ঢাকা

ঘাটাইলে মসজিদের মালিকানা দাবি করে দরজায় তালা

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৯ | আপডেট : ১০ জুন ২০১৯

ঘাটাইলে মসজিদের মালিকানা দাবি করে দরজায় তালা

তালা ঝুলিয়ে দেওয়া সেই মসজিদ -সমকাল

  ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা

বিদেশি ও ব্যক্তি অর্থায়নে নির্মিত একটি মসজিদের মালিকানা দাবি করে দরজায় তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন আ. ছালাম নামের এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া ইউনিয়নের চরবকশিয়া গ্রামে। 

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে গ্রামের মানুষ। এ নিয়ে তাদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

লিখিত অভিযোগ ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, চরবকশিয়া গ্রামে ২০১৫ সালে বিদেশি অর্থায়নের সঙ্গে দুবাই প্রবাসী বেলাল হোসেন মোটা অংকের অনুদান দিয়ে মসজিদটি নির্মাণ কাজে সহযোগীতা করেন। কিছুদিন আগে বেলাল হোসেন মসজিদটি তার নিজের বলে দাবি করেন। মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে না জানিয়ে আগের ইমামকে বাদি দিয়ে আ. ছলামের মাধ্যমে মসজিদের তিন দরজায় তিনটি তালা ঝুলিয়ে দেন। পরে পছন্দমতো ইমাম নিয়োগ দেন। কিন্তু সেই ইমামের পেছনে গ্রামের মাত্র তিনজন মানুষ নামাজ আদায় করেন। এভাবেই চলছে মসজিদের কার্যক্রম। 

গ্রামের কলেজ শিক্ষক হেলাল উদ্দিন জানান, ব্যাক্তি মালিকানা দাবি করে গ্রামের সব মানুষ যাতে নামাজ আদায় করতে না পারেন সেজন্য অনেক দিন যাবত মসজিদে তালা দিয়ে রেখেছেন। 

আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি বলেন, এখন আমরা অন্য গ্রামে গিয়ে নামাজ পড়ি। 

বর্তমানে মসজিদের দায়িত্বে থাকা আ. ছালাম বলেন, নামাজের সময় তালা খুলে দেওয়া হয়। 

এ বিষয়ে ঘাটাইল উপজেলা জামে মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ জোবায়ের হোসেন বলেন, শরিয়তের পরিভাষায় ইবাদতের জন্য মসজিদ সবার জন্য উন্মুক্ত। কেউ ব্যক্তি মালিকানা দাবি করলে, তিনি কত বড় ভুল পথে আছে তা নিজেও জানেন না। আল্লাহতালা কোরআনে একাধিকবার বলেছেন, ’পৃথিবীতে যত মসজিদ আছে সব আমার’ 

লোকেরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান শরিফ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। পারিবারিক কারণে ভাই ভাইকে মসজিদে যেতে দেন না। ভাইদের কারণে সমাজে এমন জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য


অন্যান্য