অন্যান্য

নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ

প্রকাশ : ২৮ আগষ্ট ২০১৯ | আপডেট : ২৮ আগষ্ট ২০১৯

নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ

  বিনোদন প্রতিবেদক

বিশ্বের প্রতিটি দেশ থেকে তামাকের বিজ্ঞাপন, বিপণন বন্ধ করতে প্রতি বছর মে মাসে পালন করা হয় বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস। অনেক দেশে তামাকের বিজ্ঞাপনকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও বর্তমানে তামাক সেবনের দৃশ্য সম্বলিত চলচ্চিত্র বা টিভি সিরিজগুলোতে 'অ্যাডাল্ট রেটিং' দেয়ার পরামর্শও দিচ্ছেন বিশেষঙ্গরা।

তবে অনলাইন প্লাটফর্ম 'নেটফ্লিক্স' এই নিয়ম তোয়ক্কা করছে না। মার্কিন ধুমপানবিরোধী সংস্থা ট্রুথ ইনিশিয়েটিভ জুলাইয়ে করা এক গবেষণায় দেখা গেছে, নেটফ্লিক্স এর নিজস্ব প্রযোজনাগুলোতে ২০১৬-১৭ সালের সিজনের তুলনায় প্রায় তিনগুণ বেশী ধুমপানের দৃশ্য দেখিয়েছে। আর এসব শোগুলো ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সী কিশোর-তরুণদের মাঝে জনপ্রিয় ছিল।

২০১৫-১৬ সালের সঙ্গে তুলনা করলে দেখা যায়, ৯২ শতাংশ শোতে ধুমপানের দৃশ্য রয়েছে। কনক্যাভ ব্র্যান্ড ট্র্যাকিং বিশ্নেষণে দেখা যায়, নেটফ্লিক্সে 'স্ট্রেঞ্জার থিংস'-এর তৃতীয় সিজনে অন্তত একশটি ব্র্যান্ডের সিগারেট দেখানো হয়েছে। কানাডীয় এক গবেষণা বলছে, ২০০২ থেকে ২০১৮ সালের চলচ্চিত্রগুলোর কারণে ১৭ বছরের কমবয়সী অন্টারিওর এক লাখ ৮৫ হাজার জন ধুমপানে আসক্ত হয়েছেন। এর কারণে স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় বেড়েছে অন্তত ৯৯৫ মিলিয়ন ইউরো।

এদিকে যুক্তরাজ্যের অপফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ধুমপায়ী বিষয়ক গবেষক জেমি হার্টম্যান-বয়েস বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে অধুমপায়ীদের ধুমপানে আগ্রহী করতে বেশ সাফল্য দেখিয়েছে তামাকের বিজ্ঞাপন। আর এর পেছনে নেটফ্লিক্সের দায় রয়েছে। কারন এই মাধ্যমটি দিনকে দিন তরুনদের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তাই বিশ্ব তামাক সংস্থা থেকে নেটফ্লিপকে সাবধান করে দায়া হয়েছে। আর তা যদি না মানা হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করারও পরিকল্পনা আছে।'



মন্তব্য


অন্যান্য