ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

ভারতের সঙ্গে হারার পর আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন পাকিস্তান কোচ

প্রকাশ : ২৫ জুন ২০১৯

ভারতের সঙ্গে হারার পর আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন পাকিস্তান কোচ

ফাইল ছবি

  স্পোর্টস ডেস্ক

ছয় ম্যাচ শেষে পয়েন্ট পাঁচে নিয়ে যেতে পারে পাকিস্তান এখন খুশি। সেমিফাইনালের আশা এখনও জিইয়ে আছে। তবে ঠিক এক সপ্তাহ আগে পরিস্থিতি ছিল সম্পূর্ণ প্রতিকূলে। ১৬ জুন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ভারতের কাছে ৮৯ রানে হারের পর গোটা পাকিস্তান দলের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছিল। দলের দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ মিকি আর্থার জানালেন, আত্মহত্যার ভাবনাও নাকি তার মনের মধ্যে ঢুকে গিয়েছিল! 

রোববার দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪৯ রানে হারিয়ে দলের পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন আর্থার। আগের সপ্তাহের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, 'গত রোববারে তো আমি আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলাম। তবে জানতাম, একটা পারফরম্যান্সই কেবল দরকার। সবাইকে বলছিলামও, একটা ভালো ম্যাচ দরকার। ছেলেগুলো (ক্রিকেটার) তখন অবিশ্বাস্য রকমের কষ্টের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল; মিডিয়া, সাধারণ মানুষ, সামাজিক মাধ্যমের আঘাতে জর্জরিত হয়ে ঠিকমতো ঘুমাতেও পারেনি। কিন্তু একটা সপ্তাহের মধ্যে কী দারুণ বদলই না ঘটে গেল।' 

প্রোটিয়াদের না হারালে বিশ্বকাপে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যেত আগেভাগেই- এমন দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া অবস্থাই ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে টনিকের কাজ করেছে বলে মনে করেন পাকিস্তান কোচ, 'এমনটা আগেও দেখা গেছে, পেছনে যখন দেয়াল ছাড়া কিছু থাকে না, তখন ভালো পারফরম্যান্স বেরিয়ে আসে। আশা করি আগামী কয়েকদিনের জন্য কিছু মানুষের মুখ বন্ধ থাকবে।' 

পয়েন্ট টেবিলের সেরা চারে থাকা নিশ্চিত করতে পাকিস্তানকে এখন পরের তিনটি ম্যাচের সবক'টিই জিততে হবে। তিন ম্যাচের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ। 

ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর অভিজ্ঞতায় বাকি তিনটিতেও জয় খুব কঠিন নয় বলে মনে করেন আর্থার, 'নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে যে কোনো দলকেই আমরা হারাতে পারি। সেটা নিউজিল্যান্ড, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ বা যে-ই হোক। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিংয়ের তিন বিভাগেই যদি শৃঙ্খলা দেখানো যায়, তাহলে টুর্নামেন্টের যে কোনো দলের মতোই ভালো দল আমরা।' পাকিস্তানের পরবর্তী ম্যাচ বুধবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।

মন্তব্য


অন্যান্য