ঢালিউড

চলচ্চিত্রের জন্য আমি পুরোপুরি প্রস্তুত: মিথিলা

প্রকাশ : ১০ জানুয়ারি ২০১৯ | আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

চলচ্চিত্রের জন্য আমি পুরোপুরি প্রস্তুত: মিথিলা

চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত মিথিলা

  অনলাইন ডেস্ক

রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। মডেল ও অভিনেত্রী। গতকাল ধ্রুব মিউজিক স্টেশন থেকে প্রকাশ হয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র 'মুখোমুখি'। এতে তার সহশিল্পী কলকাতার গৌরব চক্রবর্তী। কথা হলো তার সঙ্গে-

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র 'মুখোমুখি' নিয়ে বলুন? 

এটি একটি প্রেমের গল্প নিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। পুরো গল্পের মধ্যে দারুণ একটা চমক আছে, যা দর্শকের কাছে খারাপ লাগবে না। এই স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিটির দৃশ্যধারণ হয়েছে কলকাতায়। তবে গল্পে কিন্তু আমাকে বাংলাদেশি মেয়ে হিসেবেই দেখানো হয়েছে। এতে আমার সহশিল্পী ছিলেন কলকাতার অভিনেতা গৌরব। তাকে সহশিল্পী হিসেবে পেয়ে বেশ ভালো লেগেছে। দারুণ অভিনয় করেন তিনি। আমার এই স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিটি পরিচালনা করেছেন কলকাতার পরিচালক পার্থ সেন। 

মিথিলা

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের কাজে আগ্রহী হলেন কেন?

যে যা-ই বলুন না কেন, স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে অভিনয় আমার ভালো লাগে। কারণ এতে অল্প সময়ে একটা গল্প বলতে হয়। তাই অভিনয়, উপস্থাপন সবকিছুই ভালো হতে হয়। আমার কাছে এও মনে হয়, একটি নাটক নির্মাণ করতে পরিচালককে কত পরিশ্রম আর কত টাকা খরচ করতে হয়। সেদিক থেকে চিন্তা করলে কোনো ঝামেলা ছাড়াই বেশি বেশি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র করা যায়। এতে ছোট্ট একটা গল্প থাকে, যা দেখে দর্শকরাও মজা পান। আর এখন মানুষের এত সময় নেই। ফলে স্বল্পদৈর্ঘ্যই তারা পছন্দ করেন।

শুনলাম এর কাজের জন্য জীবনের প্রথমবার কলকাতায় গিয়েছেন?

ঠিকই শুনেছেন। আমার কাছে এই স্বল্পদৈর্ঘ্যে অভিনয়টা স্মরণীয় হয়ে থাকবে এ কারণেই যে, এর শুটিং করতেই এবার প্রথমবারের মতো কলকাতায় গিয়েছি। ফলে বেশ কয়েকদিন সেখানে থাকতে হয়েছে। সেখানকার নিউমার্কেটে আমাদের দেশের অনেকের সঙ্গেই দেখা হয়েছে। পাশাপাশি অনেক বাংলাদেশির সঙ্গে সেলফিও তুলেছি। কাজটি খুব উপভোগ করেছি। আশা করি, দর্শকদের ভালো লাগবে। 

মিথিলা

সম্প্রতি নতুন একটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করলেন ...

হ্যাঁ, সৈয়দ আপন আহসানের পরিচালনায় আইএফআইসি ব্যাংকের নতুন সেবা 'আমার অ্যাকাউন্ট'-এর বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছি। কোক স্টুডিওতে এর দৃশ্যধারণ হয়েছে। শুটিংয়ের পুরোটা সময় আপন ভাইয়ের স্ত্রী অভিনেত্রী ত্রপা মজুমদার সঙ্গে ছিলেন। যে কারণে গল্পে গল্পে দারুণ একটা সময় পার করেছি। পাশাপাশি এবারই প্রথম আপন ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করলাম। তিনি বেশ গুছিয়ে কাজ করেন। পুরো ইউনিটের আন্তরিকতায় আমি মুগ্ধ হয়েছি।

আমাদের দেশের আগের বিজ্ঞাপন ও এখনকার বিজ্ঞাপনের মধ্যে পার্থক্য দেখেন? 

