবার জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে বলে জানানো হয়। 


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

কানাডার ৮ প্রেক্ষাগৃহে ‘যদি একদিন’


আরও খবর

বিনোদন

‘যদি একদিন’ এ অভিনয় করেছেন তাহসান খান ও শ্রাবন্তী

  বিনোদন প্রতিবেদক

বাংলাদেশের ছবি যদি একদিন এবার মুক্তি পাচ্ছে কানাডায়। সেখানে ৮টি প্রেক্ষাগৃহের একযোগে ১৯৬ টি শো নিয়ে প্রথম সপ্তাহ শুরু করতে যাচ্ছে বলে সমকাল অনলাইনকে জানালেন ছবিটির পরিচালক মোস্তফা কামাল রাজ।  

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের কোন ছবি কানাডায় এতোগুলো শো নিয়ে যাত্রা করছে। সেখানে ছবিটির পরিবেশনার দায়িত্বে রয়েছে ‘স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো’। বিষয়টিকে বাংলাদেশের ছবির জন্য রেকর্ড হিসেবেই দেখছেন স্বপ্ন স্কেয়ারক্রোর বাংলাদেশ-এর প্রধান নির্বাহী সৈকত সালাহউদ্দিন।

‘যদি একদিন’ প্রযোজনা করেছে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া। এ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছে গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের। তার সঙ্গে রয়েছে কলকাতার নায়িকা শ্রাবন্তী ও ঢাকার তাসকিন রহমান। ছবিটির প্রাণ হিসেবে রয়েছে ছোট্ট মেযে রাইসা। 

পরিবেশক স্বপ্ন স্কেয়ারক্রোর পক্ষ থেকে জানানো হয়, কানাডার সব বড় শহর টরন্টো, মিসিসাগা, অটোয়া, ক্যালগেরি, এডমন্টন, ভ্যানকুভার, উইনিপেগ, সাস্কাটুন-এর একটি করে ‘সিনেপ্লেক্সে’ লোকেশনে চলবে সিনেমাটি।

এ বিষয়ে স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো এর প্রেসিডেন্ট মো. অলিউল্লাহ সজিব বলেন, এর আগে কানাডায় বাংলাদেশি সিনেমার ব্যবসায় ‘আয়নাবাজি’র রেকর্ড ভেঙেছে দেবী। ‘দেবী’-তে দর্শক উপস্থিতির যে মাইলফলক বাংলাদেশি সিনেমা স্পর্শ করেছে, পারিবারিক গল্পে নির্মিত সিনেমা ‘যদি একদিন’ সে রেকর্ড ভেঙে ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে।

স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো বাংলাদেশ এর প্রধান নির্বাহী সৈকত সালাহউদ্দিন বলেন, দেশে মুক্তি পেয়ে ‘যদি একদিন’ দর্শক-সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করেছে। লক্ষীসোনা, আমি পারবোনা তোমার হতেসহ গানগুলো দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। প্রধান শিল্পীসহ শিশুশিল্পী রাইসার অভিনয় সবার হৃদয় ছুঁয়েছে। আশা করছি কানাডায় বড় সফলতা পাবে ছবিটি।

‘যদি একদিন’-এর পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পুরো টিমের পক্ষ থেকে কানাডার দর্শকদের শুভেচ্ছা জানিয়ে হলে এসে সিনেমা উপভোগের আমন্ত্রণ জানান। ২০ মার্চ থেকে কানাডায় ছবিটির অগ্রিম টিকেট পাওয়া। অনলাইন ও সংশ্লিষ্ট সিনেমা হলের কাউন্টারে খোঁজ নিলেই আগ্রহীরা টিকেট পেয়ে যাবেন। এ জন্য 

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

শবনম ফারিয়ার 'যুদ্ধ দিনের প্রেম'


আরও খবর

বিনোদন

শবনম ফারিয়া

  বিনোদন প্রতিবেদক

বিয়ের পর অভিনয়ে নিয়মিত হয়েছেন মডেল অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। সম্প্রতি তিনি অভিনয় করলেন মুক্তিযুদ্ধের গল্পের একটি নাটকে। নাম 'যুদ্ধ দিনের প্রেম'। এটি পরিচালনা করেছেন সাইদুল ইসলাম রাসেল। পুবাইলে এর শুটিং শেষ হয়েছে।

