মন্তব্য

'কালোটাকা সাদা করার সুযোগ মোটেও কাম্য নয়'

প্রকাশ : ১৮ জুন ২০১৯ | আপডেট : ১৮ জুন ২০১৯

'কালোটাকা সাদা করার সুযোগ মোটেও কাম্য নয়'

  অনলাইন ডেস্ক

প্রস্তাবিত বাজেটে কালো টাকা সাদা করার যে সুযোগ দেওয়া হয়েছে তা 'বৈষম্যমূলক' ও 'দুর্নীতিবান্ধব' বলে মত দিয়েছে অনেক সংস্থা। কালো টাকা সাদা করার জন্য ফ্ল্যাটের পাশাপাশি এবার জমি কেনাকেও যোগ করা হয়েছে। এ ছাড়া বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল ও হাইটেক পার্কে শিল্প স্থাপনে ১০ শতাংশ কর দিয়ে অপ্রদর্শিত আয় বিনিয়োগের সুযোগের কথা বলা হয়েছে প্রস্তাবিত বাজেটে। কালো টাকা সাদা করার সুযোগ নিয়ে সমকাল অনলাইনকে মতামত জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের (বিআইডিএস) জ্যৈষ্ঠ গবেষক নাজনীন আহমেদ 

প্রস্তাবিত বাজেটে কালোটাকা সাদা করার জন্য যে সুযোগ রাখা হয়েছে, তা মোটেও কাম্য নয়। এতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি বা দেশে টাকা রাখার পরিকল্পনা খুব একটা সফল হবে বলে মনে হয় না। 

দুর্নীতি দমনে সরকারের যে অবস্থান তার সঙ্গে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া পরষ্পরবিরোধী একটি ব্যাপার। বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া মানে অসৎ ব্যবসায়ীদের বিশেষ সুবিধা দেওয়া। শিল্পাঞ্চল হওয়ায় সেখানে রাস্তাঘাট, বিদ্যুতের বিশেষ সুবিধা-সুবিধা থাকে। তবে অর্থের উৎসের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করার ক্ষমতা দুর্নীতি দমন কমিশনে থেকে যাওয়ায় বড় অংকের কালোটাকার মালিকরা এতে আসবেন না। অন্যদিকে ঘোষণা দিয়ে এখানে বিনিয়োগ করতে গেলে সবাই বুঝবে কালো টাকা থাকায় তিনি বিনিয়োগ করতে এসেছেন। সৎ ব্যবসায়ীরাও তখন এই খাতে বিনিয়োগ করতে পারবেন না। কারণ বিনিয়োগ করতে গেলে তাকেও অনেকে কালো টাকার মালিক মনে করবে। এটি মনস্তাত্ত্বিক একটি ব্যাপার। 

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া প্রায় সব সরকারের আমলেই কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এর আগে শেয়ারবাজার ও আবাসন খাতে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়। এবারও বলা হচ্ছে, বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্যই কালো টাকা সাদা করার সুযোগ। এনবিআর বলছে, কর ফাঁকি দিয়ে ধরা পড়লে কয়েক গুণ বেশি কর দিতে হবে। আবার প্রস্তাবিত বাজেটে বলা হচ্ছে, ১০ শতাংশ কর দিলে আয়ের উৎস নিয়ে কিছু জিজ্ঞেস করা হবে না। বিষয়টি পরষ্পরবিরোধী।    

ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, এ ধরণের সুযোগ থাকা উচিত না। এটা সার্বিকভাবে অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ নিরুৎসাহিত করবে। আর অর্থ পাচার রোধে সরকারকে আরও ভাবতে হবে। এভাবে কালো টাকা সাদা করার মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাচার বন্ধ করা যাবে না।  

প্রধানমন্ত্রী যেখানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের কথা বলেছেন সেখানে এভাবে কালো টাকা সাদা করার ঘোষণা আসাটা ঠিক নয়। 

মন্তব্য


অন্যান্য