আমার মনে হয়, এখন কিন্তু আমাদের দেশে অনেক ভালো বিজ্ঞাপন হচ্ছে। আসলে বিজ্ঞাপনের প্রধান কাজই তো পণ্যকে ভোক্তার কাছে তুলে ধরা। সে জায়গা থেকে আগের চেয়ে গল্প বলা ও ভিজ্যুয়ালি উপস্থাপনের ধরনে বেশ পরিবর্তন এসেছে। আর ভালো বিজ্ঞাপন কিন্তু আগেও নির্মিত হতো। তবে যখন থেকে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, অমিতাভ রেজার মতো মেধাবী নির্মাতারা গল্পকেন্দ্রিক বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাণ শুরু করলেন, মূলত তখন থেকেই বাংলাদেশের বিজ্ঞাপনে ভিজ্যুয়ালিতে বেশ ইতিবাচক পরিবর্তন আসে।

চলচ্চিত্রে অভিনয় নিয়ে বলুন?

চলচ্চিত্রে কাজের জন্য আমি মানসিকভাবে পুরোপুরি প্রস্তুত। ভালো গল্প, গুণী পরিচালক এবং অন্যান্য কিছু ব্যাটে-বলে মিলে যায়, তাহলে হয়তো শিগগিরই চলচ্চিত্রে অভিনয় করব।

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে নিষেধাজ্ঞা চাইবে দুদক


আরও খবর

ঢালিউড

'ভুল আসামি' হয়ে ২৬ মামলায় তিন বছর কারাগারে থাকার পর হাইকোর্টের আদেশে মুক্তি পাওয়া জাহালম

  সমকাল প্রতিবেদক

'ভুল আসামি' হয়ে ২৬ মামলায় তিন বছর কারাগারে থাকার পর হাইকোর্টের আদেশে মুক্তি পাওয়া জাহালমকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের উপর নিষেধাজ্ঞার আবেদন করবে র্নীতিমন কমিশন (দুদক)।  মঙ্গলবার হাইকোর্টের সংশ্নিষ্ট শাখায় হলফনামা দিয়ে এই আবেদন করা হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশী আলম খান।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, 'সম্প্রতি দুটি সংবাপত্রের খবরে এসেছে জাহালমের জীবনের গল্প নিয়ে সিনেমা বানাতে যাচ্ছেন কোনো এক পরিচালক। এখানে দুদকের আপত্তি হচ্ছে, জাহালমের ঘটনাটি এখনো বিচারাধীন। ফলে বিচারাধীন বিষয় নিয়ে সিনেমা হতে পারে না। এ জন্যুটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে ওই চলচ্চিত্র নির্মাণের উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে একটি আবেদন প্রস্তুত করা হয়েছে। মঙ্গলবার হলফনামা আকারে ওই আবেদন হাইকোর্টে দাখিল করা হবে।'

গত ৩ ফেব্রয়ারি সব মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে ওইদিনই জাহালমকে মুক্তির নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। ওই আদেশের কয়েক ঘণ্টা পরই কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। আবু সালেক নামে একজনের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ২৬টি মামলা রয়েছে।

কিন্তু আবু সালেকের বদলে জেল খাটেন টাঙাইলের পাটকল শ্রমিক জাহালম। পরে এ বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে হাইকোর্ট তাকে মুক্ত করার নির্দেশ দেন। এরপরই জাহালমের জীবনের গল্প নিয়েই চলচ্চিত্র নির্মাণের সিদ্ধান্তের কথা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমকে জানান মারিয়া তুষার নামের একজন নির্মাতা। এরই মধ্যে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে নাম নিবন্ধনও করেছেন এই পরিচালক। জাহালমের নামের সঙ্গে মিলিয়ে ছবির নাম ঠিক করেছেন 'জাহালম'।


সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক নতুন চলচ্চিত্রে বন্যা মির্জা


আরও খবর

ঢালিউড

বন্যা মির্জা

  বিনোদন প্রতিবেদক

নতুন একটি ছবিতে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী বন্যা মির্জা। ইতোমধ্যে ছবিটির প্রথম লটের শুটিং শেষ হয়েছে। ভৈরবের আশে পাশের এলাকায় শুটিং হচ্ছে ছবিটির। 

স্বাধীনতা পুরস্কার, একুশে পদকসহ বহু পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত দেশের গুণী কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের ‘ঘর গেরস্থি’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে একই শিরোনামে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক এই চলচ্চিত্রটি।

ছবিটি পরিচালনা করছেন  মাসুদুর রহমান রামিন। চিত্রনাট্য লিখেছেন আরেক নির্মাতা আকরাম খান। এর আগে আকরাম খান হাসান আজিজুল হকের খাঁচা ছোটগল্প থেকে একই শিরোনামের ছবি পরিচালনা করে প্রশংসিত হয়েছেন।  

