রাজধানী

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করতে কমিশন হবে: আইনমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৯ আগষ্ট ২০১৯

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করতে কমিশন হবে: আইনমন্ত্রী

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের চিহ্নিত করতে একটি কমিশন গঠনের ব্যাপারে সরকার নীতিগতভাবে একমত বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি জানান, এই কমিশন হবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রতিষ্ঠান। কারণ এটি গুরুদায়িত্ব পালন করবে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা একসঙ্গে বসে কমিশনের কর্মপরিধি নির্ধারণের পাশাপাশি কমিশনের চেয়ারম্যান ও সদস্য মনোনয়নের সিদ্ধান্ত নেবেন।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সরকারি শিশু পরিবারের অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মধ্যে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদবিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার এবং তেজগাঁও সরকারি শিশু পরিবার ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বক্তব্য দেন।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পলাতক আসামি তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, '২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ও পলাতক সব আসামিকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে সরকার। তারেক রহমানকে ফিরিয়ে এনে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যাবজ্জীবন এবং অর্থ পাচার মামলায় সাত বছরের কারাদণ্ডের রায় কার্যকরের চেষ্টা সরকার চালিয়ে যাচ্ছে।'

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, 'এতিমের টাকা চুরির দায়ে ২০০৭ সালে দুদকের করা মামলায় খালেদা জিয়াকে দুটি আদালত দেশের প্রচলিত আইনে সাজা দিয়েছেন। সরকারের এখানে কিছু করার নেই। তিনি বলেন, আদালত যে সিদ্ধান্ত দেবেন, সেটাই সরকার মেনে নেবে।'

অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী শিশু পরিবারের দেড় শতাধিক অবহেলিত ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুর মধ্যে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন কার্যক্রম পরিদর্শন এবং শিশুদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

মন্তব্য


অন্যান্য