ঢালিউড

ঢাকাই চলচ্চিত্র

নির্মাণ শুরু থেকেই আলোচনায়

প্রকাশ : ১৪ জুলাই ২০১৯ | আপডেট : ১৪ জুলাই ২০১৯

নির্মাণ শুরু থেকেই আলোচনায়

  অনিন্দ্য মামুন

'ভালো ছবি তৈরি হচ্ছে না'- এমন কথা যখন অনেকের মুখে, তার পরও আশার আলো দেখাচ্ছে 'সাপলুডু', 'মিশন এক্সট্রিম', 'ঢাকা ২০৪০', 'বিউটি সার্কাস', 'ন ডরাই'সহ আরও বেশ কিছু ছবি। নির্মাণের শুরু থেকে এ ছবিগুলো নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। ছবিগুলো মুক্তি পেলে চলচ্চিত্রশিল্প ঘুরে দাঁড়াবে এমন মত অনেকের। বলা হচ্ছে, 'আয়নাবাজি', 'অজ্ঞাতনামা', 'ঢাকা অ্যাটাক', 'শিকারি'র মতো ছবিগুলো যেভাবে চলচ্চিত্রের হিসাব-নিকাশ বদলে দিয়েছিল, নির্মাণাধীন এ ছবিগুলোও তার পুনরাবৃত্তি ঘটাবে। এবার আলোচনা করা যাক ছবিগুলো নিয়ে।

সাপলুডু :আরিফিন শুভ ও বিদ্যা সিনহা মিম জুটির নতুন ছবি 'সাপলুডু'। ছবিটি নির্মাণ করেছেন ছোট পর্দার পরীক্ষিত নির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল। বছরের শুরুতে প্রকাশিত হয়েছে 'সাপলুডু'র টিজার। এর পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই পড়ে যায় এ ছবি নিয়ে। পরিচালকের কথায়, টিজার যাদের মুগ্ধ করেছে, তাদের আরও অনেক কিছু দেখার বাকি আছে। 

মিশন এক্সট্রিম : 'ঢাকা অ্যাটাক' ছবির সাফল্যের পর নির্মিত হচ্ছে আরেকটি পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার ছবি। নাম 'মিশন এক্সট্রিম'। একই টিম কাজ করলেও এটি 'ঢাকা অ্যাটাক' ছবির সিক্যুয়েল নয় বলে জানান নির্মাতা। 'মিশন এক্সট্রিম' অ্যাকশনধর্মী মৌলিক গল্পের ছবি হবে বলে জানান, 'ঢাকা অ্যাটাক' ছবির সংলাপ রচয়িতা ও চিত্রনাট্যকার সানী সানোয়ার। প্রথম ছবিতে তিনি কাহিনীকার হিসেবে যুক্ত থাকলেও 'মিশন এক্সট্রিম'-এ তিনি কাহিনীকারের পাশাপাশি পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। তার সঙ্গে নির্মাতা হিসেবে আরও আছেন ফয়সাল আহমেদ। ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ, তাসকিন রহমান, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, মনোজ প্রামাণিক, সাদিয়া নাবিলা প্রমুখ। দেশে এবং দুবাইয়ে শুটিং করা হয়েছে। এ ছবিও বছরের শেষ প্রান্তে মুক্তি দেওয়া হবে বলে জানান নির্মাতা। 

ঢাকা ২০৪০ :'ঢাকা অ্যাটাক' নির্মাতা দীপংকর দীপনের পরবর্তী চমক 'ঢাকা ২০৪০'। ২০ জুন আনুষ্ঠানিক মহরতের মাধ্যমে শুরু হয় স্বপ্নের ঢাকা দেখানোর নতুন এ মিশন। এরপর এফডিসিতে শুরু হয় ছবিটির শুটিং। প্রথম লটের শুটিং শেষ হয়ে ছবিটি এখন দ্বিতীয় লটের শুটিং শুরুর অপেক্ষায়। এতে প্রধান তিন চরিত্রে অভিনয় করছেন বাপ্পি চৌধুরী, নুসরাত ইমরোজ তিশা ও নুসরাত ফারিয়া। একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে এবিএম সুমনকে। এ ছবি নিয়ে এরই মধ্যে দর্শক আলোচনা শুরু হয়েছে। বলা হচ্ছে, অভিনেতা বাপ্পি চৌধুরীর পুনরুর্জীবনের ছবি হবে এটি। আরও যারা অভিনয় করছেন, তাদের কাছেও ছবিটি ক্যারিয়ারের মাইলফলক হতে পারে। 

ন ডরাই :'সার্ফিং' নিয়ে নির্মিত দেশের প্রথম চলচ্চিত্র 'ন ডরাই'। ছবির প্রথম ঝলক প্রকাশের পর থেকেই দর্শক আলোচনা শুরু হয়েছে। স্টার সিনেপ্লেক্সের প্রযোজনায় ছবিটি পরিচালনা করেছেন তানিম রহমান অংশু। চিত্রনাট্য লিখেছেন কলকাতার শ্যামল সেনগুপ্ত। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শরিফুল রাজ, সুনেরা বিনতে কামাল প্রমুখ। 'একজন নারী সার্ফারের জীবন থেকে উৎসাহিত হয়ে লেখা হয়েছে এ ছবির গল্প। ছবির নব্বই ভাগ দৃশ্য ধারণ হয়েছে কক্সবাজারে। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত এ ছবিটি অক্টোবরে মুক্তি পাবে বলে জানান এর প্রযোজক। 

বিউটি সার্কাস :জয়া আহসান অভিনীত 'বিউটি সার্কাস' ছবি নিয়ে দর্শক আগ্রহ চোখে পড়েছে সবচেয়ে বেশি। কারণ এবারই প্রথম সার্কাস কর্মীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন নন্দিত এ অভিনেত্রী। ছবির টিজারে নতুন এক জয়াকে আবিস্কার করেছেন দর্শক, যার প্রেক্ষিতে ছবি নিয়ে দর্শক কৌতূহল বেড়েই চলেছে। ভক্তদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ছবিটি শিগগির মুক্তি দেওয়া হবে বলে নির্মাতা জানিয়েছেন। উল্লিখিত ছবিগুলো ছাড়াও শাকিব খানকে নিয়ে নির্মাণাধীন 'বীর', 'পাসওয়ার্ড-টু', 'ফাইটার' ও 'প্রিয়তমা' ছবিগুলো নিয়ে দর্শকের মধ্যে আলোচনা শোনা যাচ্ছে। এর বাইরেও এ বছর মুক্তি পেতে যাওয়া শাকিব-বুবলী জুটির 'মনের মতো মানুষ পাইলাম না', বাপ্পি-জলির 'ডেঞ্জার জোন', সিয়াম-পূজার 'শান' এবং পরীমনি অভিনীত 'বিশ্বসুন্দরী' ছবির সাফল্য নিয়েও অনেকে আশা প্রকাশ করেছেন।

মন্তব্য


অন্যান্য