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ঘর গেরস্থি চলচ্চিত্রে মুক্তিযুদ্ধের গল্প তুলে ধরা হচ্ছে বলে সমকালকে জানালেন বন্যা মির্জা। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের কিছু ঘটনা নিয়ে হাসান আজিজুল হকের লেখা অসাধারণ একটি গল্পগ্রন্থ ঘর গেরস্থি। মলাটবন্দী ঘর গেরস্থি এবার সেলুলয়েডে বন্দী হচ্ছে। তার মতো এত বড় মাপের একজন সাহিত্যিকের লেখা গল্প থেকে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়া অনেক বড় প্রাপ্তি আমার জন্য। আশা করছি, দর্শক ভালো মানের একটি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র হবে। 

একটি একটি চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে ভালো লাগাও প্রকাশ করেছেন বন্যা মির্জা। 



সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

পরিবার বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছে, ভারতে গিয়ে জানালেন জয়া


আরও খবর

ঢালিউড

জয়া আহসান

  বিনোদন ডেস্ক

জয়া আহসান। বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ দুই জায়গাতেই সমান তালে কাজ করছেন। গত ১৫ মার্চ ভারতের প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর বিনোদন ও লাইফস্টাইলভিত্তিক ম্যাগাজিন ‘ইনডালজ’ এ জয়াকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যে প্রতিবেদনে নানা বিষয় কথা বলেন জয়া। সেখানে যে ছবিগুলো প্রকাশিত হয় সেগুলোও হয়েছে আলোচিত। কারণ বাংলাদেশ এমন ফটোশুটে জয়াকে দেখা যায়নি কখনও। ফটোশুটে জয়া বেশ  আবেদনময়ী হয়ে হাজির হয়েছেন।

প্রতিবেদনে জয়া বলেন, অবসর সময় তার পোষা কুকুর ক্লেওর সঙ্গে কাটাতে পছন্দ তার। শুটিংয়ের ব্যস্ততা না থাকলে নিজের মধ্যে থাকেন তিনি। নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। বাগানের যত্ন নেন। নিজের আরও অনেক কিছু। 

জয়া আহসান

কাজের বাইরের এ সময়টাতে গণমাধ্যম থেকে দূরে থাকতেই পছন্দ বলে জানান জয়া। সেখানে জয়া তার আরেকটি পোপন খবর বলেছেন। সেটা হচ্ছেন জয়া নাকি ভীষণ লাজুক। তার এ খবর জানেন না কেউ। 

কলকাতায় এখন নিয়মিত কাজ করছেন জয়া। সেখানে নায়িকাদের সঙ্গে তার ভালো সম্পর্কের কথা জানিয়েছেন তিনি। তেমন কোন ছেলে বন্ধু নেই তার। নেই প্রেম করার সময়ও। 

প্রেমের সময় নেই, তাহলে কি বিয়ের কথা ভাবছেন না অভিনেত্রী? পছন্দের কেউ কি তবে নেই? প্রশ্ন শুনে জয়া  হেসে উঠেন। বলেন, ‘এখন পর্যন্ত না। বিয়ের পরেও করা যাবে। এত দ্রুত আমি ঘরোয়া পরিবেশে নিজেকে বন্দী করতে চাচ্ছি না। আমি আরও কাজ করতে চাই। পরিবার থেকে অবশ্য বিয়ের চাপ আসছে। কিন্তু আমি না শোনার ভান করে বসে থাকি।’

জয়া আহসান

পরের প্রশ্ন আসে, তিনি তার জীবনসঙ্গীর কাছে কী কী গুণ আশা করেন? জয়া বললেন, ‘আমি চেহারাকে এত গুরুত্ব দেই না। আমার জীবনসঙ্গীকে অবশ্যই বিচক্ষণ, অনুভূতিশীল এবং প্রতিশ্রুতিশীল মানুষ হতে হবে। একজন সৃজনশীল ব্যক্তিকে কদর করার মতো মন-মানসিকতা থাকতে হবে তার।’

এদিকে সম্প্রতি জয়া আহসান কলকাতার ‘বিনি সুতোয়’ ছবির কাজ শেষ করেছেন। এতে তার বিপরীতে আছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। ছবিটির ডাবিং শুরু হবে কিছু দিনের মধ্যে। 

 অন্যদিকে বাংলাদেশে জয়া আহসান অভিনীত ‘বিউটি সার্কাস’ ছবির ফার্স্টলুক প্রকাশ পেয়েছে। এতে সার্কাসকন্যা ‘বিউটি’ রূপে দেখা গেছে জয়াকে।  

সংশ্লিষ্ট খবর