অর্থনীতি

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সেই জিএম চাকরিচ্যুত

প্রকাশ : ০৫ মার্চ ২০১৯

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সেই জিএম চাকরিচ্যুত

২০১৭ সালের ৪ অক্টোবর 'কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক জিএম ১১ ব্যাংকে ঋণখেলাপি' শিরোনামে সমকালে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়

  সমকাল প্রতিবেদক

বিভিন্ন ব্যাংক ও সহকর্মীদের থেকে ঋণ নিয়ে খেলাপি হওয়া বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) প্রভাষ চন্দ্র মল্লিককে চাকরিচ্যুত করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সমকালে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সূত্র ধরে বিভাগীয় তদন্ত শেষে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মানবসম্পদ বিভাগের এক আদেশে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। এর ফলে তিনি চাকরিপরবর্তী কোনো সুযোগ-সুবিধা পাবেন না।

২০১৭ সালের ৪ অক্টোবর 'কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক জিএম ১১ ব্যাংকে ঋণখেলাপি' শিরোনামে সমকালে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এটি প্রকাশের পর ৯ অক্টোবর তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এর পর তদন্ত দল গঠন করে বাংলাদেশ ব্যাংক। তদন্তে প্রতিবেদনের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় এখন চূড়ান্তভাবে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের আদেশে বলা হয়, বগুড়া অফিসের সাময়িক বরখাস্ত করা মহাব্যবস্থাপক প্রভাষ চন্দ্রের বিরুদ্ধে মানবসম্পদ বিভাগের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

সংশ্নিষ্টরা জানান, উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের পূর্বানুমোদন ছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারেন না। নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে প্রভাষ চন্দ্র ঋণ নিয়ে খেলাপি হয়ে পড়েন। বিভিন্ন ব্যাংক থেকে পাওয়া তথ্যে দেখা যায়, ২০১৭ সালের জুলাই পর্যন্ত ১৫টি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে তার ঋণের পরিমাণ ছিল ৮৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা, যার সবই খেলাপি। শুধু ব্যাংক নয়; নানা কৌশলে সহকর্মীদের কাছ থেকেও অনেক টাকা ধার নিয়ে আর ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে।

আরও পডুন

মন্তব্য


অন্যান্য