অর্থনীতি

পুঁজিবাজারে দরপতন চলছেই

প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল ২০১৯ | আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০১৯

পুঁজিবাজারে দরপতন চলছেই

সোমবার দিন শেষে ডিএসইএক্স সূচকের অবস্থান

  অনলাইন ডেস্ক

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে সোমবারও দরপতন হয়েছে দেশের পুঁজিবাজারে।

এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডই দর কমে লেনদেন হয়। এর প্রভাবে পতন ঘটে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের সবগুলো সূচকেরই।

সোমবার ডিএসইতে ৩৪৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়। এর মধ্যে ৪৫টি দর বৃদ্ধির বিপরীতে দর কমেছে ২৭৩টির। আর আগের দিনের দরে লেনদেন হয়েছে ২৮টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতনের প্রভাবে এদিন ডিএসইর সবগুলো সূচকই ছিল নিম্নমুখী। এর মধ্যে ডিএসইএক্স সূচক আগের দিনের চেয়ে ৬১ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৭২ পয়েন্টে, ডিএসইএস সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৪০ পয়েন্টে ও ডিএস৩০ সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯২৪ পয়েন্টে নেমে এসেছে।

এ নিয়ে টানা ১১ সপ্তাহ ধরে ডিএসইর সূচকের পতন অব্যাহত রয়েছে। ২০০৮ সালের আগস্টের পর গত ১০ বছরে টানা ১০ সপ্তাহের বেশি দরপতন দেখা যায়নি। এমনকি ২০১০ সালের ডিসেম্বরের ভয়াবহ ধসে সূচক পতনের হার এখনকার চেয়ে বেশি থাকলেও টানা পতন এত দীর্ঘ হয়নি।

সোমবার দিন শেষে সিএসই৫০ সূচকের অবস্থান

ডিএসইতে এদিন ৪১৮ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে।

এদিকে ডিএসইর মতো সিএসইতেও সোমবার বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতনের মধ্য দিয়ে দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে।

এদিন সিএসইতে ২৪১টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৪২টি দর বৃদ্ধির বিপরীতে দর কমেছে ১৮০টির। আর আগের দিনের দরে লেনদেন হয়েছে ১৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

ডিএসইর মতো সিএসইর সবগুলো সূচকও ছিল নিম্নমুখী। এর মধ্যে সিএসই৫০ সূচক আগের দিনের চেয়ে ১৫ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ১৮৮ পয়েন্ট, সিএসই৩০ সূচক ২৪৬ পয়েন্ট কমে ১৪ হাজার ৩৮৭ পয়েন্ট, সিএসসিএক্স সূচক ১১২ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৭৮ পয়েন্ট, সিএএসপিআই সূচক ১৮৬ পয়েন্ট কমে ১৬ হাজার ৪৭৮ পয়েন্ট ও সিএসআই সূচক ১৫ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৯ পয়েন্টে নেমে আসে।

সিএসইতে সোমবার ১৫ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে।

মন্তব্য


অন্যান্য