ঢাকা

বাবা দিবসে হারিয়ে যাওয়া সন্তান ফিরে পেলেন তিনি

প্রকাশ : ১৬ জুন ২০১৯ | আপডেট : ১৬ জুন ২০১৯

বাবা দিবসে হারিয়ে যাওয়া সন্তান ফিরে পেলেন তিনি

হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ন বাবা- সমকাল

  পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি

নরসিংদীর পলাশে দুই বছর আগে হারিয়ে যাওয়া শিশু সন্তান রুবেলকে (৮) ফিরে পেলেন তার বাবা শফিকুল ইসলাম। বাবা দিবসে সন্তানকে ফিরে পেয়ে বাবা-ছেলে উভয়ই আনন্দে কান্নায় ভেঙে পড়েন। রোববার দুপুরে পলাশ থানায় বাবা-ছেলের আনন্দের কান্নায় উপস্থিত সকলের চোখেও পানি এসে যায়।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মকবুল হোসেন মোল্লা সমকালকে জানান, গত ১২ জুন রাতে পলাশ থানা পুলিশ টহল ডিউটিতে গেলে পলাশের জিনারদী রেল ষ্টেশনে একটি শিশুকে কান্নাকাটি করতে দেখতে পায়। পুলিশ সেখান থেকে তাকে থানায় নিয়ে আসে। শিশুটি তার নাম রুবেল, বাবার নাম শফিকুল, মার নাম মর্জিনা ও বাড়ি রংপুর ছাড়া আর কিছুই বলতে পারে না। পরে রুবেলের বাবা গত শুক্রবার বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রুবেলের সন্ধান পাওয়া গেছে জেনে পলাশ থানায় ফোন করেন। রোববার দুপুরে তার বাবা শফিকুল রুবেলের বাবা-মার সাথে ছবি, জন্মনিবন্ধন কার্ড, ও বিভিন্ন প্রমাণসহ রুবেলের স্কুলের সভাপতি ও ঐ এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন সর্দারকে সাথে নিয়ে থানায় আসলে পলাশ উপজেলার চেয়ারম্যান সৈয়দ জাবেদ হোসেনের উপস্থিতিতে শিশুটিকে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শিশু রুবেলের বাবা শফিকুল জানান, তার বাড়ি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থানার ওযুরখাই গ্রামে। পেশায় সে একজন ভ্যান চালক। শিশু রুবেলই তাদের একমাত্র সন্তান এবং ওযুরখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র ছিল। সে ২০১৭ সালের ১ এপ্রিল তারিখে সকালে স্কুলে যাবার পথে নিঁখুজ হয়। অনেক জায়গায় খোঁজ করার পরও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

শফিকুল বলেন, আমাদের সন্তান নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে আমার স্ত্রী মর্জিনা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে পাগলের মতো হয়ে যায়। গত শুক্রবার রুবেল নামে একটি শিশুকে পাওয়া গেছে বিভিন্ন পত্রিকায় ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন সংবাদ পেয়ে পলাশ থানায় যোগাযোগ করি এবং রোববার আমার সন্তানকে নিতে আসি।

হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে দুই বছর পর ফিরে পেয়ে পলাশ থানা পুলিশ ও সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন শফিকুল।

মন্তব্য


অন্যান্য