ঢাকা

তিউনিসিয়ায় নৌকাডুবিতে মাদারীপুরের নিহত ও নিখোঁজদের বাড়িতে শোকের মাতম

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৯ | আপডেট : ১৫ মে ২০১৯

তিউনিসিয়ায় নৌকাডুবিতে মাদারীপুরের নিহত ও নিখোঁজদের বাড়িতে শোকের মাতম

নিহত সজিবের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম

  সাগর হোসেন তামিম, মাদারীপুর

লিবিয়া হয়ে ইতালি যাওয়ার পথে তিউনিসিয়ার সাগরে নৌকাডুবির ঘটনায় মাদারীপুরের নিহত সজিবের গ্রামের বাড়িতে চলছে মাতম। এছাড়া এ ঘটনায় নিখোঁজ আরও অন্তত পাঁচ যুবকের পরিবারেও চলছে কান্নার রোল। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, বছরখানেক আগে অবৈধভাবে লিবিয়া যান মাদারীপুরের কয়েক যুবক। এরপর অবৈধভাবে সমুদ্রপথে লিবিয়া হয়ে ইতালি যাওয়ার সময় সোমবার রাতে তিউনিসিয়ায় সাগরে নৌকাডুবি হয়। এতে অনেক বাংলাদেশি নিহত ও নিখোঁজ হন। 

এর মধ্যে মাদারীপুর সদর উপজেলার শিরখাড়া ইউনিয়নের উত্তর শিরখাড়া এলাকার আজিজ শিকদারের ছেলে সজিব হোসেন (২০) মারা যান। নিখোঁজ হন একই উপজেলার বল্লভদী এলাকার আদেল উদ্দিন মাতুব্বরের ছেলে মনির হোসেন মাতুব্বর (২১), শ্রীনদী এলাকার জোবায়ের মাতুব্বরের ছেলে নাদিম মাতুব্বর (১৬), সদর উপজেলার মঠেরবাজার এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে সাইফুর ইসলাম (২৩), মাদারীপুরের শিবচর দত্তপাড়া ইউনিয়নের চরগ্রামের সেকান্দার হাওলাদারের ছেলে জাকির হোসেন (২৮) ও আলম দস্তার গ্রামের জাফর সিকদারের ছেলে নাইম সিকদার (১৯)। 

দ্রুত নিহতের লাশ দেশে আনার পাশাপাশি নিখোঁজদের ফিরে পেতে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন স্বজনরা। 

গত বছর এই দিনে পরিবারের মুখে হাসি ফোটাতে অর্থ উপার্জনের জন্য নূর-নবী খলিফা ও নূর ইসলাম খলিফা নামের দুই দালালের হাত ধরে শিবচর দত্তপাড়া ইউনিয়নের জাকির বিদেশে পাড়ি জমান। নিখোঁজ জাকিরকে স্থলপথে তুরস্ক নেওয়ার কথা থাকলেও, দালাল চক্র লিবিয়া নিয়ে আটকে রাখে। লিবিয়ায় জাকিরকে আটক রেখে পরিবারকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিভিন্ন সময় টাকা দাবি করে দালালরা। টাকা দিতে অস্বীকার করলে জাকিরকে বিক্রি করে দেবে বলে হুমকি দিতে থাকে তারা। এ পর্যন্ত পরিবারের কাছ থেকে প্রায় ৮ লাখ ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে দালাল চক্র। 

গত বৃহস্পতিবার ভূমধ্যসাগরে লিবিয়া উপকূল থেকে ৭৫ জন অভিবাসী নিয়ে ইটালির উদ্দেশে রওনা হওয়া নৌকাডুবিতে নিখোঁজ হন জাকির। জাকির হোসেনকে হারিয়ে এখন দিশেহারা পরিবারের লোকজন। স্বামীকে হারিয়ে কান্না যেন থামছেই না স্ত্রী শান্তা আক্তারের। এদিকে সন্তান নৌকাডুবিতে নিখোঁজ হওয়াকে যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না নিহত জাকিরের বাবা-মামা। 

দালালদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেছেন এলাকাবাসী। যাতে আর কোনো দালালচক্র এমনভাবে গ্রামের সহজ-সরল যুবকদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে না দেয়।

এ ব্যাপারে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি মাদারীপুর শাখার যুব প্রধান শিশির হোসেন জানান, তিউনিসিয়ার উপকূলের কাছে নৌকাডুবির ঘটনায় এ পর্যন্ত মাদারীপুরের কয়েকজনের নাম জানা গেছে। সজিব নামে একজনের নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। আমরা নিহত ও নিখোঁজদের বাড়িতে গিয়ে তথ্য নিয়েছি।

মন্তব্য


অন্যান্য