রাজধানী

কবুতরের খোপ থেকে 'ইয়াবা বিক্রির' ১৮ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার ১

প্রকাশ : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কবুতরের খোপ থেকে 'ইয়াবা বিক্রির' ১৮ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার ১

ইয়াবা ও টাকাসহ মাহবুব হোসেন ওরফে শান্ত বাবুকে বুধবার গ্রেফতার মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল। ছবি: সংগৃহীত

  সমকাল প্রতিবেদক

দামি কবুতর পোষা তার শখ। বাসার উঠানেই টিন-কাঠ দিয়ে তৈরি করে নিয়েছেন কবুতরের ঘর। বিভিন্ন জাতের শতাধিক কবুতর সংগ্রহে রয়েছে তার। এতটুকু শুনে মানুষটি সম্পর্কে যে ধারণা জন্মায়, পরিপূর্ণ নয় তা।

বুধবার মাহবুব হোসেন ওরফে শান্ত বাবু নামে এই ব্যক্তির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১২০ পিস ইয়াবাসহ তাকে গ্রেফতার করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল। এ সময় তার বাড়িতে থাকা কবুতরের খোপ থেকে উদ্ধার করা হয় 'ইয়াবা বিক্রির' ১৮ লাখ টাকা।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রমনা সার্কেলের পরিদর্শক একেএম কামরুল ইসলাম বলেন, 'রাজধানীর দক্ষিণ খিলগাঁওয়ের ১০ নম্বর বাড়িতে থাকেন ৪০ বছর বয়সী শান্ত বাবু। টিনের ছাউনি দেওয়া এ বাড়ির উঠানেই তার কবুতরগুলোর থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।'

তিনি বলেন, 'গোয়েন্দা সূত্রে খবর ছিল, কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ২০ হাজার ইয়াবার একটি চালান তার কাছে এসেছে। তবে আজ (বুধবার) সকালে অভিযানের সময় তার কাছে পাওয়া গেছে ১২০ পিস ইয়াবা। বাকিগুলো তিনি বিক্রি করে দিয়েছেন বলে জানা যায়। সেই ইয়াবা বিক্রির টাকার খোঁজ নিতে গিয়েই একপর্যায়ে কবুতরের খোপে তল্লাশি করা হয়। পাওয়া যায় এক হাজার টাকার নোটের ১৮টি বান্ডিল।'

অভিযান সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রায় ১০ বছর ধরে মাদক ব্যবসায় জড়িত শান্ত বাবু। তার বিরুদ্ধে মাদকের প্রথম মামলা হয় ২০১৩ সালে। শাহজাহানপুর থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে অন্তত তিনটি। চিহ্নিত এই মাদক ব্যবসায়ীর সঙ্গে টেকনাফকেন্দ্রিক ইয়াবা ব্যবসায়ীদের নিবিড় যোগাযোগ রয়েছে। তারা ইয়াবার চালান এনে বাবুর বাসায় পৌঁছে দিয়ে যায়। সেসব ইয়াবা তিনি অনেক বেশি লাভে ঢাকায় বিক্রি করেন। অবশ্য তিনি সরাসরি বিক্রি করেন না। এ জন্য ১০-১২ জন খুচরা বিক্রেতা আছে তার। তারা নির্দিষ্ট কমিশনের বিনিময়ে বাবুর কাছ থেকে ইয়াবা নিয়ে বিক্রি করেন।

মন্তব্য


অন্যান্য