অন্যান্য

দর্শকের আগ্রহে তুর্কি সিরিয়াল ‘জান্নাত’

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮

দর্শকের আগ্রহে তুর্কি সিরিয়াল ‘জান্নাত’

তুর্কি মেগা সিরিয়াল ‘জান্নাত’-এর একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহিত

  অনলাইন ডেস্ক

বাংলায় ডাবিংকৃত তুর্কি মেগা সিরিয়াল ‘জান্নাত’ প্রচার শুরুর পর থেকেই দর্শক আগ্রহের জায়গা তৈরি করেছে। রোববার থেকে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় এটিএন বাংলায় প্রচারিত হচ্ছে এই মেগা সিরিয়ালটি। দিনে দিনে সিরিয়ালটির জনপ্রিয়তা বাড়ছে বলে জানায় চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। 

‘জান্নাত’-এর কাহিনি আবর্তিত হয়েছে এক এতিম মেয়ের জীবনসংগ্রামকে কেন্দ্র করে। দারিদ্র্যের মধ্যে বড় হওয়া মেয়েটি যখন আর্কিটেক্ট হয়ে তার স্বপ্নের ফার্মে চাকরি পায়, তখন ভাবে অবশেষে তার জীবনের দুঃখ-দুর্দশা দূর হতে শুরু করেছে, সাফল্য ধরা দিতে শুরু করেছে। অথচ সেই চাকরি পাওয়ার ঘটনা থেকেই তার জীবনে নতুন করে জটিলতার সৃষ্টি হতে থাকে। তার অজানা অতীত ফিরে আসে তার এই জীবনে।

২০১৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তুর্কি ডেইলি সোপ ‘জান্নাত’-এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘সুরেজ ফিল্ম’। পরিচালনা করেছেন সাদুল্লাহ জেলেন। প্রচারিত হয়েছে তুরস্কের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় চ্যানেল ‘এটিভি’-তে। ডেইলি সোপটি মূলত নির্মাণ করা হয় জনপ্রিয় কোরিয়ান ডেইলি সোপ ‘টিয়ার্স অব হ্যাভেন’-এর কাহিনি অবলম্বনে। কোরিয়ান ডেইলি সোপটি পরিচালনা করেন য়ু জি-ওয়োন। কাহিনি রচনা করেন কিম ইয়োন-শিন।

‘জান্নাত’ বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে ডিজিটাল প্লাটফর্ম ‌‘বঙ্গ’। ডাবিং করেছে প্লাটফর্ম। পুরো ডাবিং প্রক্রিয়ার তত্ত্বাবধান করছেন সুলতান সুলেমান খ্যাত দীপক সুমন। আর পরিবেশনা করছে  ভি থ্রি কমিউনিকেশন্স প্রাইভেট লিমিটেড।

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

মধ্যরাতে প্রেমিকের বাড়িতে ভাঙচুর, সাংবাদিক শুনেই ফোন বন্ধ


আরও খবর

অন্যান্য

জেসিয়া ইসলাম

  অনলাইন প্রতিবেদক

ইউটিউবার সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে প্রেম করছেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭ বিজয়ী জেসিয়া। বছর খানেক আগে একটি রেডিওর লাইভ অনুষ্ঠানে তারা দু'জনই সেকথা নিশ্চিত করেন। ফেসবুকে নানা সময়ে তাদের কর্মকাণ্ড নিয়ে বিতর্কও তৈরি হয়।

এবার নতুন এক বিতর্কের জন্মদিলেন জেসিয়া।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। সে ভিডিওতে দেখা যায়, জেসিয়া ইসলাম মাঝরাতে সালমান মুক্তাদিরের বাড়িতে যান। বাসার গেটে গিয়ে নিরাপত্তারক্ষীদের দরজা খুলতে বলেন। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষীরা দরজা না খুললে রাগে দরজায় আঘাত করা শুরু করেন জেসিয়া। এক পর্যায়ে নিচে নেমে আসেন সালমানের মা। তাকে দরজা খুলতে বলা হলে তিনিও সেটি খোলেন নি। এরপর ইট দিয়ে বাসার সামনে ভাঙচুর শুরু করেন জেসিয়া।  

মধ্যরাতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে এমন কাণ্ডের বিষয়টি জানতে সমকাল অনলাইনের পক্ষ থেকে ফোন দেওয়া হয় জেসিয়াকে। সাংবাদিক পরিচয় জানার পরই নিজের ফোন বন্ধ করে দেন তিনি। এরপর সালমান মুক্তাদিরকে ফোন দিলে তার ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়।  

জেসিয়া ইসলাম ২০১৭ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ সুন্দরী প্রতিযোগিতার বিজয়ীর মুকুট অর্জন করেন। এরপরই আলোচনায় চলে আসে তার নাম।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

মন্ত্রীকে ঘিরে এক ঝাঁক তারকা


আরও খবর

অন্যান্য
মন্ত্রীকে ঘিরে এক ঝাঁক তারকা

প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি ২০১৯

ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে এক ঝাঁক তারকা

  অনলাইন ডেস্ক

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তার সঙ্গে  শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করতে আসেন শোবিজ জগতের এক ঝাঁক তারকা অভিনয়শিল্পী।  বনানীর নতুন বিআরটিএ ভবনে আসেন তারা। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অভিনয়শিল্পী সংঘের সভাপতি শহিদুল আলম সাচ্চু, অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা, আহসান হাবিব নাসিম, আজমেরী হক বাঁধন, দীপা খন্দকার, মীর সাব্বির, শমী কায়সার, আফসানা মিমি, সুইটি, মাহফুজ আহমেদ, বন্যা মির্জা, শাহরিয়ার নাজিম জয়, শামীমা তুষ্টিসহ অনেকেই। 

ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে করমর্দন করছেন অভিনেত্রী শমী কায়সার 

মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে অভিনয়শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন, ‘জনাব ওবায়দুল কাদের দ্বিতীয়বারের মতো তিনি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। এ জন্য আমরা তাকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়েছিলাম’

‘১৯৯৬ সালে তিনি সংস্কৃতি ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। সে কারণে তার সঙ্গে আমাদের একটা ভালো সম্পর্ক রয়েছে। বর্তমান সময়ে শিল্পীরা অনেক ধরনের সমস্যায় আছে সেসব বিষয়ে তাকে আমরা অবহিত করেছি। আমরা এরআগে তথ্যমন্ত্রীকে অভিনয়শিল্পী সংঘের কিছু দাবি দিয়েছিলাম। সেই দাবিগুলো আমরা তুলে ধরেছি। তিনি আমাদের দাবিগুলো পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন।’ যোগ করে বলেন অভিনয়শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক। 



পরের
খবর

নানা আয়োজনে পালিত হচ্ছে সেলিম আল দীন প্রয়াণ দিবস


আরও খবর

অন্যান্য

সেলিম আল দীন

  অনলাইন ডেস্ক

আজ নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের একাদশ প্রয়াণ দিবস। এ উপলক্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ, ঢাকা থিয়েটার দুই দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। আজ সকাল ১০টায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের আয়োজনে স্মরণ শোভাযাত্রা ও সেলিম আল দীনের সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। পরে দুপুর ১২টায় 'বারীণ ঘোষ-এর ক্যামেরায় সেলিম আল দীন' শিরোনামে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

দুপুর সাড়ে ১২টায় নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগে 'সেলিম আল দীন ও এই যে আমি : অন্তর্গত আলোক' শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। ওই আয়োজনে আলোচক হিসেবে রয়েছেন নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু, অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান, অধ্যাপক ড. আফসার আহমেদ এবং অধ্যাপক ড. রশীদ হারুন। বিভাগের থিয়েটার ল্যাবে দয়ালচাঁদ ঘোষের রচনায় ও ইউসুফ হাসান অর্কের নির্দেশনায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মঞ্চস্থ হবে নাটক 'চন্দ্রাবতী'। নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের আয়োজনে উৎসবের দ্বিতীয় দিন সকাল ১১টায় প্রদর্শিত হবে সঙযাত্রা। সন্ধ্যা ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে থাকছে ইসলাম উদ্দিন পালাকারের পরিবেশনায় বিশেষ পালাগান। 

আজ সেলিম আল দীনের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ঢাকা থিয়েটারের স্মরণ উৎসব আয়োজন অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। পরে আগামী ১৭ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় শিল্পকলা একাডেমিতে সেলিম আল দীনের রচনায় এবং ঢাকা থিয়েটারের প্রযোজনায় 'পুত্র' নাটকটি প্রদর্শিত হবে। পরদিন সেলিম আল দীনের লেখা 'শকুন্তলা'র ওপর একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। সন্ধ্যা ৭টায় 'পুত্র' নাটকটির চতুর্থ মঞ্চায়ন হবে। সেলিম আল দীন স্মরণে নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, 'বাঙালির নব নাট্যনন্দন ভাবনার উদ্যোক্তা, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার এবং ঢাকা থিয়েটারের স্বপ্নদ্রষ্টা সেলিম আল দীন। বাঙালিদের জাতীয় নাট্য আঙ্গিক নির্মাণের কাজ এবং নৃ-গোষ্ঠী শিল্পরীতিসমূহ অনুধাবনের ও ব্যবহারের কাজ সেলিম আল দীন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে প্রায় সম্পন্ন করেছেন। অকালপ্রয়াত এই শিল্পপ্রতিভা আমরণ শিল্প ও মানব কল্যাণে নিজেকে ব্যাপৃত রেখেছেন। রবীন্দ্র-উত্তর বাংলা নাটকের বিষয়, ভাষা ও আঙ্গিকে সেলিম আল দীন সবচেয়ে প্রতিভাবান ব্যক্তিত্ব। সত্তরের দশকের প্রথমার্ধে আবির্ভাবলগ্নেই তিনি বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, বাংলা নাটকের পরিচিত ও গতানুগতিক পথে হাঁটবেন না তিনি। তাই সূচনার সেলিম থেকে পরিণত সেলিম অনেক পরিবর্তিত, দশকে দশকে তিনি আবিস্কার করেছেন নাটকের নতুন নতুন পথ, কাঠামো ও চরিত্রসকল।' 

নাট্যাচার্যের প্রয়াণবার্ষিকী স্মরণে নাট্য সংগঠন স্বপ্নদল 'ঐতিহ্যের ধারায় রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীন, গ্রহণশেষে বাঙলা নাট্যের আসে নতুন দিন' স্লোগানে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজন করেছে ছয় দিনব্যাপী 'নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণোৎসব-২০১৯'। গত ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া উৎসবে আজ ও আগামীকাল অনুষ্ঠিত হবে 'রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীনের নাট্যদর্শন ও বাঙলা নাট্যরীতি' শীর্ষক বিশেষ নাট্যকর্মশালা। এ ছাড়া আজ স্মরণ-শোভাযাত্রা ও নাট্যাচার্যের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পাশাপাশি সন্ধ্যা ৭টায় শিল্পকলা একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে থাকছে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের রচনায় এবং স্বপ্নদলের প্রযোজনায় নাটক 'হরগজ'। এর নির্দেশনা দিয়েছেন জাহিদ রিপন।