নাটকে ফারিয়ার বিপরীতে দেখা যাবে ইরফান সাজ্জাদকে। ফারিয়া বলেন, 'যুদ্ধ ও প্রেমের গল্পই নাটকের মূল উপজীব্য। গল্পটি অসাধারণ। এর আগে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক নাটকে অভিনয় করেছি। এবারের কাজটিও বেশ ভালো হয়েছে। আশা করছি নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবে।

নাটকটি স্বাধীনতা দিবসে বাংলাভিশনে প্রচার হবে বলে নির্মাতা জানিয়েছেন। এই নাটকটি ছাড়াও ফারিয়া সম্প্রতি দুটি ধারাবাহিকে একসঙ্গে অভিনয় করেছেন। 'ফ্যামিলি ক্রাইসিস' নাটকটি পরিচালনা করছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। আর 'ফ্যামিলি অ্যালবাম' নাটকটি পরিচালনা করছেন ইমরাউল রাফাত। 

এতে অভিনয় প্রসঙ্গে ফারিয়া বলেন, ‘ধারাবাহিকে মাসের একটা নির্দিষ্ট সময়ে কাজের সিডিউল দিতে হয়। এতে অভিনয় করতে গিয়ে অনেক সময় ভালো গল্পের এক ঘণ্টার নাটকও মিস হয়ে যায়। সবকিছু মিলিয়েই ধারাবাহিকে কাজের আগ্রহ কম ছিল। নতুন ধারাবাহিকের গল্পটি অসাধারণ। তাই অভিনয়ে রাজি হয়েছি।'

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

উট থেকে পড়ে আহত অনন্ত জলিল


আরও খবর

বিনোদন

আহত অনন্ত জলিল

  বিনোদন প্রতিবেদক

ইরানে শুটিং হচ্ছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়ক অনন্ত জলিল প্রযোজিত ও অভিনীত ছবি ‘দিন দ্য ডে’। ছবিটির শুটিং করতে গিয়ে আহত হয়েছেন নায়ক অনন্ত জলিল। ইরানের হেরাতে অবস্থিত মরুভূমিতে উঠের পিঠে উঠে শুটিং করছিলেন তিনি। সেখানে উঠের পিঠ থেকে পড়ে দিয়ে বেশ আহত এ নায়ক। 

দ্রুত স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় অনন্ত জলিলকে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে  তেহরান থেকে ৩৪০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত ইরানের তৃতীয় বৃহত্তম নগরী এসফাহনে নিয়ে যাওয়া হয়।

চিকিৎসক জানিয়েছেন অনন্ত জলিল বুকের পাঁজরে মারাত্মক ব্যথা পেয়েছেন। তাকে দুই সপ্তাহের সম্পূর্ণ বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। তাই আপাতত ‘দিন-দ্য ডে’ ছবির শুটিং স্থগিত আছে বলে নিশ্চিত করেছেন ‘দিন-দ্য ডে’ ছবির ইরান অংশের মূল পরামর্শক ও উপদেষ্টা ড. মুমিত আল রশিদ। অসুস্থ শরীর নিয়ে ইতোমধ্যে অনন্ত জালিল বাংলাদেশে এসে পৌচেছেন বলেও জানান তিনি। 

জানা গেছে, দেশে ফেরার পর তাঁর বুকের ব্যথা আরও প্রকট আকার ধারণ করে। এরপর তাকে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসা নিচ্ছেন ঢাকাই ছবির এ আলোচিত নায়ক। 

বাংলাদেশ ও ইরানের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘দিন দ্য ডে।  ছবিটির বাংলাদেশ অংশের প্রযোজক অনন্ত।  ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ইরানে ছবিটির শুটিং শুরু হয়। ছবিটি পরিচালনা করছেন  ইরানের ফারাবি সিনেমা ফাউন্ডেশনের পরিচালক আলীরেজা তাবেশ।